ইতালী বিএনপিকে কৌশলে ভাষা শহীদদের শ্রদ্ধা জানাতে দেননি রাষ্ট্রদূত

bandicam 2016-02-23 04-33-57-347নাজমুল হোসেন ইতালি: একুশে ফেব্রুয়ারী আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস। ১৯৯৯ সালে ইউনেস্কো ২১ ফেব্রুয়ারীকে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসাবে স্বীকৃতি দেয়। তারপর থেকে শুধু বাংলা ভাষা ভাষী মানুষই নয়, বিশ্বের বিভিন্ন দেশের ভিন্ন ভাষাভাষীর মানুষও এদিনে বাংলার মহান ভাষা সৈনিকদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করে।
এ দিবস উপলক্ষ্যে দেশ বিদেশের সর্বত্রে সবাই ভাষা শহীদদের শ্রদ্ধা নিবেদন করে থাকে। ভাষা শহীদদের শ্রদ্ধা জানানো নিয়ে কোথাও কারও বাঁধা নেই। তবে ইতালীর রাজধানী রোমে ইতালীস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসের অস্থায়ী শহীদ মিনারে ২০ তারিখ রাতের প্রথম প্রহরে ভাষা শহীদদের শ্রদ্ধা জানাতে গিয়ে পুলিশি বাধাঁর সম্মুখীন হয় ইতালী বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের কয়েক শত নেতা কর্মী। বিএনপি ছাড়াও অন্যান্য সংগঠনের নেতাকর্মীদেরও প্রবেশ করতে দেয়নি পুলিশ। এরই প্রেক্ষিতে ২১ ফেব্রুয়ারী সন্ধ্যায় ইতালী বিএনপি এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে। সংবাদ সম্মেলনে ইতালী বিএনপির নব নির্বাচিত সভাপতি শাহ মোঃ তাইফুর রহমান ছোটন ও সাধারন সম্পাদক খন্দকার নাসির উদ্দিন নানা ধরনের অভিযোগ উত্থাপন করেন স্থানীয় সাংবাদিকদের কাছে। সভাপতি ছোটন বলেন, বাংলাদেশের নাগরিক হয়েও এই প্রথম বাংলার ভাষা শহীদদের শ্রদ্ধা জানাতে পারেনি। শহীদ মিনারে যখন থেকে পুষ্পার্ঘ্য অর্পন শুরু হয়, তখন থেকেই তারা ভেতরে প্রবেশের জন্য অপেক্ষা করছিল এবং দূতাবাসের কর্মকর্তাদের সাথে টেলিফোনেও কথা বলেছে, কিন্তু দূতাবাসের কর্মকর্তারা রাত ১টা পর্যন্তও তাদের কোন সুযোগ করে দেয়নি বলে অভিযোগ করেন তারা।
বিএনপি সংবাদ সম্মেলনে সাধারন সম্পাদক খন্দকার নাসির উদ্দিন তার বক্তব্যে বলেন, বর্তমান দূতাবাসের রাষ্ট্রদূত সকলের রাষ্ট্রদূত নয়, তিনি আওয়ামী লীগের রাষ্ট্রদূত। আওয়ামী লীগের এ্যাজেন্ডা বাস্তবায়নে তিনি কাজ করেন, প্রবাসী কিংবা দেশের রাষ্ট্রদূত হলে প্রবাসের মাটিতে প্রতিটি বাংলাদেশী নাগরিককে শহীদ মিনারে প্রবেশ করার সুযোগ করে দিতেন।
ইতালী যুবদলের সভাপতি আনিমুর রহমান সালাম তার বক্তব্য বলেন, ইতালী আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের ইনধন দূতাবাস পুলিশি বেষ্টনীর মাধ্যমে ইতালী বিএনপিকে নির্মিত অস্থায়ী শহীদ মিনার স্থলে প্রবেশ করতে দেয়নি, তাই আগামীতে ইতালী আওয়ামী লীগের সকল অগঠনতান্ত্রিক কর্মকান্ডের বিপক্ষে প্রতিরোধ গড়ে তোলবে বলে ঘোষনা দেয়।
সংবাদ সম্মেলনে ইতালী বিএনপির ও অন্যান্য নেতাকর্মীদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ইমদাদুল হক মৃধা, রোম মহানগর বিএনপির সভাপতি হুমায়ুন কবীর, যুবদলের ভারপ্রাপ্ত সাধারন সম্পাদক ঢালী নাসির উদ্দিন, মোঃ নাসিম উদ্দিন, সাজ্জাদুল কবীর, কামরুজ্জামান রতন, মাসুম বিল্লাহসহ আরো অনেকে।
২১শের ঘটনা নিয়ে এ প্রতিবেদকের সাথে বাংলাদেশ দূতাবাসের রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ শাহ্দৎ হোসেন এর সাথে বিস্তারিত কথা হয়। তিনি দাবী করেন, বিএনপি কিংবা কারোর বিরুদ্ধে দূতাবাসের পক্ষ থেকে পুলিশের কাছে কোন অভিযোগ করা হয়নি, বিএনপিকে বাধাঁ দেয়ার জন্যও কোন অনুরোধ করা হয়নি। তবে তিনি বলেন, সেখানে যেন কোন রকম অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটে সে জন্য পুলিশ তাদের মতো করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিয়েছে।

Pin It on Pinterest

Share This

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. more information

The cookie settings on this website are set to "allow cookies" to give you the best browsing experience possible. If you continue to use this website without changing your cookie settings or you click "Accept" below then you are consenting to this.

Close