পোষ্টার-ব্যানারে লাগা বাতাসের শব্দে রাস্তাঘাট গরম হলেও নিরব ভোটাররা

IMG_1087জুবের সরদার দিগন্ত, দিরাই-শাল্লা (সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি ঃ একটি রাষ্টের সাধারণ নাগরিকের ছেয়ে কোনো বড় পদ নেই, এই শ্লোগানকে সামনে রেখে সুনামগঞ্জের দিরাই স্মৃতি সৌধে মঙ্গলবার বিকাল ৫ টার সুজন সুশাসনের জন্য নাগরিক এর আয়োজনে দিরাই পৌরসভার চার প্রতিদ্ধন্ধী মেয়র প্রার্থীদের নিয়ে প্রার্থী ও ভোটারদের মুখোমুখি অনুষ্টান অনুষ্টিত হয়। ভোটারদের উপস্থিতিতে সকল প্রার্থীরা অঙ্গিকার করে বলেন, আচরনবিধি লঙ্ঘন করবেন না, নির্বাচনী প্রতিদ্ধন্ধী প্রার্থী বিজয়ী হলে তাকে মেনে নিবেন, নির্বাচিত হলে পৌরসভাকে দূর্নীতি মুক্ত করতে সর্বাক্ত চেষ্টা করবেন, প্রশাসনকে দলীয়করন মুক্ত করবেন, স্কুল-কলেজ, মাদ্রাসা ও হাসপাতালের সকল পোষ্ট পূরন করবেন এবং পুরাতন রাস্তাঘাট মেরামতসহ নতুন রাস্তা নির্মান করবেন। মাদকের চড়াচরি বন্ধসহ জনকল্যান মুলক কাজে নিজেকে নিযোক্ত করবেন।
অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন, ২০ দলীয় মেনোনিত প্রার্থী মঈন উদ্দিন চৌধুরী মাসুক, আওয়ামীলীগ মনোনিত প্রার্থী মোঃ মোশারফ মিয়া, বাংলাদেশ সমাজন্ত্রাতিক দল জাসদ এর মনোনিত প্রার্থী মোজাম্মেল হক, জাতীয়পার্টির মনোনিত প্রার্থী রফিকুল ইসলাম রফিক সরদার। সুজনের জেলা সম্বনয়কারী আব্দুল হালিমের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে ভোটারদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেন মেয়র প্রার্থীরা। এবং সুজন কর্তৃক প্রনীত ১৩ দফা পড়ে লিখিত অঙ্গীকারনামায় স্বাক্ষর করেন মেয়র প্রার্থীগন। অঙ্গীকারনামাটি উপস্থিত ভোটারদের সামনে পাঠ করেও শোনানো হয়। সাথে সাথে উপস্থিত ভোটারদেরও শপথ পাঠ করানো হয়। এসময় সঞ্চালকের সাথে ভোটররা কন্ঠ মিলিয়ে বলেন, ভোট প্রধানকে পবিত্র দায়িত্ব মনে করে, সৎ, যোগ্য ও জনকল্যানে নিবেদিত প্রার্থীকে ভোট দেব। আমরা অর্থ কিংবা অন্য কিছুর প্রলোভনে অযোগ্য ব্যাক্তিকে ভোট দেব না, দেব না দেব না। সুজনের এই অনুষ্ঠানের আগে যেমন দিরাই পৌরসভার ভোটরদের মধ্যে আলোচনা সমালোচনা লক্ষ করা যায়নি, তেমনি অনুষ্ঠানের একদিন পরও রহস্যজনক কারনে ভোটাররা রয়েছেন নিরব। দিরাই পৌরসভার অলি গলিতে পোষ্টার ও ব্যানারের ঝনঝনানি শব্দ থাকলেও নেই ভোটারদের মুখে আলোচনা সুর। টেলাগাড়ি চালক আবুল মিয়ার সাথে কথা বললে তিনি জানান, ভোট নিয়ে পরেছি বিপাকে কাকে ভোট দিবো কাকে দিবো না বুঝতে পারছি না। আমাদের পৌরসভায় মেয়র প্রার্থী চার জন হলেও ভোট হবে দু’জনকে গিরে। এখানে মূলত ভোটের লড়াই হয় নাছির চৌধুরী ও সুরঞ্জিত সেনগুপ্তের সমর্থীত প্রার্থীদের নিয়ে। রিক্সাচালক কাসেম মিয়া বলেন, এবারের নির্বাচন একটু অন্য রখম মনে হচ্ছে। এর আগে দিরাইতে অনেক নির্বাচন দেখেছি এমন নিরব নির্বাচন আর কখনো দেখিনি। দিরাইয়ের অলিতে গলিতে মেয়র ও কাউন্সিলর এবং সংরক্ষিত মহিলা প্রার্থীদের পোষ্টার আর ব্যানারে সয়লাভ হলেও রহস্যজনক কারনে ভোটাররা রয়েছেন নিরব। অনুষ্ঠানে অন্যান্যেও মধ্যে উপস্থিত ছিলেন,দিরাই প্রেসকাবের সভাপতি সামছুল ইসলাম সরদার, সহ-সভাপতি ও মানবজমিন প্রতিনিধি জুবের সরদার দিগন্ত, যুগ্ম সম্পাদক সর্দার মুজাহিদুল ইসলাম, কোষাধ্যক্ষ সৈদুর রহমান তালুকদার, আবু হানিফ চৌধুরী প্রমুখ

Pin It on Pinterest

Share This

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. more information

The cookie settings on this website are set to "allow cookies" to give you the best browsing experience possible. If you continue to use this website without changing your cookie settings or you click "Accept" below then you are consenting to this.

Close