সিলেটে কঠোর নিরাপত্তায় ২৯৩ বিদেশি

foreign citizen sylhetসুরমা টাইমস ডেস্কঃ ঢাকা ও রংপুরে পরপর দুই বিদেশি নাগরিক খুন হবার পর নড়েচড়ে বসেছে সিলেটের পুলিশও। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় সিলেট জেলায় অবস্থানকারী ২৯৩ জন বিদেশির নিরাপত্তা বাড়ানো হয়েছে। তবে এই হিসাবের বাইরে থাকা বিদেশি নাগরিকদের তালিকা প্রণয়ন করে তাদের নিরাপত্তা নিশ্চিতেরও উদ্যোগ নিয়েছে সিলেট পুলিশ।
সূত্র জানায়, সিলেটে বসবাসকারী বিদেশি নাগরিকদের বড় একটি অংশ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, জাপান ও চাইনিজ প্রকৌশলী অথবা টেকনিশিয়ান। যারা ফেঞ্চুগঞ্জ সারকারখানা সহ বিভিন্ন উন্নয়নমূলক প্রকল্পের দায়িত্বে রয়েছেন। এছাড়াও বিভিন্ন কারণে সিলেটে দীর্ঘ সময় ধরে বসবাস করছেন বেশ কয়েকজন বিদেশি নাগরিক। তাছাড়া এখানকার বিভিন্ন মেডিকেল কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করছেন অনেক বিদেশি।
সিলেট মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার এসএম রোকন উদ্দিন আহমদ জানান, সিলেট মহানগরে অবস্থানরত বিদেশি নাগরিকদের পরিসংখ্যান তাদের কাছে নেই। তবে দ্রুত তালিকা প্রস্তুত করা হচ্ছে।
বাংলাদেশে বিদেশিদের নিরাপত্তা ঝুঁকির অজুহাত দেখিয়ে অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দলের সফর বাতিল করার কয়েকদিনের মাথায় ঢাকার গুলশান কূটনৈতিক পাড়ায় খুন হন ইতালিয়ান নাগরিক ও এনজিও কর্মকর্তা তাভেল্লা সিজার এবং তার কয়েকদিন পর রংপুরে খুন হন জাপানি নাগরিক হোশি কুনিও। তার কয়েকদিন পর যুক্তরাষ্ট্র সফর শেষে দেশে ফিরে সিলেট বিমানবন্দরে বিরতিকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সিলেটে বিদেশিদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে সিলেটের পুলিশকে নির্দেশ দেন। এরপরই সিলেটে বিদেশিদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার কাজ শুরু করে পুলিশ। গত ৩ অক্টোবর শনিবার সিলেটে বিদেশি নাগরিকদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে মহানগর পুলিশের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাদের একটি বৈঠক হয়। পরদিন সিলেটে বিভিন্ন পেশাগত কারণে অবস্থানরত বিদেশিদের নিয়ে বৈঠক করে তারা। এই দুই বৈঠকের পর বিদেশিদের নিরাপত্তা জোরদারে বিশেষ পদক্ষেপ নেয় পুলিশ।
এরপর সিলেটের বিভিন্ন তারকা হোটেল, রেস্টুরেন্ট, কটেজ ও রেস্ট হাউজের মালিক ম্যানেজারদের সঙ্গে বৈঠক করেছে পুলিশ। বৈঠকে এসব হোটেল-রেস্টহাউজে অবস্থানরত বিদেশি নাগরিকদের নিরাপত্তার ব্যাপারে সতর্ক থাকতে পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে অনুরোধ জানানো হয়। পুলিশ বিদেশিদের প্রতি একা একা চলাফেরা না করা, রাতের বেলায় ঘোরাঘুরি না করা এবং বিশেষ সতর্কতা অবলম্বন করতে অনুরোধ জানিয়েছে। তাদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে একটি বিশেষ হটলাইন নাম্বার চালু করেছে এসএমপি। যে নাম্বারে বিদেশিরা সহযোগিতা চাইলে, দ্রুততম সময়ের মধ্যে তার নিরাপত্তা নিশ্চিত করার ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। তাছাড়া কেউ নিজের অবস্থান পরিবর্তন করলে, ওই নাম্বারে ফোন করে জানিয়ে দেয়ারও অনুরোধ জানানো হয়।
এ প্রসঙ্গে সিলেট মহানগর পুলিশের সহকারী উপকমিশনার (গণমাধ্যম) রহমত উল্লাহ বলেন, বিদেশি নাগরিকদের নিরাপত্তায় সর্বোচ্চ গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে। সদর দফতর থেকে দেয়া ১৪টি নির্দেশনার আলোকে কাজ করা হচ্ছে
সিলেট জেলা পুলিশ সুপার নূরে আলম মিনা জানান, সিলেট জেলায় যেসব বিদেশি নাগরিক বসবাস করছেন তারা স্বাভাবিক জীবন-যাপন করেন। ঘরের ভেতরেই বেশি সময় পার করেন। কাজের সময় কাজ করেন। খুব একটা বাইরে বের হন না। তবুও তাদের নিরাপত্তার বিষয়টি খুব জোর দিয়ে দেখা হচ্ছে।

Pin It on Pinterest

Share This

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. more information

The cookie settings on this website are set to "allow cookies" to give you the best browsing experience possible. If you continue to use this website without changing your cookie settings or you click "Accept" below then you are consenting to this.

Close