হাজারো প্রাক্তন শিার্থীদের অংশগ্রহণে বর্ডার গার্ড পাবলিক স্কুলের পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত

bordar gard picঅত্যন্ত আনন্দঘন পরিবেশের মধ্য দিয়ে উদযাপিত হলো বর্ডার গার্ড পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজ-এর পুনর্মিলনী ২০১৪। এ উপল্েয হাজারো প্রাক্তন -শিার্থীদের অংশগ্রহণে এক বর্নাঢ্য র‌্যালী ও শোভাযাত্রার আয়োজন করা হয়। শোভাযাত্রাটি গতকাল শনিবার সকালে স্কুল প্রাঙ্গন থেকে নগরীর প্রধান প্রধান সড়ক প্রদণি করে আবারো স্কুলে এসে শেষ হয়। পুনর্মিলনী উপল্েয স্মারক গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন ও আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। আলোচনা সভায় বক্তারা বলেন, বর্ডার গার্ড স্কুল প্রাক্তন শিার্থীদের কাছে মায়ের মতো। এখান থেকে যারা লেখাপড়া করে গেছেন তারা এই স্কুলের সাথে নাড়ীর টান অনুভব করেন। এ স্কুল নিয়ে তাদের অনেক আনন্দ স্মৃতি রয়েছে। আগামীতে এ স্কুলের উন্নয়নে নিজেদের অবস্থান থেকে শিার্থীরা কাজ করে যাবে।
বর্ডার গার্ড পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজ-এর অধ্য ফয়জুল হকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সিলেট মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিা বোর্ড-এর চেয়ারম্যান এ.কে.এম গোলাম কিবরিয়া তাপাদার। পুনর্মিলনী উদযাপন পরিষদ ১৪-এর সদস্য সচিব মোঃ আমিনুল ইসলাম, রাজু কুমার দাশ ও তাসনিম রশীদ চৌধুরী রিমির যৌথ পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন বাংলাদেশি বংশোদ্ভুত ব্রিটিশ নাগরিক সাবিরুল ইসলাম। এছাড়াও অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন সিলেট সিটি কর্পোরেশন-এর ৮নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ইলিয়াছুর রহমান ইলিয়াছ, বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদ-এর সদস্য আবু তাহের ও আলহাজ্ব ছিদ্দেক আলী। অনুষ্ঠানটি পুরো উপস্থাপনার দায়িত্বে ছিলেন হৃদিতা ও নাইম।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে বলেন, বর্ডার গার্ড স্কুলে অধ্যয়ন করেছে এমন কৃতী ছাত্র-ছাত্রী আজ দেশের বিভিন্ন জায়গায় সুপ্রতিষ্ঠিত। আজকের এই পুনর্মিলনী অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে সকলকে একত্র করা হয়েছে। তাদের হাজারো ব্যস্ততা থাকা সত্ত্বেও কিছুণের জন্য হলেও অতীত জীবনে ফিরে গেছেন। তিনি অনুষ্ঠানের আয়োজকদের ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, তাদের এ মহৎ প্রয়াসের কারণে এ বিদ্যালয়ের সুনাম ও শিার মান আরও বৃদ্ধি পাবে এবং প্রাক্তন ছাত্র-ছাত্রী ও বর্তমান শিার্থীদের মধ্যে সেতু বন্ধন রচিত হবে।
অনুষ্ঠানে বক্তারা স্মৃতিচারণ করতে গিয়ে খুঁজে ফিরেন তাদের পুরনো দিনের হারিয়ে যাওয়া সোনাঝরা দিনগুলো। তারা বলেন, এ স্কুল থেকে আমাদের শিাজীবনের পথচলা শুরু। এজন্য স্কুলজীবনের বহু স্মৃতি আজও চোখের সামনে ভেসে উঠে। আমরা স্কুলের পুরনো স্মৃতিতে ফিরে যাওয়ার অপ্রাণ চেষ্টা করি। আজকের এই পূনমিলনীতৈ আমরা সেই পুরনো স্মৃতিকে ফিরে পাওয়ার এক প্রয়াস কিছুটা হলেও খুঁজে পেয়েছি।
সভাপতির বক্তব্যে স্কুলের অধ্য ফয়জুল হক বলেন, এই স্কুল থেকে অসংখ্য শিার্থী তাদের সাফল্যের দারপ্রান্তে এসে উপনিত হয়েছেন। এই শিার্থীরাই দেশে ও আন্তর্জাতিক অঙ্গনে আজ সপ্রতিষ্ঠিত। যুগের পর যুগ বর্ডার গার্ড স্কুল সিলেটের শিার উন্নয়নে বিশেষ ভূমিকা রাখবে।
পুনর্মিলনী উদযাপন পরিষদ ১৪-এর আহবায়ক আব্দুর রাজ্জাক রাজনের স্বাগত বক্তব্যের মাধ্যমে শুরু হওয়া সভায় বর্তমান শিকদের প থেকে বক্তব্য রাখেন বিদ্যালয়ের সিনিয়র শিক আরজান আলী, এনায়েতুর রহমান, মৃণাল কান্তি চন্দ ও রশীদ আহমদ। সাবেক শিকদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন এডভোকেট প্রচীর ভট্টাচার্য, সাবেক সহকারি প্রধান শিক মুহিবুল ইসলাম চৌধুরী।
উল্লেখ্য, স্কুল থেকে ‘স্মৃতির পাতা’ নামে স্মারক গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন করা হয়। পরে সাংস্কৃতিক সন্ধ্যা ও সমাপনী অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে সঙ্গিত পরিবেশন করেন বিদ্যালয়ের প্রাক্তন শিার্থী ও কোজ আপ ওয়ান তারকাবৃন্দ। শিরোনামহীন ব্র্যান্ড এসে তাদের সঙ্গিত পরিবেশন করেন।  বিজ্ঞপ্তি

Pin It on Pinterest

Share This

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. more information

The cookie settings on this website are set to "allow cookies" to give you the best browsing experience possible. If you continue to use this website without changing your cookie settings or you click "Accept" below then you are consenting to this.

Close