মঙ্গলে মরু শহরে `বাজিগর’-এর লড়াই

shahrukh-d_22774সুরমা টাইমস স্পোর্টসঃ অধিনায়ক গৌতম গম্ভীরের রান-সংকট চিন্তায় রেখেছে নাইটদের। জ্যাক ক্যালিস, রবিন উথাপ্পা, মণিশ পাণ্ডেদের ধারাবাহিকতা অভাবে প্রথম চার ম্যাচে স্কোরবোর্ডে বড় রান তুলতে পারেনি কেকেআর। এই অবস্থায় মঙ্গলবার আবু ধাবি-তে রাজস্থান রয়্যালসের সঙ্গে টক্কর দিতে নামছে নাইটরা। সংযুক্ত আরব আমিরশাহীতে এটাই শেষ ম্যাচ নাইটদের। রয়্যালস বধ করেই আবু ধাবি-কে বিদায় জানাতে চায় শাহরুখ দল।
ভারতের মাটিতেও আইপিএল সেভেনে প্রথম ম্যাচ খেলবে কেকেআর। ২ মে রাঁচিতে নাইটদের প্রতিপক্ষ চেন্নাই সুপার কিংস। তার আগে রাজস্থানকে হারিয়ে ভারতের মাটিতে পা-রাখতে চাইছে ২০১২-র চ্যাম্পিয়ন দল। কিন্তু, আগের ম্যাচে কিংস ইলেভেন পঞ্জাবের কাছে হারায় মঙ্গলবারের লড়াইয়ে কিছুটা হলেও ব্যাকফুটে কেকেআর। ব্যাটিং, বোলিং, ফিল্ডিং প্রতিটি বিভাগেই শাহরুখের দলকে টেক্কা দিয়েছে প্রীতির কিংস ইলেভেন। সামনে এবার শিল্পা শেঠির রাজস্থান রয়্যালস। রাহুল দ্রাবিড়ের উত্তরসূরিরা আগের ম্যাচে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোরকে ধরাশায়ী করে নাইটদের বিরুদ্ধে নামছে। রাজস্থান বোলারদের সামনে মাত্র ৭০ রানে গুটিয়ে যায় ব্যাঙ্গালোর। আইপিএল-এর ইতিহাসে এটাই সর্বনিন্ম স্কোর আরসিবি-র। বিজয় মালিয়ার দলকে গো-হারান হারিয়ে স্বাভাবিক ভাবেই বাড়তি আত্মবিশ্বাস নিয়ে শাহরুখের দলের বিরুদ্ধে নামবে শিল্পার দল।
আবু ধাবিতে উদ্বোধনী ম্যাচে গতবারের চ্যাম্পিয়ন মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সকে হারিয়ে আইপিএল সেভেনে শুরুতেই চমক দিয়েছিল কেকেআর। শুরুটা ভাল হলেও নিজের চেনা গণ্ডি থেকে বেড়িয়ে আসতে পারেনি নাইটরা। দ্বিতীয় ম্যাচেই দিল্লি ডেয়ারডেভিলসের কাছে হারে গম্ভীর অ্যান্ড কোং। পরের ম্যাচে ক্রিস লিনের একটি অবিশ্বাস্য ক্যাচ ব্যাঙ্গালোরের বিরুদ্ধে অপ্রত্যাশিত জয় এনে দেয় নাইটদের। কিন্তু, পরের ম্যাচে আবার ভড়াডুবি। কিংস ইলেভেনের কাছে ২৩ রানে হার। প্রথম চার ম্যাচে দু’টি জিতে এই মুহূর্তে পয়েন্ট তালিকায় চতুর্থ স্থানে কেকেআর। রাজস্থান প্রথম চার ম্যাচের মধ্যে দু’টিতে জিতেছে। দু’ দলের সমসংখ্যক পয়েন্ট সমান হলেও রান-রেটে এগিয়ে থাকায় পয়েন্ট তালিকায় কেকেআর-এর ঠিক উপরে রয়েছে রয়্যালস।
অধিনায়ক গম্ভীর ও হার্ড-হিটার ইউসুফ পাঠানের অফ-ফর্ম নিয়ে চিন্তায় নাইট টিম ম্যানেজমেন্ট। প্রথম চার ম্যাচে গম্ভীরের সংগ্রহ ০,০,০,১।- প্রথম তিন ম্যাচে হারের হ্যাটট্রিকের পর কিংস ইলেভেনের বিরুদ্ধে রানের খাতা খুললেও একের বেশি পেরোতে পারেননি কেকেআর সেনাপতি। নিলামে জোকার-কার্ড দিয়ে কেনা ইউসুফ পাঠানও দলের বোঝা হয়ে দাঁড়িয়েছে। চার ম্যাচে ইউসুফের সংগ্রহ ১৭। রাজস্থান ম্যাচে গম্ভীর-ইউসুফের ব্যাটে রানের জন্য প্রর্থনা করবেন নাইট সমর্থকরা। নাইটদের বোলিংকে টানছেন সুনীল নারিন। রয়্যালস ব্যাটসম্যানদের বেগ দিতে পারেন ক্যারিবিয়ান অফ-স্পিনার। নাইটশিবিরে কাঁপুনি ধরাতে পারেন প্রবীণ তাম্বে। আগের ম্যাচে ২০ রানে চার উইকেট তুলে নিয়ে একাই ব্যাঙ্গালোরকে শেষ করে দেন ৪২ বছর বয়সি রাজস্থানের লেগ-স্পিনার। আরসিবি-কে হারিয়ে ফুরফুরে মেজাজে রয়্যালস শিবির। নাইট ম্যাচের আগে ‘ডেজার্ট সাফারি’ করে রাজস্থান ক্রিকেটাররা।

Pin It on Pinterest

Share This

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. more information

The cookie settings on this website are set to "allow cookies" to give you the best browsing experience possible. If you continue to use this website without changing your cookie settings or you click "Accept" below then you are consenting to this.

Close