জম্মু-কাশ্মীরে প্রথম নারী মুখ্যমন্ত্রী হচ্ছেন মেহবুবা

Mehbubaডেস্ক রিপোর্টঃ ভারতের নিয়ন্ত্রণাধীন জম্মু ও কাশ্মীর রাজ্যের প্রথম নারী মুখ্যমন্ত্রী হতে যাচ্ছেন মেহবুবা মুফতি। মুখ্যমন্ত্রী মুফতি মোহাম্মদ সাঈদ মারা যাওয়ায় ক্ষমতাসীন দল সর্বসম্মতিতে মেহবুবার প্রতি সমর্থন জানায়। আজ বৃহস্পতিবার মেহবুবার বাবা মুখ্যমন্ত্রী মুফতি সাঈদ নয়াদিল্লির অল ইন্ডিয়া ইনস্টিটিউট অব মেডিকেল সায়েন্সেসে (এআইআইএমএস) মারা যান।এনডিটিভি অনলাইনের এক খবরে এসব তথ্য জানা যায়।
জম্মু ও কাশ্মীরের বর্তমান ক্ষমতাসীন দল পিপলস ডেমোক্রেটিক পার্টির (পিডিপি) প্রতিষ্ঠাতা মুফতি সাঈদ গত বছরের মার্চে জম্মু-কাশ্মীর রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ নিয়েছিলেন। ভারতের ক্ষমতাসীন দল বিজেপির সঙ্গে জোট বেঁধে রাজ্যে সরকার গঠন করেন তিনি।
মেহবুবাকে মুখ্যমন্ত্রী নির্বাচন করার বিষয়ে পিডিপির নেতা ও লোকসভার সদস্য মোজাফফর হোসাইন বেগ গণমাধ্যমকে বলেন, “আমরা সবাই একমত যে, মেহবুবাই তার বাবার উত্তরসূরি হবেন।”
তবে যেহেতু বিজেপির সঙ্গে জোট করে পিডিপি ক্ষমতায়, তাই মেহবুবার মুখ্যমন্ত্রী হওয়ার জন্য বিজেপির সমর্থন প্রয়োজন হবে। বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতারা এ বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবেন।জম্মু ও কাশ্মীরের ৮৭ আসনের বিধানসভায় পিডিপির আসন রয়েছে ২৮টি। এ ছাড়া বিজেপির ২৫টি, ন্যাশনাল কনফারেন্সের ১৫ ও কংগ্রেসের আসন ১২টি।
৫৬ বছর বয়সী মেহবুবা ১৯৯৬ সালে বাবা মুফতি সাঈদের সঙ্গে কংগ্রেসে যোগ দিয়ে রাজনীতি শুরু করেন। ১৯৯৯ সালে পিডিপি প্রতিষ্ঠা করেন মুফতি সাঈদ। বর্তমানে পিডিপির প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন মেহবুবা। ২০০৪ সালের লোকসভা নির্বাচনে প্রথমবারের মতো জয়লাভ করেন দুই কন্যাসন্তানের মা এই ভাবী মুখ্যমন্ত্রী।

Pin It on Pinterest

Share This

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. more information

The cookie settings on this website are set to "allow cookies" to give you the best browsing experience possible. If you continue to use this website without changing your cookie settings or you click "Accept" below then you are consenting to this.

Close