ক্যামেরনই থাকলেন যুক্তরাজ্যের ক্ষমতায় : এড মিলিব্যান্ডের পদত্যাগ

David Cameronসুরমা টাইমস ডেস্কঃ নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে আরও পাঁচ বছর যুক্তরাজ্যের শাসন ক্ষমতায় থাকছেন ডানপন্থী কনজারভেটিভ পার্টির নেতা ডেভিড ক্যামেরন। পার্লামেন্টের ৬৫০ আসনের মধ্যে ৬৪৩টি আসনের যে ফলাফল এসেছে, তাতে কনজারভেটিভ পার্টি ৩৩১টিতে জয় পেয়েছে।
অন্যদিকে বৃহস্পতিবার ভোটের পর কঠিন একটি রাত কাটিয়েছে লেবার পার্টি, যেখানে শ্যাডো চ্যান্সেলর এড বলস নিজেও হেরে বসেছেন। বিরোধী দলে থাকা লেবার পার্টি এবার পেয়েছে ২৩২ আসন।
৫৬টি আসনে জয় পাওয়া স্কটিশ ন্যাশনাল পার্টি (এসএনপি) স্কটল্যান্ড থেকে লেবার পার্টিকে একপ্রকার নির্মূলই করে দিয়েছে। এছাড়া লিবারেল ডেমোক্রেটসরা ৮টি এবং ২৩টি আসনে অন্যান্য দল জিতেছে।
নিয়ম অনুযায়ী নিরঙ্কুশ জয়ের জন্য ৩২৬ আসন দরকার হলেও পার্লামেন্টে আয়ারল্যান্ডের সিন ফিনের চারটি আসন এবং স্পিকারের ভোট থাকে না বলে সংখ্যাগরিষ্ঠতার জন্য কর্যত ৩২৩ আসনই যথেষ্ট।
দলের হতাশাজনক ফলাফলের পর লেবার নেতা এড মিলিব্যান্ড এবং লিব-ডেমসের প্রধান নিক ক্লেগ পদত্যাগের ঘোষণা দিয়েছেন বলে ব্রিটিশ গণমাধ্যমের খবর।
এদিকে জাতীয় নির্বাচনে প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরনের কনজারভেটিভ পার্টির কাছে শোচনীয় পরাজয়ের গ্লানির মুখে পদত্যাগের ঘোষণা দিয়েছেন প্রতিদ্বন্দ্বী লেবার পার্টির নেতা এড মিলিব্যান্ড। নির্বাচনপূর্ব জরিপগুলোতে প্রধান দুই দলের মধ্যে তীব্র লড়াইয়ের আভাস পাওয়া গেলেও ভোটের হিসাব সব চিত্রই পাল্টে দিয়েছে।
ক্ষমতাসীন কনজারভেটিভ পার্টির সুষ্পষ্ট জয়ে আগেভাগেই পরাজয় মেনে নেন লেবার নেতা এড মিলিব্যান্ড। এর পরপরই দলের নেতৃত্ব থেকেসরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দেন তিনি।
দলের বৈঠকে মিলিব্যান্ড বলেন, “ব্রিটেনের একটি শক্তিশালী লেবার পার্টি দরকার। যে দলটি এ পরজায়ের পরও উঠে দাঁড়াতে পারবে। যাতে করে দলটি আবারো জনগণের সেবায় আত্মনিয়োগ করার জন্য একটি সরকার গঠন করতে পারে।”
“এখন অন্য কারো দলের নেতৃত্ব গ্রহণ করে দলকে সামনে এগিয়ে নেয়ার সময়। সুতরাং, আমি পদত্যাগের সিদ্ধান্ত জানাচ্ছি।”
৮ মে বিকালে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ শেষের ৭০ বছর পূর্তি পালনের পরই বিদায় নিচ্ছেন বলে জানান মিলিব্যান্ড। নতুন কোনো নেতা নির্বাচিত না হওয়া পর্যন্ত লেবার পার্টির উপ-নেতা হ্যারিয়েট হারম্যানই দলের নেতৃত্বে থাকবেন বলেও জানান তিনি।
লেবার পার্টি এবারের নির্বাচনে বসচেয়ে বেশি ধরাশায়ী হয়েছে স্কটল্যান্ডে। স্কটিশ ন্যাশনালিস্ট পার্টির (এসএনপি)উত্থানে ভেসে গেছেন লেবারের উঁচু সারির অনেক নেতাও। তাছাড়া, কনজারভেটিভ পার্টির কাছেও ভোটে বহু আসন খুইয়েছে দলটি। দলের জন্য ভোটের রাতকে খুবই হতাশাব্যঞ্জক ও কঠিন বলে বর্ণনা করে গভীরভাবে দুঃখ প্রকাশ করেন মিলিব্যান্ড।

Pin It on Pinterest

Share This

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. more information

The cookie settings on this website are set to "allow cookies" to give you the best browsing experience possible. If you continue to use this website without changing your cookie settings or you click "Accept" below then you are consenting to this.

Close