হাতের কব্জি কেটে নেওয়া ব্যবসায়ীর মামলায় সন্ত্রাসী জুবের গ্রেফতার

Jubayer_Asami 05-10-2015সুরমা টাইমস ডেস্কঃ কানাইঘাট উপজেলার সার্বিক আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে এনে জনমনে শান্তি ফিরিয়ে আনার লক্ষ্যে রাজনৈতিক আশ্রয় প্রশ্রয়ে থাকা অপরাধীদের গ্রেফতার করতে যৌথ বাহিনীর চিরুনী অভিযান চলছে। উপজেলা ছাত্রলীগের অভ্যন্তরীন কোন্দলের জের ধরে একাধিক অপরাধ মূলক কর্মকান্ড সংঘটিত হওয়ায় এবং নিরীহ লোকজনদের প্রাণ নাশের চেষ্টায় এলাকায় জনমনে সর্বত্র আতংক ছড়িয়ে পড়ে।
বিশেষ করে গত বুধবার গভীর রাতে ছাত্রলীগ ও যুবলীগের একাংশের নেতাকর্মীদের হাতে কানাইঘাট বাজারের দুই ব্যবসায়ী ও এক ইলেক্ট্রিশিয়ান গুরুতর আহতের ঘটনায় জনমনে আতংক ছড়িয়ে পড়লে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা এ ঘটনার সাথে জড়িত দুর্বৃত্তদের গ্রেফতার করতে সাড়াসী অভিযানে নামায় জনমনে কিছুটা স্বস্তি নেমে এসেছে। গ্রেফতারের ভয়ে রাজনৈতিক আশ্রয় প্রশ্রয়ে থাকা অপরাধীরা এলাকা ছেড়ে পালিয়ে বর্তমানে আত্মগোপনে রয়েছে। এদিকে গত বুধবার গভীর রাতে দুর্বৃত্তদের হামলায় গুরুতর আহত সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আর্থপেডিক্স বিভাগে চিকিৎসাধীন কানাইঘাট বাজারের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ডান হাতের কব্জি বিচ্ছিহ্ন হয়ে যাওয়া নজরুল ইসলাম রাজু হত্যার চেষ্টা মামলার ২নং আসামী এলাকার চিহ্নিত অপরাধী আসামী জুবের আহমদ (২৮) কে গ্রেফতার করেছে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা।
গত রবিবার গভীর রাতে সিলেটের বিশেষ শাখার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুজ্ঞান চাকমা, উত্তর সার্কেলের এএসপি ধীরেন্দ্র মহাপাত্র ও কানাইঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ হুমায়ূন কবিরের নেতৃত্বে যৌথ বাহীনির অভিযান পরিচালনা করে জুবের আহমদকে পৌর এলাকার বিষ্ণুপুর করচটি গ্রাম থেকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারকৃত জুবের আহমদের বাড়ী পৌরসভার দুর্লভপুর গ্রামে, তার পিতার নাম মৃত সিরাজ উদ্দিন @ সিরাই। উল্লেখ্য, গত বুধবার গভীর রাতে কানাইঘাট বাজারের ব্যবসায়ী নজরুল ইসলাম রাজু ও ব্যবসায়ী মিজানুর রহমান, ইলেক্ট্রিশিয়ান বদরুল ইসলামকে কানাইঘাট-সিলেট বোরহান উদ্দিন সড়কের বীরদল খালমোরা নামক স্থানে মোটর সাইকেলের গতিরোধ করে গ্রেফতারকৃত জুবায়ের আহমদ সহ অন্যান্য আসামীরা অতর্কিত ভাবে হামলা চালিয়ে গুরুতর জখম করে। এদের মধ্যে জুবের ও রহমত ব্যবসায়ী নজরুল ইসলাম রাজুর ডান হাতের কব্জি কেটে নিয়ে যায়। অদ্যবধি নজরুল ইসলাম রাজুর কেটে নেওয়া ডান হাতের কব্জি পুলিশ উদ্ধার করতে পারে নি।
সিলেট উত্তর সার্কেলের এএসপি ধীরেন্দ্র মহাপাত্র স্থানীয় সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, কানাইঘাট উপজেলাকে সন্ত্রাস ও অপরাধমুক্ত করার জন্য অপরাধীদের গ্রেফতার করতে যৌথ অভিযান অব্যাহত থাকবে। রাজনৈতিক আশ্রয় প্রশ্রয়ে যারা সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের নেতৃত্ব দিচ্ছে, চোরাগুপ্তা হামলা চালিয়ে আইন শৃঙ্খলার অবনতির চেষ্টা করছে তাদের নামের তালিকা আমাদের হাতে রয়েছে। যতক্ষণ পর্যন্ত এদের গ্রেফতার করা না হবে ততক্ষণ পর্যন্ত যৌথ বাহিনীর অভিযান চলবে। ব্যবসায়ী নজরুল ইসলাম রাজু সহ অপর দুইজনকে যারা রাতের আধারে হামলা চালিয়ে গুরুতর আহত করেছে তাদের মধ্যে হারুন বাহিনীর সেকেন্ড ইন কমান্ড এলাকার চিহ্নিত অপরাধী, সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের নেতৃত্বদানকারী ২টি মামলার আসামী জুবের আহমদকে গত রবিবার রাতে আমরা গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়েছি। তার স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দির সূত্র ধরে অন্যান্য আসামীদের আইন শৃঙ্খলার বাহিনীর সদস্যরা গ্রেফতার করার জন্য বিভিন্ন স্থানে চিরুনী অভিযান চালাচ্ছে। এলাকায় আর কোন প্রকার সন্ত্রাসী কর্মকান্ড করতে দেয়া হবে না। যারা অপরাধীদের আশ্রয় প্রশ্রয় দিবে তাদেরকেও আইনের আওতায় আনা হবে বলে এ পুলিশ কর্মকর্তা জানান।

Pin It on Pinterest

Share This

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. more information

The cookie settings on this website are set to "allow cookies" to give you the best browsing experience possible. If you continue to use this website without changing your cookie settings or you click "Accept" below then you are consenting to this.

Close