জাফলংয়ে মালিক-শ্রমিক সংঘর্ষে ইউপি চেয়ারম্যানসহ আহত ২০ : টাস্কফোর্সের অভিযান, ১৪টি বোমা মেশিন ধ্বংস

boma machineগোয়াইনঘাট প্রতিনিধিঃ সিলেটের জাফলংয়ে পিয়াইন নদী এলাকায় মহামান্য হাইকোর্টের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে অবৈধপন্থায় পাথর উত্তোলন বন্ধ করতে টাস্কফোর্সের অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে। অভিযান পরিচালনার সময় জাফলং চা-বাগানের শ্রমিকদের সাথে বোমা মেশিন সংশ্লিষ্ট মালিক-শ্রমিকদের দফায় দফায় সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানসহ অন্তত ২০ জন আহত হয়েছেন। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে এসময় পুলিশ দুই রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছুড়ে।
পরিবেশ অধিদপ্তরের সহায়তায় গোয়াইনঘাটের উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. সালাহ উদ্দিনের নেতৃত্বে মঙ্গলবার দুপুরে এই অভিযান চালানো হয়। অভিযান চলাকালীন সময় পিয়াইন নদীর তীরবর্তী জাফলং চা-বাগান এলাকায় ১৪টি বোমা মেশিনের সরঞ্জাম ধ্বংস করা হয়। এ সময় পরিবেশ অধিদপ্তর সিলেটের পরিদর্শক পারভেজ আহমেদ, পুর্ব জাফলং ইউপি চেয়ারম্যান হামিদুল হক ভুইয়া বাবুল, তামাবিল ক্যাম্প কমান্ডার সুবেদার নুর, এসআই জাকির হোসেন, ইউপি সদস্য আরব আলী, আব্দুর রহমান, সারভেন মাহালীসহ পুলিশ, বিজিবি ও আনসার ভিডিপির ৩০-৪০ জন সদস্য উপস্থিত ছিলেন।
স্থানীয় সুত্রে জানাযায়, জাফলং চা-বাগানের তীরবর্তী নদী থেকে অবৈধপন্থায় বোমা মেশিন দিয়ে পাথর উত্তোলণ বন্ধ করতে গতকাল সকাল থেকে চা-বাগানের কয়েক শতাধিক নারী-পুরুষ (চা শ্রমিক) সংঘবদ্ধ হয়ে পাথর উত্তোলণে ব্যাবহৃত বোমা মেশিনের সরঞ্জাম ধ্বংস ও চা-বাগানের জায়গায় গড়ে উঠা প্রায় ১০টি দোকানে ভাংচুর ও অগ্নি সংযোগ করে। এসময় বিক্ষুব্ধ শ্রমিকরা দুটি পেলুডারেও ভাংচুর চালায়। পূর্ব নির্ধারিত টাস্কফোর্সের প্রতিনিধি দলের সদস্যরা দুপুর ১২টায় ঘটনা স্থলে আসে। অভিযান শেষে টাস্কফোর্স টিম ঘটনাস্থল ত্যাগ করার সময় বোমা মেশিনে কর্মরত শ্রমিক ও চা-বাগানের শ্রমিকদের মধ্যে সংঘর্ষের বাধে।
সংঘর্ষে পুর্ব জাফলং ইউপি চেয়ারম্যান হামিদুল হক ভুইয়া বাবুল, বোমা মেশিন সংশ্লিষ্ট শ্রমিক হেলাল, ফয়জুল, ইয়াকুব, মনির, মফিজ, করিম, শাহনুর, সেলিম, মুসা মিয়া ও চা শ্রমিক ভুট্টো, মেঘনাথ, বাবই, অগ্নী রাণী, বেলো রাণীসহ উভয় পক্ষের অন্তত ২০জন আহত হন। এসময় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে পুলিশ দুই রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছুরে।
এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. সালাহ উদ্দিন জানান, জাফলং এর পিয়াইন নদী ও তদসংলগ্ন এলাকা থেকে অবৈধভাবে পাথর উত্তোলনের খবর পেয়ে টাস্কফোর্সের অভিযান পরিচালনা করা হয়েছে। এ সময় মহামান্য হাইকোর্টের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে অবৈধ পন্থায় পাথর উত্তোলনের কাজে ব্যবহৃত ১৪ টি বোমা মেশিনের সরঞ্জাম ধ্বংস করা হয়েছে। অভিযান শেষে চা-শ্রমিক ও বোমা মেশিনে কর্মরত শ্রমিকদের মাঝে সংঘর্ষ ঘটলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে পুলিশ দুই রাউন্ড ফাঁকা গুলি ছুড়ে।

Pin It on Pinterest

Share This

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. more information

The cookie settings on this website are set to "allow cookies" to give you the best browsing experience possible. If you continue to use this website without changing your cookie settings or you click "Accept" below then you are consenting to this.

Close