থাইল্যান্ডে আবারও লাল সবুজের পতাকা ওড়াবে সিলেটর অপু

17.-sportsসুরমা টাইমস ডেস্কঃ এবারের এশিয়ান জুনিয়র ব্যাডমিন্টন চ্যাম্পিয়ানশিপে থাইল্যান্ডের ব্যাংককে লাল সবুজের পতাকা ওড়াবে সিলেটের খায়রুল ইসলাম অপুসহ দেশের চার তরুণ ব্যাডমিন্টন তারকা। কদিন পর জমকালো অনুষ্ঠানের মাধ্যমে এশিয়ার দেশগুলোর মধ্যে অনুষ্ঠিত হবে অনুর্ধ্ব-১৯ ব্যাডমিন্টন চ্যাম্পিয়নশীপ। এ আয়োজনে আবারও স্থান করে নিয়েছে সিলেটের তরুণ ব্যাডমিন্টন তারকা খায়রুল ইসলাম অপু, ঢাকার ওয়াহিদ, মিনহাজ ও তুষার।
খেলায় অংশ নিতে সোমবার রাত ১১টার দিকে তারা হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে ব্যাংকক এয়ারওয়েজে থাইল্যান্ডের উদ্দেশ্যে যাত্রা করেন।
অনুর্ধ্ব-১৯ ব্যাডমিন্টন চ্যাম্পিয়ানশিপের টিম ম্যানেজার রাসেল কবির সুমন জানান, ‘চার জনের মধ্যে অপু সিলেটের ও বাকিরা ঢাকার বাসিন্দা। অপু এর আগের বছর অনুর্ধ্ব ১৭ চ্যাম্পিয়নশীপে বাংলাদেশের হয়ে একাই ব্যাংককের জুনিয়র চ্যাম্পিয়নশীপে অংশ গ্রহণ করে। পাঁচদিনের আন্তর্জাতিক এ টুর্নামেন্টে আজ মঙ্গলবার তারা বাংলাদেশের হয়ে মাঠে খেলতে নামবেন। এ চার তরুণ ব্যাডমিন্টনে দেশের জন্য সাফল্য বয়ে আনবেন, এমন আশাবাদ ব্যক্ত করেন সুমন।’
এদিকে, সিলেটের খায়রুল ইসলাম অপুর প্রতি ব্যাপক প্রত্যাশা সিলেট ব্যাডমিন্টন অঙ্গনের খেলোয়াড় ও ক্রীড়া সংগঠকদের। তাঁরা জানান, অল্প বয়সী অপু সল্প সময়ে বাংলাদেশ ব্যাডমিন্টন অঙ্গনে সারা জাগিয়েছেন। ব্যাট হাতে দূর্দান্ত খেলে অপু। জুনিয়রদের মধ্যে এখন অনেকটাই অপ্রতিদ্বন্দ্বি সে। অপু গত বছর এশিয়ান জুনিয়র ব্যাডমিন্টন চ্যাম্পিয়নশীপ প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশ জাতীয় টিমের হয়ে খেলেছে থাইল্যান্ডের ব্যাংককে। ১৮ বছর বয়সী অপু গত ৩ বছরে সিলেটে জেলার বিভিন্ন এলাকায় জুনিয়র ব্যাডমিন্টন প্রতিযোগীতায় অংশ গ্রহণ করে মাতিয়েছে দর্শক। একেরপর এক জয় লাভ তাকে এখন এনেছে সেরাদের তালিকায়।
Opu Badminton starসর্বশেষ কাউন্সিলর আজাদ কাপ ব্যাডমিন্টন টুর্নামেন্ট-২০১৫ প্রতিযোগিতায় অপু দ্বৈত ও এককভাবে জুনিয়রদের মধ্যে চ্যাম্পিয়ন হয়ে ফের আসে আলোচনায়। ওই টুর্নামেন্টের একক প্রতিযোগীতায় হানিফকে হারিয়ে বিজয়ী হয় সে। অনুর্ধ্ব ১৮ দ্বৈত প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়ন (ঢাকার) আইমান ইবনে জামান ও অহিদুলও হারমানতে হয় অপু জোটির কাছে।
অপু দক্ষিণ সুরমার কুচাই গ্রামের গেদা মিয়ার ছেলে ও সবুজ সিলেটের স্টাফ রিপোর্টার নুরুল হক শিপুর ছোট ভাই।
গতকাল রাতে অপু জানান, বাংলাদেশের পতাকা হাতে ও জার্সি গায়ে ২য় বারের মতো আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলতে যাচ্ছেন। এর জন্য তিনি পরিবারের সকল সদস্যদের সহযোগিতা তার ব্যাডমিন্টন কোচ সাবেক বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়ন এনাম এবং বিশিষ্ট ক্রীড়া সংগঠক সিটি কর্পোরেশনের কাউন্সিলর আজাদুর রহমান আজাদের ঐকান্তিক প্রচেষ্টা রয়েছে বলে অভিমত ব্যক্ত করেন। অপু বলেন, শুধু সিলেট নয় আমি যেন বিজয়ী হয়ে পুরো বাংলাদেশের জন্য সুনাম বয়ে আনতে পারি তাই সকলের কাছে দোয়া চাই।’
অপুর কোচ এনাম বলেন, ‘অপু আসলেও একজন মেধাবী ব্যাডমিন্টন খেলোয়াড়। আমি তার জয় কামনা করি। তার খেলায় আলাদা একটা আর্ট রয়েছে। সে ভবিষ্যত ব্যাডমিন্টন অঙ্গনের এক নক্ষত্র। ’
সিলেট সিটি কর্পোরেশনের কাউন্সিলর, ক্রীড়া সংগঠক আজাদুর রহমান আজাদ বলেন, ‘বাংলাদেশের জাতীয় দলে মফস্বল থেকে খেলা একটা বড় বিষয়। অপু অল্প বয়সে তার প্রতিভা আর পরিশ্রমে জাতীয় দলে স্থান করেছে। সে শুধু সিলেট নয়, সারা বাংলাদেশের গর্ব। সে অল্প বয়সে বাংলাদেশের অনেক প্রতিভাবান খেলোয়াদের হারিয়েছে। আমার বিশ্বাস সে বাংলাদেশের লাল সবুজের পতাকার মান রক্ষায় প্রাণান্তকর চেষ্টা করবে। তিনি বলেন, ব্যাংককে অপুর জয় হবে, সিলেটের জয় হবে, বাংলাদেশের জয় হবে বলে আমি আশা করি।’

Pin It on Pinterest

Share This

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. more information

The cookie settings on this website are set to "allow cookies" to give you the best browsing experience possible. If you continue to use this website without changing your cookie settings or you click "Accept" below then you are consenting to this.

Close