শাবি শিক্ষক সমিতির সভাপতির আহ্বানে সাড়া দেননি শিক্ষামন্ত্রী

sustসুরমা টাইমস ডেস্কঃ শিক্ষকদের একাংশের উপাচার্যবিরোধী চলমান আন্দোলনের প্রেক্ষিতে শাবিতে সৃষ্ট অচলাবস্থা নিরসনে শিক্ষামন্ত্রীকে অনুরোধ জানিয়েছিলেন শিক্ষক সমিতির সভাপতি। তবে এই আহ্বানে সাড়া না দিয়ে শিক্ষকদের সকলে বসে এই সমস্যা সমাধানের আহ্বান জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী।
মঙ্গলবার (৩০ জুন) শাবি শিক্ষক সমিতির সভাপতি ড. মো. কবির হোসেনকে প্রেরিত এক ফ্যাক্সবার্তায় এ আহ্বান জানান শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ। এর আগে গত বৃহস্পতিবার সংকট সমাধানে উদ্যোগ নেওয়ার আহ্বান জানিয়ে শিক্ষামন্ত্রীকে ফ্যাক্সবার্তা পাঠিয়েছিলেন ড. কবির।
শিক্ষামন্ত্রীর ফ্যাক্সবার্তা প্রাপ্তির কথা স্বীকার করে শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমিতির সভাপতি ড. মো. কবির হোসেন সিলেটটুডেকে বলেন, শিক্ষকরা সকলে বসে সঙ্কট সমাধানের আহ্বান জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী, কিন্তু আন্দোলনকারী শিক্ষকরা কোনো আলোচনায় আসতে চাচ্ছেন না বলেই শিক্ষক সমিতির পক্ষ থেকে আমি শিক্ষামন্ত্রীসহ সংশ্লিষ্টদের এই সঙ্কট সমাধানে উদ্যোগ নেওয়ার অনুরোধ জানিয়েছিলাম।
জানা যায়, গত বুধবার সাধারণ সভা করে শাবি শিক্ষক সমিতি। যদি শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদকসহ ১১ সদস্যের কমিটির ৭ সদস্যই এই সভাকে অবৈধ উল্লেখ করে তা বর্জন করেন।
আন্দোলনকারীদের বর্জনের মুখেই সেদিনের বৈঠকে ৪টি সিদ্ধান্ত নেয় শিক্ষক সমিতি। সিদ্ধান্তগুলোর প্রথম দুটিতে আন্দোলনকারী শিক্ষকদের আন্দোলনকারী শিক্ষকদের আন্দোলন থেকে সরে আসার আহ্বান জানানো হয়।
৩য় সিদ্ধান্তে সৃষ্ট সঙ্কট নিরসনে শিক্ষামন্ত্রী, শিক্ষা মন্ত্রণালয়, ইউজিসিসহ সংশ্লিষ্টদের উদ্যোগ নিতে অনুরোধ জানানোর সিদ্ধান্ত হয়। এবং চতুর্থত, শাহাজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ে কিছুদিন পর পর উপাচার্যবিরোধী আন্দোলন শুরু হওয়ার পেছনের কারণ খতিয়ে দেখতে সংশ্লিষ্টদের অনুরোধ জানানোর সিদ্ধান্ত হয়।
শিক্ষক সমিতির এই সভার সিদ্ধান্ত অনুসারে গত বৃহস্পতিবার শিক্ষামন্ত্রী ও ইউজিসি চেয়ারম্যানের কাছে চিঠি প্রেরণ করেন শিক্ষক সমিতির সভাপতি ড. কবির হোসেন। চিঠিতে তিনি শাবির সৃষ্ট অচলাবস্থায় নিরসন ও ঘনঘন উপাচার্যবিরোধী আন্দোলন শুরু হওয়ার কারণ খতিয়ে দেখার উ্দ্যোগ নেওয়ার অনুরোধ জানান। তবে শিক্ষক সমিতির সভাপতির এই অনুরোধে সাড়া দেননি শিক্ষামন্ত্রী।
মঙ্গলবার ড. কবির হোসনেকে প্রেরিত চিঠিতে শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেন, ‘আপনার ফ্যাক্স পেয়েছি। আমি আশাবাদী আপনারা সকলে মিলে বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল সমস্যার সমাধান করে, বিশ্ববিদ্যালয় ও শ্রদ্ধেয় শিক্ষকদের মর্যাদা অক্ষুন্ন রাখবেন। বিশ্ববিদ্যালয় ভবিষ্যতে যাতে সুষ্ঠুভাবে চলে সেইদিকে দৃষ্টি রেখে শিক্ষক সমিতি কাজ করবেন এটাই আপনাদের কাছে আমাদের প্রত্যাশা। আপনাদের সকলের প্রতি আমার শ্রদ্ধা ও অভিনন্দন।’
এ ব্যাপারে শিক্ষক সমিতির সভাপতি ড. মো. কবির হোসেন বলেন, শিক্ষামন্ত্রী সকল শিক্ষক মিলে সঙ্কট সমাধানের কথা বলেছেন। কিন্তু আন্দোলনকারী শিক্ষকরা তো কোনো আলোচনায়ই বসতে চাচ্ছেন না। স্থানীয় রাজনৈতিক নেতারাও চেষ্টা করে সফল হতে পারেননি। তাই আমরা আশা করেছিলাম সরকার থেকে এই অচলাবস্থা নিরসনে উদ্যোগ নেওয়া হবে। আমরা এখনও আশাবাদি, সরকার এ ব্যাপারে উদ্যোগ নেবে।
তিনি বলেন, শিক্ষামন্ত্রীর চিঠির অনুলিপি শাবিপ্রবির শিক্ষক সমিতির আওতাধীন সকল শিক্ষক বরাবর পাঠানো হয়েছে। সেই সাথে শিক্ষক সমিতির মাধ্যমে শাবির সংকট নিরসনে একসাথে কাজ করার জন্য শিক্ষামন্ত্রীর আহবানকে বিবেচনা করে কর্মপদ্ধতি ঠিক করার ব্যাপারে আহবান জানানো হয়েছে।
এছাড়াও শাবি শিক্ষক সমিতি আলোচনার মাধ্যমে সমস্যার সমাধান চায় উল্লেখ করে ড. মো. কবির হোসেন বলেন, আন্দোলনকারী, আন্দোলনের বাইরে থাকা সকলকেই মাথা ঠান্ডা রেখে বর্তমান পরিস্থিতি মোকাবেলায় একসাথে কাজ করে যেতে হবে।
উল্লেখ্য, শাবি উপাচার্য ড. আমিনুল হক ভুইয়াকে অযোগ্য ঘোষণা করে তার অপসারণের দাবিতে গত সপ্তাহের সোমবার থেকে আন্দোলন কর্মসূচি পালন করছেন। আওয়ামীলীগপন্থী শিক্ষকদের একাংশ মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উদ্বুদ্ধ শিক্ষক পরিষদের শিক্ষকরা।

Pin It on Pinterest

Share This

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. more information

The cookie settings on this website are set to "allow cookies" to give you the best browsing experience possible. If you continue to use this website without changing your cookie settings or you click "Accept" below then you are consenting to this.

Close