হরতাল-অবরোধের ৬৬ দিন : সিলেটে সক্রিয় ছিল তৃণমূল ছাত্রদল

IMG_20150310_173319 copyসুরমা টাইমস ডেস্কঃ ২০ দলের হরতাল-অবরোধের ৬৬ দিন অতিবাহিত হবে আজ। গতকাল হরতাল-অবরোধের ৬৫ তম দিন সিলেটে অতিবাহিত হয়েছে বিজয়ের উল্লাসে। এমন একতি সুযোগের অপেক্ষায় ছিল ছাত্রদলও। বিজয় মিছিলের সাথে সাথে অনেকটা চেষ্টা ছিল রাজপথে তাদের উপস্তিতি জানিয়ে দেয়ার । যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক থাকার পাশাপাশি নগরজুড়ে ছিল তীব্র যানজট। দিনভর ট্রাফিক পুলিশ সদস্যরা যানজট নিরসনে হিমশিম খেতে হয়েছে। অপরদিকে সব ধরণের নাশকতা এড়াতে নগরীর সবকটি গুরুত্বপূর্ণ এলাকায় পুলিশের বিশেষ নজরদারি বাড়ানোর পাশাপাশি নগরে মোতায়েন করা হয় অতিরিক্ত পুলিশ। হরতাল-অবরোধ ডাক দেয়ার পরও সিলেটে ২০ দলের কোনো কর্মসূচী লক্ষ্য করা যাচ্ছেনা। অধিকাংশ নেতারাই রয়েছেন রাজপথের রাজনীতি থেকে দূরে। অবশ্য পাড়া মহল্লায় ছাত্রদল মিছিল-সমাবেশ করলেও নেতাকর্মীরা রয়েছেন বিচ্ছিন্ন। হরতাল-অবরোধ কর্মসূচির গত ৬৫ দিনে তারা একত্রে কোনো মিছিল-সমাবেশ করতে পারেননি। একটু ব্যাতিক্রম ছিল গতকাল। তবে ছাত্রদল বিচ্ছিন্নভাবে আন্দোলনে সক্রিয় থাকলেও দেখা গেছে অন্য কৌশল। বিজয় মিছিলের উপলক্ষ্যে তারা সরকার বিরোধী মিছিলও করেছে।
জেলা ও মহানগরের ব্যানারে প্রায়ই পৃথক এলাকায় একাধিক গ্রুপ মিছিল সমাবেশ করে আসছে। গতকালও হরতাল সমর্থনে সিলেটের বিভিন্ন পাড়া-মহল্লায় পৃথক মিছিল করে ছাত্রদল।
সকাল ১১টায় সিলেট জেলা ও মহানগর ছাত্রদলের উদ্যোগে নগরীর জেলরোড এলাকায় একটি মিছিল বের করা হয়। চলমান হরতাল-অবরোধের সমর্থনে ও সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরীর নিঃশর্ত মুক্তি এবং সিলেট মহানগর ছাত্রদল সভাপতি নুরুল আলম সিদ্দিকি খালেদ, জেলা ছাত্রদল সভাপতি সাঈদ আহমদ, মহানগর ছাত্রদলের সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুর রকিব চৌধুরীর উপর থেকে মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে এ মিছিল করা হয়। মিছিলটি নগরীর জেলরোড পয়েন্ট থেকে শুরু হয়ে ধোপাদিঘীর পার পয়েন্টে এসে শেষ হয়।
মহানগর ছাত্রদল নেতা রজব আহমদ ও জেলা ছাত্রদল নেতা মো. এলিন শেখ-এর নেতৃত্বে মিছিলে উপস্থিত ছিলেন আবুল কালাম, মুক্তার হোসেন, রাজন ভট্টাচার্য, শোভন রায় চৌধুরী, আরিফুর রহমান, এমরান আহমদ, ইসমাইল হোসেন রনি, শামীম ইসলাম, হেলাল আহমদ, মুনির আহমদ, এনাতুল আহমদ, কামিল আহমদ, ফয়েজ আহমদ, কামরুল ইসলাম, ইমতিয়াজ হোসেন মাহমুদ, আবদুল্লাহ মাসুদ রকি, নাজু আহমদ, লিটন, গোলাম শামীম, অপি, সিফাত, শহিদুল, শাওন, রানা, শামীম, সার্জন, সুমন, আলী আহমদ প্রমুখ।
দুপুরে শাহী ঈদগায় ছাত্রদলের মিছিলের ব্যানারে আর একটি গ্রুপ মিছিল করে। মিছিলে উপস্থিত ছিলেন, মহানগর ছাত্রদল নেতা বেলায়ত হুসেন মোহন, আবু হানিফ, সুহেল পুরকাস্ত, জেলা ছাত্রদল নেতা অলি চৌধুরী, লুৎফুর রহমান, রুবেল ইসলাম, মিসলু আহমদ রাজ, শেখ ওয়াহিজ্জামান সোহান, সাইদ হুসেন, নাজমুল ইসলাম, রাজন আসচারজ, জুয়েল আহমদ নিপু, ফরহাদ আহমদ হৃদয়, ইমদাদুল হক রাহাত, সুফিয়ান আহমদ, সাব্বির আহমদ প্রমুখ।
অবরোধ ও হরতালের সর্মথনে সিলেটে ছাত্রদলের ব্যানারে আর একটি মিছিল করা হয়। নগরীর জিন্দাবাজার এলাকায় সিলেট জেলা ও মহানগর ছাত্রদল মিছিল করেছে। মিছিলে উপস্থিত ছিলেন সিলেট জেলা ছাত্রদলের সহ-সাধারণ সম্পাদক নাজিম উদ্দিন পান্না, সদর উত্তর থানা ছাত্রদলের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুর রউফ, জাহাঙ্গীর আলম, জেলা ছাত্রদল নেতা আলী আকবর রাজন, মহানগর ছাত্রদল নেতা মিজানুর রহমান মিজান, জহিরুল ইসলাম, জাবেদুর রহমান জাবেদ, মহিনুল ইসলাম পাপ্পু, আফজল হোসেন, মুক্তার আহমদ মুক্তার, তোয়ায়েল আহমদ, রাফি আহমদ, রাজু আহমদ, সজিব আহমদ প্রমুখ।
এছাড়া, পুরোদনই নগরী ও নগরীর বাহিরে যানবাহন চলাচল করেছে। কদমতলী কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনাল ও রেলওয়ে স্টেশন থেকে সথা সময়ে ছেড়ে গেছে ট্রেন ও দূরপাল্লার যানবাহন।

Pin It on Pinterest

Share This

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. more information

The cookie settings on this website are set to "allow cookies" to give you the best browsing experience possible. If you continue to use this website without changing your cookie settings or you click "Accept" below then you are consenting to this.

Close