আদু ভাই ও অছাত্র দিয়ে বিশ্বনাথে ছাত্রদলের কমিটি : পদবঞ্চিতদের বিএনপির কার্যালয়ে হামলা : ঝাড়ু মিছিল

unnamedবিশ্বনাথ প্রতিনিধিঃ বিশ্বনাথে উপজেলা ছাত্রদলের কমিটি গঠন নিয়ে দন্ধ শুরু হয়েছে। সোমবার রাতে আহবায়ক কমিটি ঘোষনার পরই পদবঞ্চিত নেতারা কোন অবস্থাতেই ওই কমিটি মেনে নিতে পারেনি। আদু ভাই ও অছাত্র দিয়ে বিশ্বনাথ উপজেলা ছাত্রদলের আহবায়ক কমিটি গঠন করায় পকৃত ছাত্ররা দলে স্থান না পাওয়ায় ক্ষোভ বৃদ্ধি পায়। গত সোমবার রাত সাড়ে ৯টায় সাবেক সাধারণ সম্পাদক মতিউর রহমান সুমন কে আহবায়ক করে আরোও ৩০ জনকে সদস্য রেখে উপজেলা ছাত্রদলের আহবায়ক কমিটির অনুমোদন দেন জেলা ছাত্রদলের সভাপতি সাঈদ আহমদ ও সাধারণ সম্পাদক রাহাত চৌধুরী মুন্না।
নব-গঠিত আহবায়ক কমিটির অধিকাংশ নেতার ছাত্রত্ব নেই বলে অনেকেই দাবি করেছেন। অনেকই রয়েছেন আদু ভাই এমন অভিযোগ করেন পদবঞ্চিত নেতারা। ওই কমিটি মানতে নারাজ তারা। এদিকে, কমিটির অনুমোদন পাওয়ার পর পদবঞ্চিত ছাত্র নেতারা সোমবার রাত ১১টায় উপজেলা সদরের বিএনপির কার্যালয়ে ইট পাটকেল নিক্ষোপ করে। এসময় তারা বিএনপির শীর্ষ কয়েকজন নেতার নাম উল্লেখ করে গালিগালাজ করে বলে বাজারের ব্যবসায়ীরা জানান। এনিয়ে ছাত্রদলের দুটি গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের আশংকা করছেন নেতৃবৃন্দ।
খোঁজ নিয়ে জানাযায়, উপজেলার নব-গঠিত ছাত্রদলের আহবায়ক কমিটির অনেকের ছাত্রত্ব নেই। কমিটিতে স্থান পাওয়া একজন প্রবাসে ও বেশ কয়েকজন আদু ভাই রয়েছেন। ফলে কমিটিতে স্থান না পাওয়া ত্যাগী নেতাকর্মীরা কোন অবস্থাতেই কমিটি মেনে নিতে পারছেন না।
তৃণমূল নেতাকর্মীরা জানান, সাবেক সংসদ সদস্য, বিএনপি জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য এম. ইলিয়াস আলী ‘নিখোঁজের’ পর যারা আন্দোলন সংগ্রাম করেছিল তাদের কমিটিতে মূল্যায়ন করা হয়নি। যারা ইলিয়াস ইস্যু আন্দোলনে ৭/৮ মামলার আসামি হয়ে কারাভোগ করেছেন ও হামলার স্বীকার হয়েছেন তাদের বাদ দিয়ে কমিটি গঠিত হয়েছে। এটি ছাত্রদলের কমিটি নয়, পকেট কমিটি গঠন করা হয়েছে বলে তারা মনে করেন।
জানাগেছে, বিএনপি নেতা ইলিয়াস আলী ‘নিখোঁজের’ প্রায় ৩২ মাস পর ছাত্রদলের কমিটি গঠনের প্রক্রিয়া শুরু করেন ইলিয়াসপতœী তাহসিনা রুশদীর লুনা। নতুন কমিটিতে স্থান করে নিতে কয়েকটি ভাগে বিভক্ত হয়ে পড়েছিল ছাত্রদল নেতা-কর্মীরা। ছাত্রদল নেতা মতিউর রহমান সুমন, শাহ আমিরউদ্দিন ও খালেদ আহমদের মধ্যে গ্রুপ সৃষ্টি হয়। পৃথকভাবে কমিটি ঘোষনার পূর্ব পর্যন্ত প্রতি রাতেই উপজেলা সদরে আলাদা আলাদা ভাবে মহড়া দিয়ে আসছেন তারা। ইলিয়াস আলীর সন্ধান দাবিতে তারা আলাদাভাবে মোটরসাইকেল শোভাযাত্রা ও মিছিল করে আসছিল। ইতিমধ্যে উপজেলা বিএনপির নব-গঠিত বিএনপির নেতৃবৃন্দ কে পৃথকভাবে ছাত্রদল ফুলেল শুভেচ্ছা জানিয়েছে।
দলীয় সূত্রে জানাগেছে, ২০১০ সালের ১৪ অক্টোবর ‘নিখোঁজ’ ইলিয়াস আলীর উপস্থিতিতে ঘোষণা করা হয় উপজেলা ছাত্রদলের আহ্বায়ক কমিটি। চলিত বছরে ২৩ নভেম্বর সে কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করে জেলা ছাত্রদল।
এ ব্যাপারে উপজেলা বিএনপির সভাপতি জালালউদ্দিন সাংবাদিকদের বলেন, ছাত্রদলের কমিটির ব্যাপারে তিনি অবহিত নন। তবে বিএনপি অফিসে হামলার বিষয়টি তিনি শুনেছেন বলে জানান।
জেলা ছাত্রদলের সভাপতি সাঈদ আহমদ বলেন, কমিটিতে ত্যাগী নেতাকর্মীদের মূল্যায়ন করা হয়েছে। যারা দলের বিরুদ্ধে কাজ করবে তাদের বিরুদ্ধে দলীয়ভাবে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

পদবঞ্চিত ছাত্রদল নেতাদের ঝাড়– মিছিল

বিশ্বনাথে ছাত্রদলের নব-গঠিত কমিটি কে প্রত্যাখান করে ও ‘নিখোজ’ বিএনপি নেতা এম. ইলিয়াস আলীর সন্ধান দাবিতে পদবঞ্চিত ছাত্রদল নেতারা ঝাড়– মিছিল বের করে। গতকাল মঙ্গলবার বেলা ২টায় উপজেলা সদরের অটোরিকশা ষ্ট্যান্ডে সামন থেকে মিছিলটি বের হয়ে প্রধান সড়কগুলো প্রদিক্ষণ শেষে আবারও একই স্থানে গিয়ে পথ সভায় মিলিত হয়। তবে ওই মিছিলে পদপ্রাপ্ত অনেক নেতা উপস্থিত ছিলেন।
ছাত্রদল নেতা শাহ আমিরউদ্দিনের সভাপতিত্বে ও আমির আলীর পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন সাবেক যুগ্ম-আহবায়ক আলাল আহমদ, নাজিমউদ্দিন, আমিরউদ্দিন, রাজু আহমদ, শামছুদ্দিন, নিজামুল ইসলাম, ছাত্রদল নেতা জিল্লুর রহমান জিলু, আখতার হোসেন রানা, শাহজাহান, আবদুস শহিদ, আজাদুর রহমান আজাদ, মুহিবউদ্দিন, তারেক আহমদ, শাহেল সামাদ, শেখ রাজন, শাহ ইসলাম, সামাদ সরকার, আলী হোসেন, মিজান, এনামুল, মুমিন, সুমন, হিরা, আলমগীর, সোহাগ, রহিম, শাহ লিলু, সুনু, নাজিমউদ্দিন, ছালিক, শিমুল, খালেদ, হেলাল, ওয়াসিম, জামাল, রাহেল, এনাম, শামিম, আবদুল কাইয়ুম, বাবলু, আজাদ, আলী হোসেন, হেকিম, মামুন, ফয়ছল, শাহাবউদ্দিন, জাহেদ, রুকেল, ফরিদ, শিপন, শামছুল, নুনু, শামিম, সাহেল আহমদ, চুরাব, আছমত, কামাল, সুহেল আহমদ, নেছার, অজয়, আজিজুল, আঙুর, জুবায়ের, কলেজ ছাত্রদল নেতা আলম খান, শাহ নিজাম, আবু তাহের, শামছুল ইসলাম, হৃদয়, রাসেল, আখতার হোসেন আখতার, খোকন, এমদাদ, রবিন, মজনু, সাদেক, শামিম, শাহজাহান, জসিম, সাঈম, এমরান, মাসুম, আজমত প্রমূখ।
সভায় বক্তারা বলেন, ইলিয়াস আলী ‘নিখোঁজের’ পর যারা হামলা-মামলা-নির্যাতিত হয়েছেন তাদের বাদ দিয়ে পকেট কমিটি গঠন করা হয়েছে। যাদের আগামি দিনে সরকার পতন ও ইলিয়াস নিখোঁজ সন্ধান আন্দোলনে যাদের পাওয়া যাবে তাদের দিয়ে কমিটি গঠন করতে হবে।
প্রসঙ্গত,সোমবার রাতে বিশ্বনাথ উপজেলা ছাত্রদলের ৩১ সদস্য বিশিষ্ট কমিটির অনুমোদন করেন জেলা ছাত্রদলের সভাপতি সাঈদ আহমদ ও সাধারণ সম্পাদক রাহাত চৌধুরী মুন্না।

Pin It on Pinterest

Share This

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. more information

The cookie settings on this website are set to "allow cookies" to give you the best browsing experience possible. If you continue to use this website without changing your cookie settings or you click "Accept" below then you are consenting to this.

Close