নিশা দেশাই ও ড্যান মজিনাকে কটুক্তির প্রতিবাদে ওয়াশিংটনে বাংলাদেশীদের বিক্ষোভ

ওয়াশিংটনে স্টেট ডিপার্টমেন্টের সামনে আমেরিকান বাংলাদেশীদের বিক্ষোভ। ছবি এনা।

ওয়াশিংটনে স্টেট ডিপার্টমেন্টের সামনে আমেরিকান বাংলাদেশীদের বিক্ষোভ। ছবি এনা।

ওয়াশিংটন ডিসি থেকে এনাঃ যুক্তরাষ্ট্রের সহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী নিশা দেশাই বিসওয়াল ও ঢাকাস্থ মার্কিন রাষ্ট্রদূত ড্যান মজিনাকে কাজের মেয়ে কটুক্তি করায় বাংলাদেশের স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের সাধারY সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের পদত্যাগের দাবিতে গত 22 ডিসেম্বর সোমবার বিকেলে ওয়াশিংটন ডিসির ষ্টেট ডিপার্টমেন্টের সামনে প্রতিবাদ ও বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে বাংলাদেশীরা। যুক্তরাষ্ট্রস্থ বাংলাদেশি আমেরিকান সিটিজেনস ফোরাম আয়োজিত এ প্রতিবাদ সমাবেশে সংগঠনের নেতা-কর্মিসহ যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন অঙ্গরাজ্যের বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতা-কর্মিরা অংশগ্রহY করেন।
অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, বিএনপি কেন্দ্রিয় কমিটির যুগ্ম মহাসচিব ব্যারিষ্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন ও বিএনপি কেন্দ্রিয় কমিটির আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক মাহিদুর রহমান।
বিক্ষোভ সমাবেশে ব্যারিষ্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেন, বর্তমান সরকারের মন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম যুক্তরাষ্ট্রের সহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী নিশা দেশাই বিসওয়াল ও ঢাকাস্থ মার্কিন রাষ্ট্রদূত ড্যান মজিনা সম্পর্কে যে কটুক্তি করেছেন তা একেবারের নিন্দনীয়। এর ফলে যুক্তরাষ্ট্রের সাথে বাংলাদেশের যে সুসস্পর্ক অব্যাহত ছিল তা অচিরেই নষ্ট হয়ে যাবে। বাংলাদেশের একজন মন্ত্রী যুক্তরাষ্ট্রের মন্ত্রীদের ব্যাপারে এ ধরনের ন্যাক্কারজনক কথা সাহস পায় কোথা থেকে। তিনি সৈয়দ আশরাফুলের কটুক্তি মুলক বক্তব্যের সঠিক বিচারসহ অচিরের পদত্যাগ দাবি করেন। তিনি আরও বলেন, বর্তমান সরকার অবৈধ সরকার। গত ৫ জানুয়ারি যে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে তাতে বাংলাদেশের মানুষের কোন অংশগ্রহন ছিল না। শুধু লোক দেখানো নির্বাচন। বহির্বিশ্বে এ নির্বাচনের কোন গ্রহনযোগ্যতা নেই। বিএনপি কেন্দ্রিয় কমিটির আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক মাহিদুর রহমান বলেন, সৈয়দ আশাফুলের আশালীন বক্তব্যে যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসরত বাংলাদেশিরা লজ্জিত হয়েছে। অপমানিত হয়েছে। এতে করে প্রবাসী বাংলাদেশিরা ছোট হয়েছে আমেরিনকানদের কাছে। তিনিও সৈয়দ আশরাফুলের দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তিসহ পদত্যাগ দাবি করেন। সমাবেশ শেষে যুক্তরাষ্ট্রস্থ বাংলাদেশি আমেরিকান সিটিজেনস ফোরামের পক্ষ থেকে জিল্লুর রহমান জিল্লু ও শরাফত হোসেন বাবু ষ্টেট ডিপার্টমেন্টের কর্মকর্তাদের কাছে একটি স্মারকলিপি প্রদান করেন। একই সাথে কর্মকর্তাদের সাথে বাংলাদেশের নানা বিষয়ে নিয়ে আলোচনা হয়। এ সময় ষ্টেট ডিপার্টেমেন্টের কর্মকর্তারা বলেন, বাংলাদেশের সব বিষয়ে তাঁরা অবগত রয়েছেন। অতি শিঘ্রই এ বিষয়গুলো খতিয়ে দেখবেন বলে তাঁরা আশ্বাস দেন। কেন্দ্রিয় বিএনপির দুই শীর্ষস্থানীয় নেতাও এ সময় উপস্থিত ছিলেন।
সমাবেশে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন বিএনপি কেন্দ্রিয় আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক মাহিদুর রহমান, বাংলাদেশি আমেরিকান সিটিজেনস ফোরাম ও বিএনপি নেতা জিল্লুর রহমান জিল্লু ও শরাফত হোসেন বাবু, বিএনপি নেতা জসিম উদ্দিন ভুঁইয়া, আবু সাঈদ আহমদ, এম এ খালেক আকন্দ,সারোয়ার খান বাবু,হাজী মোহাম্মদ নুরুল ইসলাম ও বাংলাদেশি আমেরিকান সিটিজেনস ফোরামের মিজানুর চৌধুরী প্রমুখ। সমাবেশে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মোহাম্মদ উল্লাহ মামুন, হেলাল উদ্দিন, কাজী শাখাওয়াত হোসেন আজম, এবাদ চৌধুরী, গোলাম ফারুক শাহীন, শাহ মোজাম্মেল হক নান্টু, সারোয়ার খান বাবু, আমানত হোসেন আমান, বিলাল আহমেদ চৌধুরী, মোশারফ হোসেন সবুজ, সাবেক ভিপি জসিম উদ্দিন, ডেইজি আহমেদ, মোহাম্মদ আলী রাজা। আনিসুর রহমান, হুমায়ুন কবির, জিয়াউল হক মিশন, সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী, শহীদুল ইসলাম আঁকন, তোফায়েল আহমেদ, লিয়াকত আলী, মোহাম্মদ নাছির ও দুলু মিয়া প্রমুখ। মুশলধারে বৃষ্টি উপেক্ষা করে উক্ত বিক্ষোভ সমাবেশে বাংলাদেশি আমেরিকান সিটিজেনস ফোরামের আহবানে বিভিন্ন অঙ্গরাজ্যর নেতা-কর্মিরা অংশ নেয়

Pin It on Pinterest

Share This

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. more information

The cookie settings on this website are set to "allow cookies" to give you the best browsing experience possible. If you continue to use this website without changing your cookie settings or you click "Accept" below then you are consenting to this.

Close