১১ নভেম্বর থেকে ফের গণপরিবহণ ধর্মঘট : নির্ধারিত ভাড়ায় অটোরিক্সা চলবে

CNG_editedসুরমা টাইমস ডেস্কঃ সাত দফা দাবিতে ১১ নভেম্বর থেকে আবারো অনির্দিষ্টকালের জন্য ধর্মঘট আহবান করেছে সিলেট বিভাগ সড়ক পরিবহন মালিক-শ্রমিক সংগ্রাম পরিষদ।
শনিবার নগরীর একটি অভিজাত হোটেলে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ ঘোষণা দেন কমিটির নেতারা। দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত ওই দিন ভোর ৬টা থেকে বিভাগের সর্বত্র অনির্দিষ্টকালের জন্য ধর্মঘট পালনের আহবান জানিয়েছেন পরিবহন মালিক-শ্রমিক নেতারা।
লিখিত বক্তব্যে বলা হয়-সাত দফা দাবিতে ২৭ অক্টোবর বিভাগীয় কমিশনারের কাছে স্মারকলিপি দিয়ে দেখা করলেও কোনো সদোত্তর মিলেনি। এ নিয়ে প্রশাসনের সাথে বৈঠকের পর ৫ নভেম্বর পর্যন্ত সময় বেধে দেওয়া হয়। এই সময়ের মধ্যে দাবি আদায় না হলে ৬ নভেম্বর থেকে ধর্মঘটে যাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু ওই দিন একটি রাজনৈতিক দলের হরতাল থাকার কারণে কর্মসূচী পিছিয়ে নেওয়া হয়। যে কারণে আমাদের দাবি আদায়ে আমরা কঠোর অবস্থানে যেতে বাধ্য হয়েছি।
সংগ্রাম কমিটির সাত দফা দাবিগুলো হচ্ছে-ঢালাওভাবে সিএনজি ফোরস্ট্রোক (অটোরিকসা) ও ইমা-লেগুনার নতুন রোড পারমিট ইস্যু এবং অবৈধ ইমা, লেগুনা ও ফোরস্ট্রোক চলাচল বন্ধ, সামনের সিটে যাত্রী না বসিয়ে বিধি অনুযায়ী সিলেটে চলাচলরত ফোরস্ট্রোক সমূহে নির্ধারিত মাত্রায় যাত্রী পরিবহন, গ্রিলের বেষ্টনি দিয়ে প্রতিটি ফোরস্ট্রোক চালকের নিরাপত্তা বিধান, উচ্চ আদালতের নির্দেশ অনুযায়ী মহাসড়কে ত্রি-হুইলার এবং নছিমন, করিমুন, সেলু ইঞ্জিনচালিত ভটভটি ও ব্যাটারি চালিত ইজিবাইক ইত্যাদি অবৈধ গাড়ি চলাচল বন্ধ, বেআইনীভাবে পরিবহন মালিক-শ্রমিকদের Bus Malikউপর পুলিশি নির্যাতন ও গাড়ি রিক্যুইজিশনের নামে অহেতুক হয়রানি বন্ধ করা।
এদিকে কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির জরুরী সভায় জনদুর্ভোগ লাঘব এবং সামাজিক দায়বোধের প্রতি সম্মান দেখিয়ে আগামী ১১ নভেম্বর থেকে নির্ধারিত ভাড়ায় অটোরিক্সা শ্রমিক ইউনিয়নভূক্ত সদস্যদের গাড়ি চলাচলের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। গণমানুষের সেবা প্রদানের লক্ষে এ ব্যাপারে অনাকাঙ্খিত ঘটনা এড়াতে জেলা প্রশাসন ও পুলিশ বিভাগসহ জনসাধারণের সহযোগিতা কামনা করা হয়েছে।
সিলেট জেলা অটোরিক্সা শ্রমিক ইউনিয়ন (রেজিঃ নং-৭০৭) এর নগরীর স্টেশন রোডস্থ প্রধান কার্যালয়ে রোববার বিকেলে ইউনিয়নের কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির এক জরুরী সভায় এ সিদ্ধান্ত হয়।
কেন্দ্রীয় সভাপতি মোহাম্মদ জাকারিয়ার সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক মো. আজাদ মিয়ার পরিচালনায় এতে বক্তব্য রাখেন কার্যকরী সভাপতি সুন্দর আলী খান, সহ-সভাপতি মানিক খান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জিলু মিয়া, অর্থ সম্পাদক শাহাব উদ্দিন, দফতর সম্পাদক ইকবাল আহমদ, প্রচার সম্পাদক খছরু মিয়া, কল্যাণ সম্পাদক আব্দুল আহাদ, নির্বাহী সদস্য মাশুক মিয়া, মামুনুর রশীদ, কয়ছর আহমদ, ছুরুক মিয়া, আনছার মিয়া, আজব আলী, আনোয়ার হোসেন, জাকারিয়া আহমদ টিপু প্রমুখ।

Pin It on Pinterest

Share This

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. more information

The cookie settings on this website are set to "allow cookies" to give you the best browsing experience possible. If you continue to use this website without changing your cookie settings or you click "Accept" below then you are consenting to this.

Close