তাহিরপুরে বিএনপির ৪ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে থানায় চাঁদাবাদীর মামলা

এনজিও প্রতিনিধির নিকট ২ লাখ টাকা চাঁদাদাবী

জামালগঞ্জপ্রতিনিধি: সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলার যুবদল ও ছাত্রদলের ৪ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে থানায় চাঁদবাজির মামলা দায়ের করা হয়েছে। এনজিও প্রতিনিধির নিকট ২ লাখ টাকা চাঁদাদাবী ও ব্যাংকের ভেতর ডুকে মারধর ও প্রাণনাশের হুমকির অভিযোগে রোববার রাতে থানায় মামলাটি দায়ের করা হয়।
পুলিশ সুত্রে জানা যায়, মামলার অভিযুক্ত আসামীরা হল, উপজেলা যুবদলের সদস্য উজান তাহিরপুর গ্রামের বাবরুল হাসান বাবলু , একই গ্রামের উপজেলা ছাত্রদলের সহ-সভাপতি সাইদুল কিবরিয়া , উপজেলা ছাত্রদলের অপর সহ-সভাপতি মধ্য তাহিরপুর গ্রামের তরিকুল ইসলাম শিপুল , উপজেলা ছাত্রদলের যুগ্ন সম্পাদক একই গ্রামের রিংকু রায়।
মামলার এজাহার সুত্রে জানা যায়, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রনালয় কতৃক পরিচালিত রিচিং আউট অব স্কুল চিলড্রেন (রক্স ফেইজ-২)এর আওতায় ২০১৪ সালে তাহিরপুরে ১২৬টি আনন্দ স্কুল প্রতিষ্ঠা করা হয়। প্রতিটি স্কুলে একজন করে শিক্ষক ও একজন করে শিক্ষিকা নিয়োগ প্রদান করা হয়। স্কুল প্রতিষ্ঠার পর থেকেই আনন্দ স্কুলের তাহিরপুর উপজেলার ট্রেনিং কো-অর্ডিনেটর মো. মোস্তাক আহমদের নিকট যুবদলের সদস্য বাবরুল হাসান বাবরুলের নেতৃত্বে একটি চক্র দ্বীর্ঘ দিন থেকেই বহুবার ২ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে আসছে। এমনকি মোবাইল ফোনের মাধ্যমে অসংখ্যার দাবীকৃত চাঁদা প্রদানের জন্য ট্রেনিং কো-অর্ডিনেটরকে হুমকি ধামকি দেয়া হয়েছে। গত ২৪ সেপ্টেম্বর বুধবার তাহিরপুর সোনালী ব্যাংক শাখা থেকে বেশ কিছু স্কুলের শিক্ষক ও শিক্ষিকাগণ তাদের বেতন ও ছাত্র/ছাত্রীদের শিক্ষা উপকরণ সহ আনুষাঙ্গিক বরাদ্দের টাকা উক্তোলন করছিলেন। ট্রেনিং কো-অর্ডিনেটর এ সময় ব্যাংকেই অবস্থান করছিলেন। ঐ দিন যুবদলের সদস্য বাবলু মোবাইল ফোনে কো-অর্ডিনেটরকে ব্যাংকের বাহিরে আসার জন্য নির্দেশ দিতে থাকে। ভয়ে কো-অর্ডিনেটর ব্যাংক থেকে বের না হওয়ায় বেলা সাড়ে ৩টার দিকে বাবলুর নেতৃত্বে তার অপর সহযোগীরা সংঘবদ্ধ হয়ে ব্যাংকের ভেতর প্রবেশ করে ক্ষিপ্ত হয়ে ব্যাংকের গ্রাহক কর্মকর্তা-কর্মচারী ও শিক্ষক,শিক্ষিকাগণের সামনে প্রকাশ্যে কো-অর্ডিনেটরকে বেধরক ভাবে মারধর করে । ব্যাংক থেকে বের হয়ে ্এসে বাবলু পুন:রায় ঐ কো-অর্ডিনেটরকে ব্যাংকের বাহিরে আসলে প্রাণনাশের হুমকি প্রদান করে। খবর পেয়ে ব্যাংকে থানা পুলিশ পৌছার পর পুলিশী সহায়তায় মোস্তাক আহমদ ব্যাংক থেকে বের হয়ে নিরাপক্তাজনিত কারনে সন্ধায় তাহিরপুর থেকে পার্শ্ববর্তী বিশ্বম্ভরপুর উপজেলায় চলে আসেন।এ ঘটনা জানাজানির পর গোটা উপজেলায় ২০/২৫টি এনজিওর কর্মকর্তা-কর্মচারীদের মধ্যে আতংক ছড়িয়ে পড়ে। বেআইনি ভাবে ব্যাংকে প্রবেশ করে চাঁদাদাবী, মারধর ও প্রাণনাশের হুমকি প্রদানের অভিযোগ এনে ঘটনার পরদিন বৃহ:বার মোস্তাক আহমদ নিজেই বাদী হয়ে যুবদল সদস্য বাবলু ও তার সহযোগী সহ ৪ জনের বিরুদ্ধে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগের প্রাথমিক তদন্ত শেষে রোববার রাত সাড়ে ৯টায় থানায় মামলাটি ডায়রীভুক্ত করা।
পুলিশ সুপার মো. হারুন অর রশীদ মামলা দায়েরের বিষয়টি গতকাল যুগান্তরকে নিশ্চিত করে জানান, অভিযুক্তরা যতবড় প্রভাবশালী ব্যাক্তিই হউক না কেন তাদেরকে দ্রুত গ্রেফতার করে আইনের আওতায় নিয়ে আসা হবে।

Pin It on Pinterest

Share This

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. more information

The cookie settings on this website are set to "allow cookies" to give you the best browsing experience possible. If you continue to use this website without changing your cookie settings or you click "Accept" below then you are consenting to this.

Close