রানা প্লাজায় ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য জার্মান ডেভেলপমেন্ট কোঅপারেশনের আয় বৃদ্ধিমূলক কাজের সুবিধা সৃষ্টির উদ্যোগ

Mr von Weyhe German Embassy Tarango Collectionজার্মান ডেভেলপমেন্ট কোঅপারেশন, জিআইজেড-এর মাধ্যমে এবং তরঙ্গ-এর সহায়তায় তৈরি করেছে নতুন ধরণের ব্যাগের কালেকশন, যা পুর্নব্যবহৃত সিমেন্টের ব্যাগ ও পাটের কাপড় দিয়ে তৈরি ও দেশী ও বিদেশী উভয় বাজারের জন্য প্রযোজ্য। ঢাকাস্থ জার্মান ক্লাব প্রাঙ্গনে আয়োজিত একটি মেলায় এই হস্তশিল্পের প্রদর্শনী হয়েছে আজ ১৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৪ তারিখে।
যে সব সুবিধা বঞ্চিত নারী শ্রমিক প্রাতিষ্ঠানিকভাবে তৈরি পোশাক শিল্পে কাজ করতে পারছেন না, তাঁদের ‘ব্যবসায়িক উদ্যোগ’ দক্ষতার উন্নয়ন ঘটাতে বাংলাদেশ ও জার্মান সরকারের যৌথ প্রকল্প “প্রোমোশন অফ সোশাল অ্যান্ড এনভায়রনমেন্টাল স্ট্যান্ডার্ডস ইন দা ইন্ডাস্ট্রিজ” (পিএসইএস)- এর সাথে তরঙ্গ কাজ করে আসছে। এই প্রকল্পটি জোর দিয়েছে রানা প্লাজা ভবন ধ্বসে ক্ষতিগ্রস্তদের ওপর। জিআইজেড এবং তরঙ্গ তাদের অংশীদার ও বিনিয়োগকারীদেরকে পণ্য মেলায় নিমন্ত্রণ করেছে এই উদ্যোগের ফলাফল দেখাবার জন্য।
এই উদ্যোগটি নারী উদ্যোক্তাদের শুধু যে ক্ষমতায়ন করবে তাই নয়, রানা প্লাজায় ক্ষতিগ্রস্তদের বিকল্প উপায়ে আয় বৃদ্ধিতে সক্ষম করে তুলবে। “রানা প্লাজা ভবন ধ্বসের কারণে জার্মান সরকার ক্ষতিগ্রস্তদের ও তাদের পরিবারকে সহায়তা করতে ২.৫ মিলিয়ন ইউরোর বেশি প্রদান করতে প্রতিশ্রুতি দিয়েছে। আমার খুব আনন্দ হচ্ছে সেই অনন্য প্রকল্পটির চমৎকার ও ব্যবহারোপযোগী ফলাফল দেখতে পেয়ে। এই নব উদ্যোগটির মাধ্যমে আমরা দেখাতে পারছি যে, রানা প্লাজায় ক্ষতিগ্রস্তদের পুনর্বাসন এবং কর্মে নতুন করে নিযুক্ত করবার জন্য আমাদের প্রতিশ্রুতিটি ফলপ্রসূ হয়েছে। আমরা বাংলাদেশকে সহায়তা করে যাব তৈরি পোশাক শিল্পের কর্মক্ষেত্রের উন্নয়ন ঘটাবার জন্য।” – জার্মান ডেভেলপমেন্ট কোঅপারেশন আয়োজিত অনুষ্ঠানটি উদ্বোধনকালে ঢাকাস্থ জার্মান দূতাবাসের চার্জ দ্য অ্যাফেয়ার্স জনাব ড. ফার্দিনান্দ ফন ভাইয়ে এ কথা বলেন।
জনাব মাগনুস শ্মিড, প্রোগ্রাম কোঅর্ডিনেটর, জিআইজেড বলেন- “আমাকেও গণ্য করুন- জিআইজেড এটাই বিশ্বাস করে রানা প্লাজায় ক্ষতিগ্রস্তদের দীর্ঘ ও স্বল্প মেয়াদী পুনর্বাসনের উদ্যোগ নিয়ে কাজ করবার ক্ষেত্রে। জিআইজেড রানা প্লাজায় ক্ষতিগ্রস্ত এবং শারিরীকভাবে অক্ষম সদস্য বিশিষ্ট পরিবারকে টেঁকসই পেশাদার প্রশিক্ষণ দিয়ে আসছে এবং তাদেরকে সহায়তা করছে পোশাক শিল্পের ভেতরে বা বাইরে নতুন পেশায় নিয়োজিত হতে। তরঙ্গ-এর সাথে এই সহযোগিতা হচ্ছে উনড়বত জীবনযাপনের নতুন সম্ভাবনা উন্মোচন করার বিভিনড়ব উদ্যোগের একটি।
তরঙ্গ একটি বেসরকারী প্রতিষ্ঠান, যারা সমাজের সুবিধা বঞ্চিত নারীদের বিশেষ করে পণ্য উৎপাদনমূলক প্রশিক্ষণ দিয়ে থাকে। পিএসইএস বিশেষ প্রশিক্ষণের কৌশল শেখায়- এটি একটি প্রশিক্ষণের হাতিয়ার যাতে বাস্তব শিক্ষণ পদ্ধতি ব্যবহার করা হয়, আয় বৃদ্ধিমূলক কাজের দক্ষতার উন্নয়নে। এই উদ্যোগটি বাংলাদেশের তৈরি পোশাক শিল্পের অন্যান্য সুবিধা বঞ্চিত নারীদের কাছেও পৌঁছে গেছে। বিজ্ঞপ্তি

Pin It on Pinterest

Share This

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. more information

The cookie settings on this website are set to "allow cookies" to give you the best browsing experience possible. If you continue to use this website without changing your cookie settings or you click "Accept" below then you are consenting to this.

Close