তারানার পাশে ‘গ্যাংগস্টার’, অনলাইনে সমালোচনার ঝড়

tarana with gangstarডেস্ক রিপোর্টঃ সিঙ্গাপুরে ফেসবুক কর্তৃপক্ষের সাথে আলোচনা করতে গেছেন টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম। তাঁর সফরসঙ্গী হয়েছেন অনলাইনভিত্তিক বিতর্কিত সংগঠন সিপিগ্যাং সদস্য আসিফ খান অভি।
গত ১২ জানুয়ারি সিঙ্গাপুরে অনুষ্ঠিত ওই বৈঠকে ফেসবুক কর্তৃপক্ষের সাথে সাইবার নিরাপত্তা, নারীর প্রতি অবমাননাসহ কয়েকটি বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়। যদিও মন্ত্রীর সফরসঙ্গী হওয়া অভির বিরুদ্ধেই রয়েছে নারী অবমাননার অভিযোগ।
বিতর্কিত এই আসিফ খান অভি প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিমের ব্যক্তিগত কর্মকর্তা (পিও) হিসেবেও নিযুক্ত হয়েছেন বলে জানা গেছে। এনিয়ে ফেসবুকে চলছে নানামুখী সমালোচনা।
তবে সিঙ্গাপুর থেকে একটি অনলাইন গণমাধ্যমকে জিএম আসিফ আল মামুন জানান, সিপিগ্যাংয়ের ‘গালিবাজ’ আসিফ খান অভি তিনি নন। তার ছবি ব্যবহার করে ওই নামে একটি ভূয়া একাউন্ট করা হয়। তিনি এই বিষয়ে থানায় জিডি করেছেন বলেও জানান।
তারানা হালিমের চলমান সিঙ্গাপুর ও মালয়েশিয়ার রাষ্ট্রীয় সফরে সফরসঙ্গী হিসেবে রয়েছেন তাঁর পিও জিএম আসিফ আল মামুন। যদিও আসিফ আল মামুনই সিপিগ্যাংয়ের আসিফ খান অভি বলে দাবি করেছেন অনেকে।
বিতর্কিত সংগঠন সিপিগ্যাংয়ের বিরুদ্ধে অভিযোগ রয়েছে অনলাইন বিশিষ্টজনসহ সাধারণ ফেসবুক ব্যবহারকারীদেরও অকথ্য ভাষায় গালাগালি করার। মতের ভিন্নতা দেখা দিলে অশ্লীলভাবে আক্রমনের। নিজেদের মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষের শক্তি দাবি করলেও এই গোষ্ঠির গালাগালির শিকার হতে হয়েছে মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের অনেক বিশিষ্টজনদেরও।
শহীদ কন্যা সাংবাদিক সুপ্রীতি ধরকে বহুল বিতর্কিত ভার্চুয়াল সংগঠন সিপিগ্যাং সদস্য আসিফ খান অভির অশালীন গালিগালাজে প্রতিবাদের ঝড় উঠলে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে সিপিগ্যাং-এর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হয়।
সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, জি.এম. আসিফ আল মামুন দুই মাস আগে তারানা হালিমের পার্সোনাল অফিসার হিসেবে যোগ দিলেও বিষয়টি এতদিন কেউ জানতেন না। তবে সিঙ্গাপুর সফরের ছবি প্রকাশ হলে এই নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যাপক বিতর্কের ঝড় ওঠে। ফেসবুকে প্রচার করা হয় যে, জি.এম. আসিফ আল মামুনই হলো কথিত বিতর্কিত আসিফ খান অভি।
জানা গেছে, তারানা হালিম টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী হিসেবে যোগদান করার পর তাঁর পিও-এর দায়িত্বে ছিলেন মো. সোহেল রানা। গত নভেম্বরে সোহেল রানার চাকরি হয় বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনে (বিটিআরসি)। এরপর জি.এম. আসিফ আল মামুনকে তারানা হালিম নিজের পার্সোনাল অফিসার হিসেবে নিয়োগ দেন।
তারানা হালিমের রাষ্ট্রীয় সফরে সিঙ্গাপুরে “আসিফ খান অভি” গেছেন কিনা জানতে চাইলে তিনি জানান, সরকারিভাবে টেলিযোগাযোগ মন্ত্রণালয় থেকে প্রতিমন্ত্রী এবং এপিএস জয়দেব নন্দী এই দুজন সদস্য সিঙ্গাপুর যাওয়ার নির্দেশনা তাদের হাতে রয়েছে। সেখানে অভির নাম নেই বলেও তিনি জানান। তবে তিনি আলাদাভাবে সফরসঙ্গী হতে পারেন।
এই বিষয়ে সিঙ্গাপুরে অবস্থানরত জি.এম. আসিফ আল মামুন জানান, “আসিফ খান অভি” নামের একটি ভূয়া একাউন্ট তৈরী করে তাকে হেয় করা হচ্ছে। তার সাথে ওই একাউন্টের কোনও সম্পর্ক নেই।
প্রসঙ্গত, এরআগে গত বছর জুলাই মাসে আইসিটি বিভাগের উদ্ভাবন তহবিলের অনুদান পায় সিপি গ্যাং। এই নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিতর্ক শুরু হলে রাতারাতি প্রতিষ্ঠানটির নাম পরিবর্তন করে নতুন নাম দেওয়া হয় হ্যাপিওয়ার্কস। আইসিটি মন্ত্রণালয় বিষয়টি ধামাচাপা দেওয়ার জন্য পরবর্তী তালিকায় নতুন নাম যুক্ত করলেও শেষ পর্যন্ত মূল ধারার সংবাদ মাধ্যমে আলোচনা হলে অনুদান বাতিল হয়ে যায়।

Pin It on Pinterest

Share This

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. more information

The cookie settings on this website are set to "allow cookies" to give you the best browsing experience possible. If you continue to use this website without changing your cookie settings or you click "Accept" below then you are consenting to this.

Close