বড়লেখায় পৌরসভা নির্বাচনী মাঠে আওয়ামী লীগ ঃ প্রস্তুতি নিচ্ছে বিএনপি

Barlekha- Nirbachon picবিশ্বজিৎ রায়, কমলগঞ্জ (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধিঃ
মৌলভীবাজারের বড়লেখায় পৌরসভা নির্বাচনের আমেজ জমে উঠেছে। স্থানীয়দের আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুও এখন পৌর নির্বাচন। আওয়ামী লীগ, বিএনপির পাশাপাশি স্বতন্ত্র প্রার্থীরাও ২য় শ্রেণীর এ পৌরসভায় মেয়র পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতার প্রস্তুতি নিচ্ছেন। তফসিল ঘোষণার আগেই ভোটারদের দৃষ্টি আকর্ষণের জন্য ব্যানার, বিলবোর্ড ও পোস্টারকেন্দ্রিক প্রচারের পাশাপাশি বাড়ি বাড়ি গিয়ে জনসংযোগও করছেন প্রার্থীরা। ধর্মীয় ও সামাজিক উৎসবকে কেন্দ্র করে স্থানীয়দের সঙ্গে মতবিনিময় করছেন তারা। পাড়া-মহল্লার ঘরোয়া ও চায়ের দোকানের আড্ডায় ছড়িয়ে গেছে নির্বাচনী আমেজ। কোনো কোনো প্রার্থীও এসব আড্ডায় অংশ নিচ্ছেন।
ইতিমধ্যে পৌর এলাকার মুরব্বী ও যুবকদের সাথে মতবিনিময় সভা করেছেন বড়লেখা উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ও বর্তমান আওয়ামী লীগের যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক ও সম্ভাব্য পৌর মেয়র প্রার্থী আবুল ইমাম মো. কামরান চৌধুরী, পৌরসভার দু’বারের নির্বাচিত ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক তাজ উদ্দিন, পৌরসভার দু’বারের নির্বাচিত ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও উপজেলা আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক আলী আহমদ চৌধুরী জাহেদ, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল আহাদ প্রমুখ। আওয়ামী লীগের ঘাটি হিসেবে পরিচিত বড়লেখা পৌরসভা এলাকায় ২০১১ সালের নির্বাচনে মেয়র পদে বিজয়ী হন বিএনপি সমর্থিত প্রভাষক ফখরুল ইসলাম। ওই নির্বাচনে মেয়র পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন আওয়ামী লীগের দুই নেতা। এই বিভক্তির কারণে মেয়র পদটি হাতছাড়া হয়েছে বলে মনে করেন ক্ষমতাসীন দলের স্থানীয় নেতাকর্মীরা। যদিও ওই নির্বাচনে পৌরসভার ৯টির মধ্যে ৭টি ওয়ার্ড ও সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদের সব ক’টিতে আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থীরা নির্বাচিত হন।
আগামী নির্বাচনে মেয়র পদটির দখল নিতে একক প্রার্থী দেওয়ার ব্যাপারে বদ্ধপরিকর আওয়ামী লীগ। আওয়ামী লীগের মনোয়ন প্রত্যাশীদের সাথে কথা বলে জানা গেছে, যাকেই মনোনয়ন দেওয়া হোক, দলীয় সিদ্ধান্ত মেনে নেবেন তারা। দলীয় প্রতীকে নির্বাচনের সিদ্ধান্ত আসায় আওয়ামী লীগ ও বিএনপির প্রার্থীরা শীর্ষ পর্যায়ের নেতাদের সন্তুষ্টি লাভের জন্যও দৌড়ঝাঁপ শুরু করেছেন।
এখন পর্যন্ত সম্ভাব্য প্রার্থী হিসেবে ক্ষমতাসীন দলের অন্তত ৬ জন প্রার্থীর নাম শোনা যাচ্ছে। অন্যদিকে বিএনপি থেকেও শোনা যাচ্ছে অন্তত ৩ জন প্রার্থীর নাম। যদিও বিএনপির নেতৃবৃন্দের সাথে কথা বলে জানা গেছে, তারা পৌরসভা নির্বাচনের ব্যাপারে কেন্দ্রীয় নির্দেশনার অপেক্ষায় আছেন এখনও।
বড়লেখা পৌরসভায় মেয়র পদে ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের ৬ নেতা দলের মনোনয়ন লাভে সচেষ্ট রয়েছেন। তারা হলেন-উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ও বর্তমান আওয়ামী লীগের যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক আবুল ইমাম মো. কামরান চৌধুরী, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক ফুটবলার আব্দুল আহাদ, পৌরসভার দু’বারের নির্বাচিত ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক তাজ উদ্দিন, পৌরসভার দু’বারের নির্বাচিত ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও উপজেলা আওয়ামী লীগের বিজ্ঞান প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক আলী আহমদ চৌধুরী জাহেদ, পৌর আওয়ামী লীগের সদস্য ও প্রয়াত পৌর মেয়র আব্দুল মালিকের ছোট ভাই আব্দুল নূর, উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহবায়ক মোছাৎ রায়না বেগম।
এদিকে বিএনপি থেকে মনোনয়ন প্রত্যাশী ৩ জন হচ্ছেন পৌরসভার সাবেক ভারপ্রাপ্ত মেয়র মতিউর রহমান, পৌর বিএনপির সভাপতি মো. আনোয়ারুল ইসলাম, সাবেক ছাত্রদল সভাপতি ও বর্তমান পৌর যুবদল সভাপতি সাইফুল ইসলাম খোকন।
অপরদিকে জামায়াতের একক প্রার্থী হিসেবে প্রস্তুতি নিচ্ছেন খিজির আহমদ। যদিও দলীয়ভাবে জামায়াতের নির্বাচনে অংশগ্রহণের কোন সুযোগ নেই। তবে জানা গেছে জামায়াতের প্রার্থী স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচনে অংশ নিতে পারেন। এ ছাড়া নির্বাচনে জাতীয় পার্টি থেকে মনোনয়ন প্রত্যাশী কারও নাম শোনা যায়নি।

Pin It on Pinterest

Share This

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. more information

The cookie settings on this website are set to "allow cookies" to give you the best browsing experience possible. If you continue to use this website without changing your cookie settings or you click "Accept" below then you are consenting to this.

Close