দূর্নীতির বরপুত্র সওজ’র তত্বাবধায়ক প্রকৌশলী চন্দন কুমার’

অপসারনের দাবীতে ফুসে উঠছে কন্ট্রাকটর ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশন

Eng--01ফখরুল ইসলামঃ দূর্নীতির বরপুত্র সওজ’র তত্বাবধায়ক প্রকৌশলী চন্দন কুমারের নানা দূর্নীতি ও স্বজনপ্রীতির মাত্রা দিন দিন বেড়েই চলছে। তার সীমাহীন দূর্নীতিতে অতিষ্ঠ সিলেট সড়ক ও জনপথ কন্ট্রাকটর ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশন’র নেতৃবৃন্দ । মঙ্গলবার সড়ক ও জনপথ কন্ট্রাকটর ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশন’র নেতৃবৃন্দ নগরীর চৌহাট্রা সওজ’র কার্যালয়ে সওজ’র তত্বাবধায়ক প্রকোশলী চন্দন কুমার বসাক এর সামনেই এমন মন্তব্য করেন। তাদের অভিযোগ বিগত কয়েক দিন পূর্বে একটি টেন্ডার আহবান করা হয়েছিল। সেই টেন্ডার পেতে ১৯টি প্রতিষ্ঠান টেন্ডার জমা দেন সেখান থেকে মাত্র ৬টি সমমান দরপত্র হওয়ার করণে বাকিরা বাদ পড়েন। কিন্তু সেই ৬টি প্রতিষ্ঠানকে না জানিয়ে নিজের মন গড়া একই ব্যক্তির দুইটি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে লটারী করে কাজ প্রদান করা হয়। গত মঙ্গলবার সড়ক ও জনপথ কন্ট্রাকটর ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশন’র নেতৃবৃন্দ নগরীর চৌহাট্রা সওজ’র Chondon Kumarকার্যালয়ে সওজ’র তত্বাবধায়ক প্রকোশলী চন্দন কুমার বসাক কে মন গড়া একই ব্যক্তির দুইটি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে লটারী করে কাজ প্রদান করার কারণ জানতে চাইলে তিনি কোন স্বদউত্তর দিতে পারেন নি। এ ধরনের প্রশ্নর মুখে কোন জবাব না দিয়ে হতবাক হয়ে পড়েন প্রকৌশলী চন্দন কুমার। এসোসিয়েশর নেতৃবৃন্দর দাবী কুন্ডু বাবুকে তিনি স্বজনপ্রীতি ও গোপন চুক্তির মাধ্যমে কাজ দিয়েছেন । শুধু তাই নয় এর আগে তিনি আরো হাজারো দূর্নীতি করেছেন যা সুষ্ট তদন্ত করলে বেরিয়ে আসবে। এসোসিয়েশন নেতৃবৃন্দ অবিলম্বে ইজিপিতে দুর্ণীতিকারী প্রকৌশলী চন্দ্রন কুমারের অপসারণ, ১৫% লেস নির্ধারণ বাতিল, প্রধানমন্ত্রী’র গ্রেজেট অনুযায়ী ৫% লেসে লটারী এবং প্রকৌশলী চন্দন কুমারের অপসারন না হওয়া পর্যন্ত কোন টেন্ডার না করার জন্য দাবী জানান। নেতৃবৃন্দ তাদের দাবী না মানা হলে আগামী রবিবার সওজ কার্যালয়ের সামনে সকাল ১১ ঘটিকার সময় থেকে অবস্থান কর্মসূচির ঘোষণা দেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন সিলেট সড়ক ও জনপথ কন্ট্রাকটর ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশন’র সাধারণ সম্পাদক হাজী মিলাদ আহমদ, দপ্তর সম্পাদক লিয়াকত হোসেন, সহ-সভাপতি আব্দুল কাহির, সহ-সাধারণ সম্পাদক মোজ্জামেল হোসেন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মির্জা বেলায়েত হোসেন লিটন, সদস্য আলী আকবর, আব্দুর রহিম, আব্দুল হান্নান, সুমন মিয়া প্রমুখ।
এদিকে সওজ’র তত্বাবধায়ক প্রকোশলী চন্দন কুমার বসাক এর সাথে এ বিষয়ে আলাপকালে তিনি জানান, বর্তমানে টেন্ডার গুলো ইজিপি‘র মাধ্যমে হয়। এখানে দূর্নীতির কোন সুযোগ নেই।

Pin It on Pinterest

Share This

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. more information

The cookie settings on this website are set to "allow cookies" to give you the best browsing experience possible. If you continue to use this website without changing your cookie settings or you click "Accept" below then you are consenting to this.

Close