‘জৈন্তার গোপন সংবাদ’ নামক আতংক : ব্যবসায়ীর জিডি

Rapeমোঃ রেজওয়ান করিম সাব্বির, জৈন্তাপুর প্রতিনিধি: সিলেটের জৈন্তাপুর উপজেলার সর্বত্র ভূয়া ফেইস বুক আইডি’র আতংঙ্কের মধ্যে দিন যাপন করছে ব্যবসায়ী, রাজনীতিবিদ, শিক্ষক, শিক্ষিকা ও সহ সর্বস্তরের জনসাধারণ। বিভ্রতকর অবস্থায় পড়েছে স্থানীয়, জাতীয় ও অনলাইন সংবাদ মাধ্যমে কর্মরত সাংবাদিকরা। ভূয়া আইডি ব্যবহার করে চক্রটি ব্যবসায়ীর সম্মানহানির চেষ্টা করছে। ইজ্জ্বত রক্ষায় ফেইসবুক আইডি “জৈন্তার গোপন সংবাদ” এর বিরুদ্ধে থানায় সাধারণ ডায়েরী।
জিডিসূত্রে জানাযায়- ২০ আগষ্ট রাত ৯টায় “জৈন্তার গোপন সংবাদ” নামক ভূয়া ফেইসবুক আইডি হতে জৈন্তাপুর উপজেলার পশ্চিম গৌরীশংকর গ্রামের মৃত হাছন আলীর ছেলে ব্যবসায়ী মনসুর মিয়া(৩৫) এর বিরুদ্ধে গত ১৫ আগষ্ট একই গ্রামের এক যুবতীকে জোর পূর্বক ধরে নিয়ে ধর্ষণ করেছে মর্মে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে ষ্ট্যাষ্টাস দেয়। ষ্ট্যাটাসটি তাৎক্ষনিক ভাবে উপজেলা সদরে ছড়িয়ে পড়ে। ব্যবসায়ী মনসুর মিয়া সহ তার নিকত্মীয়রা লোক মারফতে জানতে পারে বিষয়টি স্থানীয় ইউপি সদস্য সহ এলাকার গণ্যমান্যদের অবহিত করা হয়। ভূয়া আইডি’র এমন ষ্ট্যাটাসে গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ, সুশিল সমাজ সহ স্থানীয় সংবাদকর্মীদের কে বিভ্রতকর অবস্থায় ফেলে দিচ্ছে। ইউপি সদস্য সহ ষ্ট্যাটাসে উল্লেখিত নির্যাতিতা মহিলার অভিভাবক সহ মহিলার সাথে যোগাযোগ করা হলে তারাও এমন সংবাদে হতভম্ব হয়ে পড়ে। ক্ষোভের সাথে তারা জানান জৈন্তার গোপন সংবাদ নামক আইডি তাদের ইজ্জ্বত হননের চেষ্টা চালাচ্ছে। ব্যবসায়ী মনসুরের সাথে তাদের পারিবারিক সম্পর্ক ভাল। সম্পর্ক নষ্ট করতে একটি কুচক্রি মহল তাদের বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালাচ্ছে। তারা ব্যবসায়ীকে আইনের আশ্রয় নিতে বলে। এমন ষ্ট্যাটাসে ব্যবসায়ী মনসুর মিয়া বাদী হয়ে জৈন্তাপুর থানায় অজ্ঞাত নামা ব্যক্তি কর্তৃক পরিচালিত ভূয়া ফেইসবুক আইডি এবং আইডিতে ব্যবহৃত মোবাইল নাম্বার (+৯৭১৫২২৬১৮৫৮৯ এবং ০১১৯১৭৫০৫০৮) উল্লেখ পূর্বক জৈন্তাপুর মডেল থানায় সাধারন ডায়েরী দায়ের করে। যাহার নং-৮৭৮, তারিখঃ ২৩-০৮-২০১৩।
এবিষয়ে উপজেলা আওয়ামীলীগের অন্যতম সদস্য আতাউর রহমান বাবুল ও ইউপি সদস্য আব্দুল খালিক পঙ্খি মিয়া, ব্যবসায়ী সুলেমান আহমদ, রাজনীতিবিদ, শিক্ষক-শিক্ষিকা সহ প্রায় অর্ধশতাধিক ব্যক্তির সাথে আলাপকালে তারা জানান- জৈন্তার গোপন সংবাদ, জৈন্তার সংবাদ, ফিডি পাইডিস, রাজনৈতিক সমালোচক, জৈন্তা নিউজ ডটকম, টিয়া পাখী, আমি জৈন্তাপুরী, জৈন্তাপুরের বাসিন্ধা সহ একাধিক ভূয়া আইডি মাধ্যমে সম্প্রতি জৈন্তাপুর উপজেলার রাজনৈতিক, সামাজিক, ব্যবসায়ী, শিক্ষক-শিক্ষিকা, কলেজ ছাত্রীদের নিয়ে মিথ্যা ভিত্তিহীন ষ্ট্যাটাস ছড়িয়ে দিয়ে ইজ্জ্বত হননের চেষ্টা চালাচ্ছে। ফলে আজ জৈন্তিয়ার সুশিল সমাজ আতংঙ্কের মধ্যে রয়েছে। তাদের দাবী আইন প্রয়োগকারী সংস্থার কর্তৃক তদন্তপূর্বক ভূয়া আইডি ব্যবহারকারীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহনের।
জৈন্তাপুর প্রেসকাবের সাবেক সভাপতি ও ইমরান আহমদ মহিলা ডিগ্রী কলেজের সহকারী অধ্যাপক শাহেদ আহমদ বলেন- জৈন্তাপুরের নাম উল্লেখ করে একটি চক্র সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ফেইসবুকে সামাজিক, রাজনৈতিক, শিক্ষক ও সূধীজন সহ ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে নানা অপপ্রচার চালাচ্ছে। তাদের ষ্ট্যাটাসে সংবাদকর্মীরাও যথারীতি বিভ্রতকর অবস্থায় পড়ছে। এসকল আইডি গুলোর সঠিক তথ্য পাওয়া যাচ্ছে না। বিভ্রতকর অবস্থা হতে উত্তরনের জন্য উপজেলায় কর্মরত সাংবাদিকরা তথ্য সংগ্রহের কাজ করছে। তিনি আরও বলেন আইন প্রয়োগকারী সংস্থা এসকল ভূয়া আইডি সনাক্ত করে ভূয়া আইডি পরিচালনা কারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহনের দাবী জানান।
এবিষয়ে জৈন্তাপুর মডেল থানার (ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা) এস.আই ময়নুল ইসলাম প্রতিবেদককে জানান- মনসুর মিয়া বাদী হয়ে ভূয়া আইডি “জৈন্তার গোপন সংবাদ” এর বিরুদ্ধে জিডি দায়ের করেছে। আমরা তথ্য প্রযুক্তি সঠিক ব্যবহারের মাধ্যমে আইডিটি সনাক্তের কাজ করে যাচ্ছি।

Pin It on Pinterest

Share This

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. more information

The cookie settings on this website are set to "allow cookies" to give you the best browsing experience possible. If you continue to use this website without changing your cookie settings or you click "Accept" below then you are consenting to this.

Close