শাবিতে জাফর ইকবালসহ ৩৫ শিক্ষকের পদত্যাগ

SUST Resign2সুরমা টাইমস রিপোর্টঃ প্রফেসর ড. মুহাম্মদ জাফর ইকবালসহ সিলেটের শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবি) ৩৭টি প্রশাসনিক পদ থেকে ৩৫ জন শিক্ষক পদত্যাগ করেছেন।
“এ ভিসির সাথে আর কাজ করা সম্ভব নয়। তাই, আমরা তার প্রতি অনাস্থা জ্ঞাপন করছি”-মর্মে তারা পদত্যাগপত্রে উল্লেখ করেন।
ক্যাম্পাস সূত্র জানায়, মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উদ্বুদ্ধ শিক্ষক ফোরামের নেতৃবৃন্দ সোমবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার ভবনে জড়ো হতে থাকেন। পদত্যাগপত্র নিয়ে সকাল ১১টার দিকে ফোরামের আহ্বায়ক অধ্যাপক ড. সামছুল আলম চৌধুরী, কো-কনভেনর প্রফেসর মোস্তাবুর রহমান ও পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. নাজিয়া চৌধুরীর নেতৃত্বে শিক্ষক প্রতিনিধি দল রেজিস্ট্রারের সাথে দেখা করেন এবং তার হাতে পদত্যাগ তুলে দেন।
SUST Resignরেজিস্টার ইশফাকুল হোসেন তাৎক্ষনিকভাবে তাদের পদত্যাগপত্র গ্রহণ করে তাতে স্বাক্ষর করেন।
ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর এমদাদুল হক জানান, প্রশাসনিক পদে কর্মরত ৩৭ শিক্ষকের সবাই পদত্যাগ করেছেন। এর মধ্যে কয়েকজন শিক্ষক একাধিক পদেও কর্মরত আছেন। এ বিষয়ে পরবর্তী করণীয় নির্ধারণে আজই বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে।
পদত্যাগকৃত শিক্ষকেরা হলেন ইন্সটিটিউট অব ইনফরমেশন টেকনোলজির পরিচালক প্রফেসর ড. জাফর ইকবাল, সেন্টার ফর এক্সিলেন্সের পরিচালক প্রফেসর ড. মোহাম্মদ ইউনুস, লোক প্রশাসন বিভাগের বিভাগীয় প্রধান প্রফেসর ড. আব্দুল আওয়াল বিশ্বাস, ছাত্র উপদেশ ও নির্দেশনা পরিচালক প্রফেসর ড. আনোয়ারুল ইসলাম, ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর এমদাদুল হক, সহকারী প্রক্টর, পরিবহন প্রশাসক, বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক সকল ছাত্র-ছাত্রী হলের প্রভোস্ট, সহকারী প্রভোস্ট।
প্রসঙ্গত, গত বুধবার ভিসির ওপর অনাস্থা জ্ঞাপন করে রোববারের মধ্যে ভিসিকে পদত্যাগের আল্টিমেটাম দেয় মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উদ্বুদ্ধ শিক্ষকবৃন্দের ফোরাম। অন্যথায় সোমবার বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক পদ থেকে সকল শিক্ষকেরা পদত্যাগ করবেন বলেও তারা হুঁশিয়ারী উচ্চারণ করেছিলেন।
পদত্যাগপত্র জমা দেয়ার পর শিক্ষক পরিষদের যুগ্ম-আহ্বায়ক অধ্যাপক মস্তাবুর রহমান সাংবাদিকদের বলেন, ‘দাবি অনুযায়ী রোববার বিকেল ৫ টার মধ্যে ভিসি পদত্যাগ না করায় পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী আমরা পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছি।’
শাবির প্রক্টর ইশফাকুল হক জানান, ‘৩৫ শিক্ষকের পদত্যাগপত্র পেয়েছেন। নিয়মানুযায়ী পরবর্তী পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে।’
তবে শিক্ষকদের পদত্যাগপত্র জমা দেয়ার পরও বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক আমিনুল হক ভুঁইয়া পদত্যাগ করবেন না বলে জানিয়েছেন তিনি। তিনি বলেন, ‘আমি শিক্ষকদের সঙ্গে কোন অসদাচরণ করি নাই। তাই আমি পদত্যাগও করবো না।’
প্রসঙ্গত, গত সোমবার ভিসির সঙ্গে একাডেমিক ভবনের স্পেস সম্পর্কিত জটিলতা নিরসনের ব্যাপারে কথা বলতে যান পদার্থবিজ্ঞান ও জিওগ্রাফি অ্যান্ড এনভায়রনমেন্ট (জিইই) বিভাগের ১৯ জন শিক্ষক। তাদের মধ্যে প্রফেসর ড. জাফর ইকবালের স্ত্রী পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের প্রফেসর ড. ইয়াসমিন হকও উপস্থিত ছিলেন। ওই দিন ভিসির সঙ্গে কথা কাটাকাটি হলে পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. সৈয়দ বদিউজ্জামান ফারুক এবং জিইই বিভাগের অধ্যাপক ড. শরীফ মোহাম্মদ শারাফউদ্দিন বিভাগীয় প্রধানের পদ থেকে পদত্যাগ করেন।

Pin It on Pinterest

Share This

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. more information

The cookie settings on this website are set to "allow cookies" to give you the best browsing experience possible. If you continue to use this website without changing your cookie settings or you click "Accept" below then you are consenting to this.

Close