আখালিয়ায় প্রতিপক্ষের হামলায় মহিলাসহ আহত ৬

akhaliya_fight_12-04-2015নগরীর আখালিয়া বড়বাড়ি এলাকায় কয়েকদফায় প্রতিপক্ষের হামলায় একি পরিবারের মহিলাসহ ৬ জন আহত হওয়ার সংবাদ পাওয়া গেছে। রবিবার বিকেলে এ ঘটনা ঘটে। খবর পেয়ে জালালাবাদ থানার পুলিশ পরিদর্শক আমিনূরের নেতৃত্বে একদল পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে আহতদের উদ্ধার করে ওসমানী হাসপাতালে ভর্তি করেন।
পরবর্তীতে হামলাকারীরা সন্ধ্যায় আবারও বসত ঘরে হামলা ও লুটপাট চালায়। স্থানীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, পূর্ব বিরোধের জের ধরে আখালিয়া নোয়াপাড়া এলাকার বাসিন্দা রাজন,সুমন,বাদশা,ফারুকসহ প্রায় ১৫-২০জন একত্রিত হয়ে দেশীয় অস্ত্রশস্ত্রে সজ্জিত হয়ে বড়বাড়ি এলাকার মৃত আব্দুল লতিফ মিয়ার ছেলে মুরাদ মিয়া (৩০) বাসা থেকে বের হয়ে বাজারে যাওয়ার পথে তার উপর হামলা চালায় সন্ত্রাসীরা।
এসময় হামলাকারীরা তার ব্যবহৃত মোটরসাইকেল নম্বর (সিলেট হ-১৩ ৪৮৮৭) ও ব্যবসার প্রায় ৯০হাজার টাকা লুট করে নিয়ে যায়। এসময় পুলিশের সহযোগীতা নিতে যাওয়ার সময় মুরাদ মিয়ার ভাই জাহাঙ্গির মিয়া (৪২) ও আলমগীর মিয়া (৪৫) এর উপর বিজিবি স্কুলের সামনে হামলা চালায়। পরবর্তীতি হামলাকারীরা একত্রিত হয়ে মুরাদ মিয়ার বাড়িতে হামলা ও লুটপাট করে। তাদের বসত কক্ষের স্টিল, আলমিরা ভেঙে হামলাকারীরা নগদ টাকা ও ৯ভরি স্বর্ণসহ প্রায় দেড় লাখ টাকার মালামাল নিয়ে যায়।
এসময় হামলাকারীরা তাদের দুটি দোকান ও ভাংচুর করে লুটপাট করে। তখন হামলাকারীদেরকে বাঁধা দিতে আসলে জলি আক্তার (৩২), খোকন মিয়া (৩৭) এর উপের হামলা চালায়। আহতদেরকে ওসমানী হাসপাতালের ৩য় তলার ৯নং ওয়ার্ডে ও ৪র্থ তলার ৫নং ওয়ার্ডে ভতি করা হয়েছে।
জালালাবাদ থানার ওসি আক্তার হোসেন গণমাধ্যমকে জানান, হামলাকারী সুমন, রাজনসহ অন্যদের বিরুদ্ধে নারী নির্যাতনের মামলাসহ একাধিক মামলা রয়েছে। হামলাকারীদেরকে আটক করতে পুলিশি অভিযান অব্যাহত আছে। হামলা ও লুটপাটের অভিযোগে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

Pin It on Pinterest

Share This

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. more information

The cookie settings on this website are set to "allow cookies" to give you the best browsing experience possible. If you continue to use this website without changing your cookie settings or you click "Accept" below then you are consenting to this.

Close