সুনামগঞ্জের ৫টি উপজেলাকে দুর্গত এলাকা ঘোষণা ও ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকদের সরকারি সহায়তার দাবিতে মানববন্ধন

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধিঃ আকস্মিক কালবৈশাখী ঝড়, শিলাবৃষ্টিতে সুনামগঞ্জের পাঁচ উপজেলার লাখে কৃষকের আবাদকৃত বোরো ফসলী জমির ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকদের সরকারি সহায়তা ও হাওরের সকল বেরীবাঁধ রক্ষা এবং বাঁধগুলিকে ঝুঁকিমুক্ত রাখার দাবি জানিয়ে সুনামগঞ্জ শহরের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে শনিবার দুপুরে এক মানববন্ধন কর্মসুচী ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।
সমাবেশে সুনামগঞ্জ সদও, বিম্বম্ভরুর, তাহরপুর,জামালগঞ্জ ও ধর্মপাশা উপজেলাকে দূর্গত এলাকা ঘোষণা করে কৃষি ও কৃষক পরিবারগুলো সরকারের াবপকালীন হতবিল থেকে দ্রুত পুর্নবাসনের দাবি জানানো হযেছে।
সমাবেশে বক্তারা বলেন,‘হাওরের বোরো ফসলী কৃষকরা বন্যা-খরা, কালবৈশাখী ঝড়, শিলাবৃষ্টিসহ নানা প্রাকৃতিক দুর্যোগে বারবার ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন। কিন্তু অতীতে কোন সময়ই হাওরের ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকদের পাশে তাৎক্ষণিক দাঁড়ায়নি কেউ। কৃষকরা ক্ষতিপূরণ না পেয়ে প্রাপ্য অধিকার থেকে বঞ্চিত হন।
দ্রুত ক্ষতিগ্রস্থ কৃষকদের তালিকা তৈরি করে বিনা সুদে কৃষি ঋণ প্রদান, পুর্বেও কৃষি ঋণ মওকুফ, রেশনিং ব্যবস্থা চালু, কৃষি উপকরণ প্রদানসহ হাওরের ফসল রক্ষা বাঁধ ঝুঁকিমুক্ত রাখার দাবি জানান।
সুনামগঞ্জ হাওরবাসীর ব্যানারে মানববন্ধন কর্মসুচী ও সমাবেশে মুক্তিযোদ্ধা সংসদের নেতৃবন্ধ, গণমাধ্যম কর্মী, আইনজীবী, ব্যবসায়ী, সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠন ও বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতৃবৃন্ধ সহ কৃষি ও কৃষক পরিবেরের কয়েক শতাধিক লোকের অংশগ্রহনে বোরো ফসলরক্ষা ও কৃষকদের দাবি-দাওয়া এবং সমস্যাতুলে ধরে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক ডেপুটি কমান্ডার আবু সুফিয়ান, পৌরসভার সাবেক ভারপ্রাপ্ত মেয়র নূরুল ইসলাম বজলু , প্রভাষক মো. মশিউর রহমান, প্রেসকাবের সহ সভাপতি পঙ্কজ দে, সাধারণ সম্পাদক লতিফুর রহমান রাজু, সাংবাদিক কুলেন্দু শেখর দাস, উন্নয়ন সংগঠক সালেহীন চৌধুরী শুভ, প্রেসকাবের সমাজকল্যান সম্পাদক ও পরিবেশ এবং মানবাধিকার উন্নয়ন সোসাইটির উপ-পরিচালক হাবিব সরোয়ার আজাদ, সাংবাদিক বিন্দু তালুকদারের এমরানুল হক চৌধুরী, সমাজ সেবক অর্ধেন্ধু ঘোষ চৌধুরী সঞ্জু, জেলা ছাত্র ইউনিয়নের সভাপতি মো. রইসুজ্জামান।
মানববন্ধন ও সমাবেশ জাপা নেতা আবু তালেব, মফিজুর রহমান, যুবলীগ নেতা গাজী আফজাল, সাংবাদিক শাহজাহান চৌধুরী, একেএম মহিম, হিমাদ্রি শেখর ভদ্র মিঠু, মাইদুল রাসেল, রাজন মাহবুব, আশীষ কুমার দাস, পলি রায়, নুরজাহান বেগম, আমিনুল ইসলাম, রুজেল আহমদ, ছাত্র ইউনিয়ন নেতা দিপাল ভট্টাচার্য, ফয়সল আহমদ, রনি পাল, জহিরুল ইসলাম জনি,হাবিব মিয়া, স্বপন মিয়া। বিজ্ঞপ্তি

Pin It on Pinterest

Share This

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. more information

The cookie settings on this website are set to "allow cookies" to give you the best browsing experience possible. If you continue to use this website without changing your cookie settings or you click "Accept" below then you are consenting to this.

Close