নাশকতাকারীদেরকে রাজনৈতিকভাবে প্রতিহত করতে হবে

ফেঞ্চুগঞ্জ আ’লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে শিল্পমন্ত্রী

amir hussain amuসুরমা টাইমস ডেস্কঃ আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামন্ডলীর সদস্য ও শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু বলেছেন, যারা হরতাল-অবরোধের নামে নিরীহ মানুষকে পেট্রলবোমা মেরে হত্যা করছে তারা জাতির শত্রু। নাশকতাকারীদেরকে রাজনৈতিকভাবে প্রতিহত করতে হবে। পাশাপাশি এদের বিরুদ্ধে তিনি দলীয় নেতা-কর্মীদেরকেও ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান। গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা গুলো বলেন। স্থানীয় চন্ডী প্রসাদ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রাঙ্গঁনে অনুষ্ঠিত সভায় সভাপতিত্ব করেন উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি শওকত আলী।
অনুষ্ঠানে শিল্পমন্ত্রী আরো বলেন, এ দেশে যা কিছু সৃষ্টি হয়েছে সব কিছু আওয়ামীলীগের অবদান। স্বাধীনতা বিরোধী চক্র নানা চক্রান্ত চালিয়েও দলটিকে নি:শেষ করতে পারেনি। বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার যোগ্য নেতৃত্বে দেশ উন্নয়নের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে।
সম্মেলনের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন সিলেটের জেলা পরিষদের প্রশাসক ও জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আব্দুজ জহির চৌধূরী সুফিয়ান। উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সম্পাদক মুহিব উদ্দির বাদলের পরিচালনায় সভায় প্রধান বক্তা হিসাবে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট মিছবা উদ্দিন সিরাজ। বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন, সিলেট-৩ আসনের সংসদ সদস্য, জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি মাহমুদ উস সামাদ চৌধূরী, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সাবেক সংসদ সদস্য শফিকুর রহমান চৌধুরী, সিলেট সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আশফাক আহমদ, সিলেট জেলা আওয়ামীলীগ নেতা এডভোকেট শাহ মশাহিদ আলী, সাইফুল আলম রুহেল, শেখ মখলু মিয়া, এডভোকেট নাছির উদ্দিন খান, অধ্যক্ষ সুজাত আলী রফিক, এডভোকেট নিজাম উদ্দিন, এডভোকেট শাহ ফরিদ আহমেদ, মাসুক উদ্দিন আহমদ, বালাগঞ্জ উপজেলার সাবেক চেয়ারম্যান মোস্তাকুর রহমান মফুর,বালাগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আনহার আলী, দক্ষিণ সুরমা উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি সাইফুল আলম।
বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান জাহানারা বেগম শ্যামা, উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি রশীদ আহমদ, ডাঃ ফখরুল ইসলাম ফখন, সাংগঠনিক সম্পাদক নজরুল ইসলাম মিফতার,মামুন আহমদ নেওয়াজ ,আব্দুল হাই খসরু, শ্রমিক লীগের সভাপতি আলতাউর রহমান রুনু, মহিলালীগনেত্রী মনোয়ারা বেগম, সেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল আউয়াল কয়েছ,উপজেলা ছাত্রলীগের আহবায়ক মাসার আহমদ শাহ, ছাত্রলীগ নেতা মাহবুবুল ইসলাম চৌধূরী মিছলু, আশরাফুর হক এমাদ।
শোক প্রস্তাব পাঠ করেন উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক শাহ মুজিবুর রহমান জকন। সাংগঠনিক রিপোর্ট পেশ করেন উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল বাছিত টুটুল। শুরুতেই পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন মোঃ নুরুদ্দিন। গীতাপাঠ করেন রন্টু দেব। সম্মেলনশেষে কাউন্সিল অধিবেশনে সমঝোতার ভিত্তিতে মো: শওকত আলী সভাপতি এবং আব্দুল বাছিত টুটুলকে সাধারণ সম্পাদক হিসাবে মনোনীত করা হয়।

Pin It on Pinterest

Share This

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. more information

The cookie settings on this website are set to "allow cookies" to give you the best browsing experience possible. If you continue to use this website without changing your cookie settings or you click "Accept" below then you are consenting to this.

Close