মধ্যনগরে সন্ত্রাসী লালবাহাদুর বাহীনিকে গ্রেফতারের দাবীতে মানববন্ধন

PIC-tahirpur news manob bondonসুরমা টাইমস ডেস্কঃ উপজেলার উত্তর শ্রীপুর ইউনিয়নের সীমান্তবর্তী বাগলীতে এখনও পর্যন্ত চাদাবাজী মামলাসহ একাধীক মামলার ওয়ারেন্ট ভুক্ত আসামীদের গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়নি তাহিরপুর থানা পুলিশ। জানা গেছে, উত্তর শ্রীপুর ইউনিয়নের বীরেন্দ্র নগর গ্রামের মৃত শামছুল হকের পুত্র সীমান্ত এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসী ডাকাত বাহিনীর সর্দার লাল বাহাদুর, ডাকাত সদস্য মেছের আলী সহ দশ জনের বিরুদ্ধে তাহিরপুর থানাসহ বিভিন্ন থানায় একাধীক মামলা রয়েছে । তাহিরপুর থানার মামলা নং-সি/আর ৬৬/১৪ যাহার গ্রেফতারী পরোয়ানা বিগত তিন মাস যাবত জারী আছে । মধ্যনগর থানার অপহরন মামলা নং ৩৭/৩ যাহা বিচারাধীন আছে । এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায় সম্প্রতি তারা এলাকার নিরিহ জনগনের জায়গা জোর পূর্বক দখলের পায়তারায় লিপ্ত আছে । এরই জের ধরে আকবর আলী সুনামগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা মেজিস্ট্রেট আদালতে মাইনুদ্দিন গংদের বিরুদ্ধে রঙ্গাছড়া পশ্চিম মৌজার এক একর উনষাট শতাংশ জায়গার মালিক দাবী করে একাধিক মামলা করে। কিন্তু বার বার মামলার রায় মাইনুদ্দিন গংদের পক্ষে আসার পরও শুধু মাত্র সন্ত্রাসী ও ডাকাতদের ভয়ে নিজেদের জায়গা ভোগ দখল করে খেতে পারছেন না নিরীহ কৃষক মোঃ মাইনুদ্দিন। নিজের জায়গার দখলে যেতে চাইলে দশলক্ষ টাকা চাদা দাবী করে এই সন্ত্রাসী বাহিনী বলে অভিযোগ করেন নিরীহ কৃষক মাইন উদ্দিন সহ ভোক্তভোগীরা। এই সন্ত্রাসী ও ডাকাতদের বিরুদ্ধে দরিদ্র কৃষক মাইনুদ্দিন বাদী হয়ে ২০১৩ সালে আকবর আলী ও তার ভাই ডাকাত সর্দার লাল বাহাদুর সহ দশ জনকে আসামী করে বিজ্ঞ জুডিশিয়াল মেজিস্ট্রেট আদালতে একটি চাঁদা বাজীর মামলা দায়ের করলে অদ্য বধি আদালতে হাজির না হওয়ায় মাননীয় আদালত আসামীদের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারী পরোয়ানার নির্দেশ দেন । পরবর্তিতে আসামীদের গ্রেপ্তার করতে না পারায় মাননীয় আদালত আসামীদের মালামাল ক্রোকের নির্দেশ দেন। চাদাবাজী মামলায় গ্রেফতারী পরোয়ানাসহ আসামীদের বিরুদ্ধে গুম, ডাকাতি সহ একাধিক মামলা থাকার পরও রহস্যজনক কারনে তাহিরপুর থানা পুলিশ তাদের গ্রেফতার করছে না । এর প্রতিবাদে বিগত ২১ জানুয়ারী ২০১৫ তারিখে উল্লেখিত সন্ত্রাসীদের গ্রেফতারের দাবীতে এলাকার পাচশতাধীক লোক স্থানীয় বীরেন্দ্রনগর বাজারে মানব বন্ধন করে যাহা বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক্র মিডিয়ায় ২০ ও ২১ শে জানুয়ারী প্রকাশিত হয়। জানা যায়, বিগত ২৩.০১.২০১৪ ্ইং তারিখে নেত্রকোনা থানায় নাশকতার অভিযোগে গ্রেফতার হয় ডাকাত বাহিনীর সদস্য মেছের আলী ও ডাকাত সর্দার লাল বাহাদুরের বড় ভাই চাদাবাজী মামলার অপর আসামী আকবর আলী । পরবর্তিতে তারা জামিনে বেরিয়ে আসে । এদিকে এলাকাবাসীর অভিযোগ ওয়ারেন্টভুক্ত আসামীদেরকে গতকাল সন্ধায় গ্রেফতার করে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে । এ বিষয়ে বক্তব্য জানতে তাহিরপুর থানার এসআই পবিত্র কুমার সিনহার সঙ্গে যোগাযোগ করলে তিনি আসামী ছেড়ে দেওয়ার অভিযোগটি অস্বীকার করে জানান, আমরা কোন আসামী ধরতে পারিনি এবং তাদেরকে ধরার চেষ্টা চলছে। এ ব্যাপারে তাহিরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শহীদ উল্লাহ জানান, আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে । অপরদিকে চাদাবাজি মামলার বাদী মো: মাইন উদ্দিন গত ০৮.০২.২০১৫ ইং তারিখে আসামীদের গ্রেফতারসহ প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যাবস্থা গ্রহনের জন্য মহা পুলিশ পরিদর্শক (আই,জি,পি) বরাবর একটি আবেদন দাখিল করেন ।

Pin It on Pinterest

Share This

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. more information

The cookie settings on this website are set to "allow cookies" to give you the best browsing experience possible. If you continue to use this website without changing your cookie settings or you click "Accept" below then you are consenting to this.

Close