জঙ্গিবাদী কর্মকান্ডে জড়িত ছাত্রলীগকে নিষিদ্ধ করা উচিত

ছাত্রফোরামের মতবিনিময় সভায় ডা:ইরান

Halim (1)ছাত্রফোরাম আয়োজিত মতবিনিময় সভায় ২০ দলীয় জোটের নেতা, লেবার পার্টির চেয়ারম্যান ডা: মোস্তাফিজুর রহমান ইরান বলেছেন, দেশব্যাপী শিক্ষাঙ্গনে সন্ত্রাস-নৈরাজ্য, চাদাঁবাজি-টেন্ডারবাজী, ভর্তিবানিজ্য ও চরদখলের ন্যায় হলদখল করে ছাত্রলীগ শিক্ষার পরিবেশ ধংস করেছে। বাকশালী চেতনার মুজিববাদী ছাত্রলীগ আজ হত্যা, খুন, গুম, অপহরনের সাথে যুক্ত হয়ে জঙ্গিবাদী ছাত্রলীগে পরিনত হয়েছে। ছাত্রলীগের অত্যাচার-নিযাতনের কারনে ক্যাম্পাস গুলোতে সাধারন ছাত্র-ছাত্রীরা দিশাহারা পড়েছে। শিক্ষা প্রতিষ্টান আজ লেখাপড়ার পরিবেশ নষ্ঠ হয়ে অস্্র প্রশিক্ষন ও যুদ্ধক্ষেত্রে পরিনত হয়েছে।

তিনি বলেন, দেশের তাবেদার অবৈধ সরকারের খুদ-কুড়ো পুষ্ট বুদ্ধিজীবি-শিক্ষাবীদরা আজ মুখে কুলুপ এটেঁ দিয়েছে। ছাত্রলীগের হত্যার প্রতিযোগীতা ও শিক্ষাধংসের তান্ডবলীলা তাদের স্পর্শ করছে না। দেশ আজ চরম ক্রান্তিকাল অতিক্রম করছে। রাষ্ট্রীয় পৃষ্টপোষকতায় র‌্যাব-পুলিশ-বিজিবি ও দলীয় সন্ত্রাসী বাহীনি দিয়ে সন্ত্রাসের অভয়রন্যে সৃষ্টি করেছে। হাসিনা ওয়াজেদের নেতৃত্বে দেশে দুর্নীতি, দু:শাসন, লুটপাট, হত্যা-গুম-খুন, অপহরন ও গনহত্যার মহোতসব চলছে। অবিলম্বে ছাত্রলীগের জঙ্গিবাদী কর্মকান্ডে জড়িত থাকার অপরাধে নিষিদ্ধ করা উচিত। নতুবা দেশের শিক্ষাব্যবস্থা ধংসস্তুপে পরিনত হবে। তাই তাবেদার স্বৈরাচার সরকার বিরোধী সংগ্রাম জোরদার করতে ছাত্রদল, ছাত্রশিবির ও ছাত্রফোরামসহ দেশপ্রেমিক ছাত্রসমাজকে নিয়ে সর্বদলীয় ছাত্রঐক্য গঠন করা একান্ত প্রয়োজন।

তিনি আজ (শুক্রবার) বিকাল ৪ টায় মেজর জলিল মিলনায়তনে লেবার পার্টি ছাত্রফোরাম ঢাকা মহানগর শাখা আয়োজিত মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তাব্যে একথা বলেন।
মহানগর ছাত্রফোরাম আহবায়ক সৈয়দ মো: মিলনের সভাপতিত্বে সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ লেবার পার্টির চেয়ারম্যান ডা: মোস্তাফিজুর রহমান ইরান। বক্তাব্য রাখেন লেবার পার্টির মহাসচিব হামদুল্লাহ আল মেহেদী, যুগ্ম-মহাসচিব মাহমুদ খান, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মো: আনোয়ার হোছাইন মানিক, ছাত্রফোরাম কেন্দ্রীয় আহ্বায়ক কামরুল ইসলাম সুরুজ, যুগ্ম-আহবায়ক মো: জাবের হোসেন, নগর ছাত্রফোরাম নেতা মো: রাসেল সরকার, মো: তানভির, পারভেজ সিকদার, তপন কুমার দাস প্রমুখ।

লেবার পার্টির মহাসচিব হামদুল্লাহ মেহেদী বলেন, দেশে শিক্ষা ব্যবস্থা আজ ধংসের দ্বারপ্রান্তে। চরদখলের মতো হলদখলের প্রতিযোগীতা চলছে। নীতি-নৈতিকতার মুখ থুবরে পড়েছে। সৎ ও যোগ্যে লোকেরা সমাজে অসহায়ের মতো তাকিয়ে আছে। তাই ছাত্রফোরামকে তৃনমূল পর্যায়ে সংগঠিত হয়ে বেগম খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে তাবেদার সরকার পতনের আন্দোলন সংগ্রামকে বেগবান করতে হবে। হাসিনার পতন ছাড়া হত্যা-গুমের রাজনীতি বন্ধ হবে না।

Pin It on Pinterest

Share This

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. more information

The cookie settings on this website are set to "allow cookies" to give you the best browsing experience possible. If you continue to use this website without changing your cookie settings or you click "Accept" below then you are consenting to this.

Close