ব্যাংককে বাংলাদেশের পতাকা উড়াবে সিলেটের অপু-নোঙাল

Opu Badmintonসুরমা টাইমস ডেস্কঃ এবারের এশিয়ান জুনিয়র ব্যাডমিন্টন চ্যাম্পিয়নশী প্রতিযোগিতায় থাইল্যান্ডের ব্যাংককে বাংলাদেশের পতাকা উড়াবেন সিলেটের দুই তরুন ব্যাডমিন্টন তারাকা। তারা হচ্ছেন, খায়রুল ইসলাম অপু ও মাইবাঙ নোঙগাল।
অপু দক্ষিণ সুরমার কুচাই গ্রামের গেদা মিয়ার ছেলে ও সবুজ সিলেটের স্টাফ রিপোর্টার নুরুল হক শিপুর ছোট ভাই। নোঙগাল শিবগঞ্জ সেনপাড়া আল্পনা ৬৩ নম্বর বাসার চন্দ্র শেখরের ছেলে।
আজ সোমবার সকাল ৯ টায় তারা শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে থাইল্যান্ডের উদ্দেশ্যে বাংলাদেশ ত্যাগ করবে তারা। আগামীকাল মঙ্গলবার ব্যাংক শহরে অনুষ্ঠিতব্য অনুর্ধ্ব-১৭ এশিয়ান ব্যাডমিন্টন প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশ টিমের হয়ে মাঠে নামবে ওই দুই তরুন।
অপু ও নোঙাল ছাড়া এ চেম্পিয়নশীপে দেশের পক্ষে প্রতিনিধিত্ব করবে আরো ২ কিশোর। তারা হলো চট্রগ্রামের রিমন এবং ঢাকার মিনহাজ। এ বছর বাংলাদেশ টিমের পক্ষে সারা দেশের মধ্যে ওই ৪ জন মেধাবী তরুন ওই ম্যাচে খেলার সুযোগ পায়। এর মধ্যে সিলেটের ২ জন হওয়ায় সিলেট ব্যাডমিন্টন অঙ্গনে বইছে আনন্দের বন্যা।
অপু ও নোঙাল বাংলাদেশে অনুষ্ঠিত সর্বশেষ অনুর্ধ্ব-১৪’র জাতীয় ব্যাডমিন্টন চ্যাম্পিয়নশীপের সেমিফাইনালিস্ট। এরমধ্যে অপু তৃতীয়স্থান ও নোঙলি চতুর্থস্থান অর্জনকারী। বাংলাদেশ দলে স্থান করে নেয়া অপু ও নোঙাল সিলেট ব্যাডমিন্টন একাডেমীর খেলোয়াড়। আর অপু সিলেট জেলা দলের নিয়মিত খেলোয়াড় এবং নোঙাল সিলেট শিক্ষা বোর্ডের খেলোয়াড়।
Nungal Badmintonঅনুর্ধ্ব-১৭ বাংলাদেশ দলে স্থান করে নেয়া অপু বলেন, বাংলাদেশের পতাকা হাতে ও জার্সি গায়ে প্রথমবারের মতো আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলতে যাচ্ছেন। এর জন্য তিনি পরিবারের সকল সদস্যদের সহযোগিতা ও জেলা ক্রীড়া সংস্থার সহযোগীতা ও ব্যাডমিন্টন একাডেমীর কোচ শিব্বির আহমদের ঐকান্তিক প্রচেষ্টা রয়েছে বলে অভিমত ব্যক্ত করেন। তিনি আন্তর্জাতিক পর্যায়ে বাংলাদেশের অংশগ্রহণকে স্বীকৃতি দেয়ার আশাবাদ ব্যাক্ত করে বলেন, সিলেটবাসীসহ সমগ্র দেশবাসী আমাদের জন্য দোয়া করলে ইনশাআল্লাহ আমরা বিজয়ী হবো।
সিলেটের আরেক খেলোয়াড় নোঙালের বাবা ও সাবেক ব্যাডমিন্টন খেলোয়াড় চন্দ্র শেখর বলেন, আমার স্বপ্ন ছিল আন্তর্জাতিক পর্যায়ে ব্যাডমিন্টন খেলার। কিন্তু আমি পারিনি। এখন আমার ছেলে খেলতে যাচ্ছে। আমি গর্বিত এবং আনন্দিত। তারা বাংলাদেশের পতাকা উচিয়ে দেশে ফিরবে এমনটাই আশা তার।
জাতীয় ব্যাডমিন্টন ফেডারেশনের কার্যকরী কমিটির সদস্য মাহি উদ্দিন সেলিম জানান, থাইল্যান্ডে অনুষ্টিতব্য এশিয়ান জুনিয়র ব্যাডমিন্টন প্রতিযোগীতায় সুযোগ পাওয়া চার প্রতিযোগীর দু’জনই সিলেটের। একজন ক্রীড়া সংগঠন হিসিবে তাদের সাফল্য কামনা করেন তিনি।
বিশিষ্ট ক্রীড়া সংগঠক ও কাউন্সিলর আজাদুর রহমান আজাদ জানান, বর্তমানে সিলেট ব্যাডমিন্টন তারকাদের মধ্যে তরুন মেধাবী ব্যাডমিন্টন খেলোয়াড় হচ্ছে অপু ও নোঙাল। আমার বিশ্বাস তারা থাইলেন্ডের মাটিতে এশিয়ান জুনিয়র ব্যাডমিন্টন চেম্পিয়নশীপে সিলেট নয় দেশের বিজয় ছিনিয়ে আনতে সক্ষম হবে। তাদের প্রতি আমাদের শুভ কামনা।
এদিকে সিলেট ব্যাডমিন্টন একাডেমী থেকে অপু ও নোঙালকে বিদায়ী সংবর্ধনা ও ফুলেল শুভেচ্ছা জানানো হয়েছে। শনিবার সিলেট জেলা ক্রিড়া কমপ্লেক্স প্রাঙ্গনে এ বিদায়ী সংবর্ধনা ও শুভেচ্ছা প্রদান করা হয়।
এসময় উপস্থিত ছিলেন ব্যাডমিন্টন একাডেমীর পরিচালক ও কোচ শিব্বির আহমদ, পরিচালক মইনুল হক বুলবুল ও আবদুল আলিম শাহ, ফটো জার্নালিস্ট এসোসিয়েশন সিলেটের সভাপতি শেখ আশরাফুল আলম নাসিরসহ একাডেমীর খেলোয়াড়বৃন্দ।
ব্যাডমিন্টন একাডেমীর পরিচালক ও কোচ শিব্বির আহমদ বলেন, ‘আমি নিজে ব্যাডমিন্টন খেলেছি। কিন্তু আন্তর্জাতিক পর্যায়ে কোনো সাফল্য নিয়ে আসতে পারেনি। বাংলাদেশ দলের ৪ জনের মধ্যে সিলেটের ২ জন স্থান পেয়েছে। এ দুজনই সিলেট ব্যাডমিন্টন একাডেমীর প্রশিক্ষণার্থী। এজন্য আমি গর্বিত।’ তিনি বলেন, অপু ও নোঙাল আন্তর্জাতিক পর্যায়ে দেশের হয়ে ব্যাডমিন্টনকে আরো এগিয়ে নিয়ে যাবে এমনটাই আশাবাদ তার।

Pin It on Pinterest

Share This

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. more information

The cookie settings on this website are set to "allow cookies" to give you the best browsing experience possible. If you continue to use this website without changing your cookie settings or you click "Accept" below then you are consenting to this.

Close