আব্দুর রাজ্জাক সহ কারাবন্দি নেতাকর্মীদের অবিলম্বে মুক্তি দিতে হবে

 ——– এডভোকেট এম নুরুল হক

সিলেট জেলা বিএনপির আহ্বায়ক জননেতা এডভোকেট এম নুরুল হক বলেছেন, ভোটার বিহীন প্রহসনের নির্বাচনের মাধ্যমে মতা দখলকারী বর্তমান ফ্যাসিবাদী সরকার গণতন্ত্রকে হত্যা করে নিজেদের মতা পাকাপোক্ত করতে চায়। আওয়ামীলীগ মুক্তিযুদ্ধের দোহাই দিয়ে মতা দখল করতে চায়। অথচ প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধাদের অসম্মান করে ভূয়া হাইব্রিড মুক্তিযোদ্ধা সৃষ্টি করছে। এরই ধারাবাহিকতায় বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রাজ্জাককে মিথ্যা মামলায় কারাবন্দি করে রেখেছে। অবৈধ এই সরকার সারাদেশে বিএনপি নেতাকর্মীদের গুম, হত্যা, নির্যাতন করে ত্রাসের রাজত্ব কায়েমের মাধ্যমে একদলীয় বাকশাল কায়েমের অপচেষ্ঠা করছে। কিন্তু তাদের এই দিবা স্বপ্ন শহীদ জিয়ার আদর্শের সৈনিকরা বেচে থাকতে পূরণ হতে দেবে না। তাই দেশের গণতন্ত্র ও রাজনৈতিক শিষ্টাচার রার স্বার্থে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া, তারুণ্যের অহংকার জননেতা তারেক রহমান সহ সকল নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করতে হবে, বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক জননেতা এম ইলিয়াস আলী সহ গুম হওয়া নেতৃবৃন্দকে ফিরিয়ে দিতে হবে এবং আব্দুর রাজ্জাক সহ সকল কারবন্দি নেতাকর্মীদের অবিলম্বে মুক্তি দিতে হবে। অন্যথায় গণবিস্ফোরণের মুখে অবৈধ সরকারকে বিদায় নিতে হবে।

তিনি গতকাল বৃহস্পতিবার বিকালে সিলেট জেলা বিএনপির উদ্যোগে স্থানীয় কোর্ট পয়েন্টে জেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক ও সিলেট জেলা মুক্তিযোদ্ধা দলের আহ্বায়ক বীরমুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রাজ্জাক সহ নেতাকর্মীদের মুক্তির দাবীতে আয়োজিত বিােভ সমাবেশে সভাপতির বক্তব্যে একথা বলেন।
জেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক আলী আহমদের পরিচালনায় সমাবেশে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সিলেট জেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক ও সাবেক এমপি দিলদার হোসেন সেলিম, এডভোকেট আব্দুল গফফার, আবুল কাহের চৌধুরী শামীম, এডভোকেট আশিক উদ্দিন, এডভোকেট আখতার হোসেন খান, মাহবুবুর রব চৌধুরী ফয়সল, এডভোকেট আনোয়ার হোসেন, এডভোকেট শামীম সিদ্দিকী, সোরমান আলী, মামুন রশীদ মামুন, নাজিম উদ্দিন লস্কর, মহবুব চৌধুরী, তাজরুল ইসলাম তাজুল, এডভোকেট হাসান আহমদ পাটোয়ারী রিপন, সোহাদ রব চৌধুরী, এডভোকেট মুজিবুর রহমান, ইউনুস মিয়া, এডভোকেট আল আসলাম মুমিন, আবুল কাশেম, মাসুক এলাহী, ইসমাইল হোসেন, শাহ মাহমুদ আলী, মনিরুল ইসলাম তুরন, এডভোকেট ফখরুল হক, মাহবুবুর রহমান চৌধুরী, আব্দুল লতিফ, দিদার ইবনে তাহের লস্কর, এডভোকেট ওবায়দুর রহমান ফাহমি, রজব আলী, আসাদ মিয়া, সেলিম আহমদ, আজির উদ্দিন, আশরাফ বাহার, আব্দুল হান্নান, মোঃ লিমন, নজরুল ইসলাম রাজু, চান মিয়া, শাহ জুনেদ, মালিক আহমদ, ফখরুল ইসলাম, সুহেল ইবনে রাজা, জুনেদ আহমদ প্রমুখ। বিজ্ঞপ্তি

Pin It on Pinterest

Share This

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. more information

The cookie settings on this website are set to "allow cookies" to give you the best browsing experience possible. If you continue to use this website without changing your cookie settings or you click "Accept" below then you are consenting to this.

Close