আলেম সমাজকে কটুক্তির প্রতিবাদে প্রধানমন্ত্রী বরাবরে স্মারক লিপি

Sharok lipi prodan copyউত্তম কুমার পাল হিমেল,নবীগঞ্জ(হবিগঞ্জ)থেকেঃ হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ উপজেলার তাহিরপুর মাদ্রাসা প্রাঙ্গনে এক অনুষ্টানে সমাজকল্যান মন্ত্রী সৈয়দ মহসিন আলী,আলেম সমাজকে নিয়ে দেয়া কটুক্তিপুর্ণ বক্তব্যের প্রতিবাদে নবীগঞ্জে আলেম সমাজ সম্মিলিত ইসলামী সংগ্রাম পরিষদের ব্যানারে ঘোষিত কর্মসুচী অনুযায়ী গতকাল রবিবার সকালে মৌন মিছিলসহকারে মন্ত্রীকে অপসারনের দাবী জানিয়ে প্রধানমন্ত্রীর বরাবরে লেখা স্মারকলিপি নবীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ে প্রদান করেছেন। এ সময় নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ লুৎফর রহমান অনুস্থিত থাকায় তার পক্ষে অফিস সুপার নুরুল ইসলাম চৌধুরী স্মারক লিপিটি গ্রহন করেছেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন,নবীগঞ্জ সম্মিলিত ইসলামী সংগ্রাম পরিষদেও সভাপতি মাওঃ কাজী হাসান আলী,সদস্য সচিব মাওঃ আব্দুর রকিব হক্কানী,কোষাধ্যক্ষ মাওঃ মোস্তফা আল হাদী, মাওঃ আব্দুল মুকিত পাঠান, মাওঃ এম এ নুর, মাওঃ আলহাজ্ব সাজ্জাদুর রহমান,মাওঃ জুবায়ের আহমদ,মাওঃ সামছুল হক, মাওঃ হাবিবুর রহমান জিহাদী, ক্বারী আব্দুল মুছাব্বীর, হাফেজ নুরুল হাদী বানী ও হাফেজ আব্দুল হাই প্রমূখ। প্রধানমন্ত্রী বরাবরে লেখা স্মারক লিপিতে তারা উল্লেখ করেন,সমাজকল্যাণ মন্ত্রী সৈয়দ মহসিন আলী কেবিনেটের সদস্য হওয়ার পর থেকেই ইসলাম ও ,ইসলামী মূল্যবোধ ও মাদ্রাসা শিক্ষার বিরুদ্ধে অশালীন,অশোভন,কটুক্তি এবং মুসলিম উম্মার ঈমান আক্বিদার মুলে চরম কুঠারাঘাত করে ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের হৃদয়ে মারাত্বক ক্ষোভের সৃষ্টি করে যাচ্ছেন। তার বেসামাল বক্তব্যে ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের ধৈর্য্যরে বাঁধ ভেঙ্গে দিচ্ছে। স্মারক লিপিতে উল্লেখ করা হয়,গত ২রা আগষ্ট নবীগঞ্জের তাহিরপুর মাদ্রাসা মাঠে এক অনুষ্টানে সমাজকল্যাণ মন্ত্রী নায়েবে নবী হিসেবে খ্যাত উলামা সমাজ,আলেম তৈরীর কারখানা রাসুল (সঃ) এর বাগান মাদ্রাসা ও মাদ্রাসা শিক্ষা এবং কোরআনকে নিয়ে দৃষ্টতাপূর্ণ অশালীন বক্তব্য অমার্জনীয় ও মুসলিম উম্মার ঈমান আক্বীদায় আঘাত করেছে। স্মারক লিপিতে প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আর্কষন করে বলেন,বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম মুসলিম দেশ প্রিয় মাতৃভুমি বাংলাদেশ। শতকরা ৯০ ভাগ মুসলিম অধ্যুষিত এই দেশের একজন ধর্মপ্রাণ প্রধানমন্ত্রী হিসেবে আপনী মদিনার সনদের ভিত্তিতে দেশ পরিচালনার ঘোষনা দিয়েছেন। এদেশের মুসলমানদের ধর্মীয় মুল্যবোধ সৃষ্টিতে মূখ্য ভুমিকা পালনকারী মাদ্রাসা শিক্ষাকে যুগোপযোগী,আধুনিকায়ন ও মানোন্নয়নের মাধ্যমে সাধারণ শিক্ষার সাথে সমতা সৃষ্টিতে আপনার সরকারের অবদান কোন অংশে কম নয়। এদেশে জন্ম, মৃত্যু,বিবাহ-শাদীসহ অন্যান্য সকল ধর্মীয় অনুষ্টানে ওলামায়ে কেরামদের ভুমিকা অনস্বীকার্য। আর এসব আলেম ওলামাদের নিয়ে সমাজকল্যাণ মন্ত্রীর কটুক্তিপুর্ণ,অশালীন বক্তব্য দুঃখ জনক। এর প্রেক্ষিতে দলমত নির্বিশেষে সর্বস্তরের ধর্মপ্রাণ মুসলমানদের পক্ষ থেকে তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদের ঝড় উঠেছে। গঠিত হয়েছে সম্মিলিত ইসলামী সংগ্রাম পরিষদ। উক্ত পরিষদের ঘোষিত দু’দিনের র্কমসুচীর দ্বিতীয় ও সমাপনী দিনে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবরে দেয়া স্মারক লিপিতে সরকার ও দেশের স্বার্থে বেসামাল সমাজকল্যাণ মন্ত্রীকে মন্ত্রী পরিষদ থেকে অপসারনের জন্য প্রধানমন্ত্রীর নিকট জোর দাবী জানানো হয়। অন্যতায় আরো কঠুর কমূসুচী নিয়ে মাঠে নামার ঘোষনা দিয়েছেন সম্মিলিত ইসলামী সংগ্রাম পরিষদের নেতারা।

Pin It on Pinterest

Share This

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. more information

The cookie settings on this website are set to "allow cookies" to give you the best browsing experience possible. If you continue to use this website without changing your cookie settings or you click "Accept" below then you are consenting to this.

Close