কানাইঘাটে দখল পাল্টা দখল নিয়ে সংঘর্ষ : একই পরিবারের ৮জন সহ আহত ১১

Pic aspকানাইঘাট প্রতিনিধিঃ গতকাল বুধবার ভোরে কানাইঘাট পৌর শহরে ডালাইচর মৌজায় অবস্থিত বিরোধপূর্ণ বিটবাড়ী শ্রেণির ৪০লক্ষ টাকা মূল্য এক খন্ড জমির দখল পাল্টা দখলকে কেন্দ্র করে দু’পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষে উভয় পক্ষের মহিলা ও শিশুসহ ১১জন আহত হয়েছেন। ভাংচুর করা হয়েছে টিন সেটের বসত ঘর ও আসবাবপত্র। আহতদের মধ্যে একই পরিবারের ৭জনকে সিলেট ওমেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনার খবর পেয়ে গতকাল বুধবার বিকেল ৫টায় সিলেট উত্তর সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার মহি উদ্দিন, শিক্ষানবিশ এ.এস.পি নাসরিন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। এ সময় সহকারী পুলিশ সুপার মহি উদ্দিন কানাইঘাট থানার অফিসার ইনচার্জ আব্দুল আউয়াল চৌধুরীকে বিরোধপূর্ণ এ ভূমি খন্ডটির চলমান মামলা আদালতে নিষ্পত্তির মাধ্যমে রায় না হওয়া পর্যন্ত কোন পক্ষই যাতে দখল করতে না পারে শান্তিশৃঙ্খলার লক্ষ্যে এ ব্যাপারে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দেন। জানা যায়, ডালাইচর মৌজায় অবস্থিত প্রায় ১৭শতক জমির মালিকানা নিয়ে কানাইঘাট সদর ইউনিয়নের চটিগ্রামের বাসিন্দা সিলেট এম.সি কলেজের প্রফেসার শাহজাহান কবির এবং বিষ্ণুপুর গ্রামের মৃত মাহমুদ আলীর পুত্র আলিম উদ্দিন বীন আলি রাজা গংদের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। এ নিয়ে থানায় ও আদালতে মামলা মোকদ্দমা ও চলছে। বিরোধপূর্ণ এ জমি সহ মোট ৩৬শতক জমি দলিল মূলে চটিগ্রামের বাসিন্দা সিলেট জেলার সাবেক শিক্ষা অফিসার মৃত আব্দুর রহমান ডালাইচর গ্রামের নাছির উদ্দিনের গংদের কাছ থেকে দলিলমূলে খরিদ করেন। উক্ত জমি খন্ডটি খরিদধারের পরিবারের দখলে ছিল দীর্ঘদিন। কিন্তু উক্ত ভূমির ১৭ শতক জমি উত্তরাধিকার সূত্রে আলিম উদ্দিন বীন আলী রাজা তার দাদীর পৈতৃক সম্পত্তি দাবী করে জমি খন্ডটির একাংশে টিনসেটের সানি ঘর তৈরী করে কয়েক মাস ধরে পরিবারের সদস্যদের নিয়ে দখল করে বসবাস করে আসছিলেন। এ নিয়ে উভয় পক্ষের মধ্যে বার বার উত্তেজনা বিরাজ করায় বিষয়টি সমাধানের লক্ষ্যে কানাইঘাট থানায় এবং সামাজিকভাবে বেশ কয়েকদফা বৈঠক হয়। কিন্তু কোন নিষ্পত্তি না হওয়ায় গতকাল বুধবার ভোর রাত অনুমানিক ৫টার দিকে ভূমি খন্ডটির দলিল মূলে মালিক শাহজাহান কবিরের পক্ষের লোকজন আলিম উদ্দিন বীন আলীরাজার পরিবারের লোকজনকে তাড়িয়ে দিয়ে ভূমি খন্ডটি দখল মুক্ত করতে চাইলে দু’পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হয়। উভয় পক্ষ দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র, ইট-পাটকেল নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়লে আহত হন আলিম উদ্দিন বীন আলীরাজার পরিবারের সদস্য ফাতিমা বেগম (২৪), আমিনা বেগম (৩৫), আনিসুল হক (৬০), মাওঃ নিজাম উদ্দিন (৩০), মাওঃ শরিফ উদ্দিন (২৩), ১২ বছরের শিশু নাইমা বেগম, ৮ বছরের শিশু আশরাফুল। আহত এ ৭জনকে কানাইঘাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য সিলেট ওমেক হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। অপরদিকে একই পরিবারের ফরিদা বেগম (৩০), অপর পক্ষের আহত বীরদল পুরানফৌদ গ্রামের বুরহান উদ্দিন (২৫) কে ওমেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহত একই পক্ষের নজরুল ইসলাম (২৮), শাহেদ আহমদ (৪০)কে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। দখল পাল্টা দখলের সময় টিন সেটের বসতঘর ও আসবাবপত্র ব্যাপক ভাংচুর করা হয়। খবর পেয়ে কানাইঘাট থানা পুলিশ সকালে ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি শান্ত করেন। এ ঘটনায় উভয় পক্ষ মামলা দায়েরের প্রস্তুতি নিচ্ছে বলে জানা গেছে।

Pin It on Pinterest

Share This

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. more information

The cookie settings on this website are set to "allow cookies" to give you the best browsing experience possible. If you continue to use this website without changing your cookie settings or you click "Accept" below then you are consenting to this.

Close