এবার জালালাবাদ থানার ওসিকে একমাসের আলটিমেটাম

jalalabad thana open house dayসুরমা টাইমস রিপোর্টঃ দক্ষিণ সুরমার থানার ওসিকে মাদক নির্মূলে ৩ দিনের আলটিমেটাম দেয়ার পর এবার সিলেটের জালালাবাদ থানার ওসিকে একমাসের আলটিমেটাম দিলেন সিলেটের পুলিশ কমিশনার মিজানুর রহমান। সোমবার দুপুরে জালালাবাদ থানা প্রাঙ্গনে অনুষ্ঠিত ওপেন হাউস ডেতে তিনি এই আলটিমেটাম দেন। একমাসের মধ্যে মাদক নির্মূল করতে না পারলে জালালাবাদ থানার ওসি গৌছুল হোসেনের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে বলেও হুশিয়ারি উচ্চারণ করেন পুলিশ কমিশনার।
পুলিশ কমিশনার বলেন,‘একমাসের মধ্যে জালালাবাদ থানাধীন শিবেরবাজারকে মাদকমুক্ত করতে হবে এবং তেমুখী পয়েন্টকে যানজটমুক্ত করতে হবে। অন্যথায় আপনার (ওসি গৌছুল হোসেন) বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।’
সোমবার দুপুরে অনুষ্ঠিত এই ওপেন হাউজ ডেতে জালালাবাদ থানার পক্ষ থেকে গত প্রায় দেড় বছরে তাদের দ্বারা আটককৃত বিভিন্ন জিনিসের খতিয়ান তুলে ধরা হয়।
২০১৩ সাল থেকে এই বছরের ২৬ মে পর্যন্ত সময়ে জালালাবাদ থানা কর্তৃক ২৯ জন ডাকাত, ৩৯ জন চোর, ১৩ জন ছিনতাইকারি, ১৭ জন মাদকবিক্রেতা, ৬টি চোরাই মটরসাইকেল, ২টি চোরাই সিএনজি, ১টি চোরাই পিকআপ ভ্যান, ৫০ বোতল ফেন্সিডিল, ১৩ কেজি গাঁজা, ২৫ লিটার দেশীয় মদ, ৩৬৬ বোতল ভারতীয় অফিসার্স চয়েজ মদ, পরিত্যক্ত ২টি পাইপগান, একটি দেশীয় পিস্তল উদ্ধার/আটক করা হয়েছে বলে উল্লেখ করা হয়।
ওপেন হাউস ডেতে উপস্থিত ছিলেন বিজিবি-৫ এর অধিনায়ক মেজর দেবাশীষ নারায়ণ পাল, উপ-পুলিশ কমিশনার (উত্তর) এজাজ আহমদ, অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার (উত্তর) রহমত উল্লাহ, জালালাবাদ থানার সহকারি পুলিশ কমিশনার রাজন দাশ, আওয়ামী লীগ নেতা অধ্যক্ষ সুজাত আলী রফিক, টুকেরবাজার ইউপি চেয়ারম্যান শহীদ মিয়া, মোগলগাঁও ইউপি চেয়ারম্যান সামছুল ইসলাম প্রমুখ।

Pin It on Pinterest

Share This

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. more information

The cookie settings on this website are set to "allow cookies" to give you the best browsing experience possible. If you continue to use this website without changing your cookie settings or you click "Accept" below then you are consenting to this.

Close