যেসব কারণে নারীরা যৌন ক্রিয়ায় লিপ্ত হয়!

sexbdসুরমা টাইমস বিনোদনঃ যৌনক্রিয়া সম্পর্কে প্রাপ্ত বয়স্কদের প্রায় বেশীর ভাগেরই কিছু না কিছু জানা থাকে। কিন্তু যৌন ক্রিয়ার কারন সম্পর্কে সাধারন একটি মতই সর্বসাধারন গ্রাহ্য, আর সেই কারণটি হচ্ছে- যেহেতু যৌন চাহিদা মানুষের জৈবিক চাহিদা। পূর্ণ বয়স্ক হওয়ার সাথে সাথে সবারই মৌলিক চাহিদা গুলোর সাথে একটি নতুন চাহিদা যোগ হয় আর তা হল দৈহিক চাহিদা, আর এই চাহিদা মেটানোর কারনেই নারী-পুরুষ মিলিত হয় যৌন ক্রিয়ায়। এটিই মূল কারন। এছাড়াও যদি কিছু কারণ বলতে হয়, তবে বলা যায়- ভালবাসা/রোমান্সের প্রভাবে আবেগ তাড়িত হয়ে, আনন্দ লাভের উদ্দেশ্যে, সন্তান লাভের আশায় ইত্যাদি কারণে নারীপুরুষ লিপ্ত হয় আদিম লালসায়।
যৌনক্রিয়ার কারনের পাশাপাশি অজুহাতও থাকে, যেমন- পারিবারিক ঝগড়া ও কলহ মেটানোর জন্য স্বামী স্ত্রীর ইচ্ছাকৃত যৌন মিলন। তবে কি নারী-পুরুষের যৌন লালসায় লিপ্ত হওয়ার কারণগুলো ভিন্ন হতে পারে? ভিন্ন তো হয়ই, নারীদের যৌনক্রিয়ার কারণগুলো পুরুষদের চেয়ে অনেক বেশি বৈচিত্র্যময়ও হয়। এটি কিন্তু কারও মুখের কথা নয়। এক গবেষণা থেকে দেখা গেছে, শুধুমাত্র পুরুষদের চেয়ে বৈচিত্র্যময়ই নয়, নারীদের নিজেদের ভেতরেও যৌন ক্রিয়ার কারণে রয়েছে ভিন্নতা। ক্লিনিক্যাল সাইকোলজিস্ট সিন্ডি মেস্টন এবং ইভোল্যুশনারি সাইকোলজিস্ট ডেভিড বাস সারা পৃথিবীর ১০০৬ জন নারীর সাথে কথা বলে ২৩৭ টি আলাদা কারণ বের করেছেন। এরমধ্যে অনেক কারণে মেয়েরা একমত আবার অনেক ভিন্ন ভিন্ন কারনেও তারা সেক্স করে থাকেন। মেস্টন ও বাস নারীদেরযৌন-প্রেষণাগুলোকেস্বাভাবিকভাবেই তিন ক্যাটাগরিতে বিভক্ত করেছেন: শারিরীক, আবেগীয় এবং বস্তুবাদী কারণ।
প্রেষণার মধ্যে এমন কিছু বিষয় ছিল যা গবেষণাকারীদেরকেও অবাক করেছে। নিজের আত্মবিশ্বাস বাড়ানো থেকে শুরু করে সেল্ফ এস্টিম বৃদ্ধিকরা, প্রেমিককে ধরে রাখা এমনকি জোর-জবরদস্তির শিকার হওয়া পর্যন্ত। চলুন জেনে আসা যাক মেয়েদের যৌন ক্রিয়ায় অংশগ্রহন করার প্রধান কয়েকটি কারনঃ
১. মূলত দৈহিক কামনা বাসনা মেটানোর জন্যই নারীরা যৌন ক্রিয়ায় লিপ্ত হয়। গবেষণায় প্রায় সকল নারীই এ বিষয়ে একমত হয়েছেন। ইন্দ্রিয়ের যে সুখ তা উপলব্ধি করতেই এই যৌন মিলন, যা চলে আসছে শতাব্দীর পর শতাব্দী থেকে।
২. ভালবাসায় পাগল হয়ে তীব্র আকর্ষণ থেকেই অনেকে সেক্সে লিপ্ত হন। প্রেমে পড়লে আবেগতাড়িত হয়ে প্রেমলীলায় মত্ত হয়নি এরকমজুটি খুঁজে পাওয়া দুস্কর। গবেষণায়ও তা ফুটে উঠেছে।
৩. আগে একটি ধারণা ছিল মেয়েরা যৌন ক্রিয়ায় মিলিত হয় ভালবাসার টান থেকেই, ভালবাসার টান ছাড়া পুরুষের সাথে সেক্সে আগ্রহী হয় না নারী। কিন্তু গবেষণায় তা ভুল প্রমানিত করেছে, এতে দেখা গেছে বেশীরভাগ নারীরা কোন ধরণের রোমান্টিক রিলেশনশিপ না থাকা অবস্থায় শুধুই ইন্দ্রিয় সুখের জন্য সেক্স করতে আগ্রহী। তবে যদি কারও সাথে সম্পর্ক থাকে মেয়েদের তবে তারা তাদের প্রেমিকের সাথেই সেক্স করতে পছন্দ করে, প্রেমিককে ঠকিয়ে অন্য কারও সাথে সেক্সে লিপ্ত হতে চায় না অধিকাংশ নারীই।
৪. অনেক নারীই তাদের সঙ্গীদের সকল ধরণের যৌন চাহিদামেটানো দায়িত্ব বলে মনে করে। সেক্ষেত্রে আবেগতাড়িত না হয়েও প্রেমিকের প্রতি দায়িত্ব থেকেই সেক্সে লিপ্ত হয়।
৫. মেয়েরা নিজেদের প্রেমিককে ধরে রাখার জন্যেও সেক্স করে। অনেক সময় দেখা যায় প্রেম আর কাজ করছে না বা স্তিমিত হয়ে গেছে। তখন নিজের আবেগের চেয়ে বড় হয়ে দাড়ায় প্রেমিককে ধরে রাখার প্রচেষ্টা। প্রেমিকের আবেদনে সাড়া না দিলে সে ছেড়ে চলে যেতে পারে, এইধারণা থেকে অনেক সময়ই অনিচ্ছা সত্ত্বেও সাড়া দেয় নারীরা।
৬. অনেক পুরুষরা নাকি সেক্সের ব্যাপারে নারীদের ব্ল্যাকমেইল করেন। যদি নারী সেই নির্দিষ্ট পুরুষের সাথে যৌন সম্পর্কে না জড়ায় তাহলে ঘরের জরুরী কাজ করবে না পুরুষটি। তাই কিছু নারী এইসব ব্ল্যাকমেলার সাথে অনিচ্ছায় সম্পর্কে জরালেও, অনেকেই এটাকে মেনে নিয়ে বরং এটাকে সেক্সের জন্য প্রকাশ ভঙ্গি হিসেবে ধরে নেন।
৭. নারীদের মন বরাবরই নরম হয়। অন্যের দুঃখ সবচেয়ে ভাল ভাবে অনুধাবন করার চেষ্টা নারীরাই বেশী করে থাকে। আর সেই চেষ্টা থেকেই মানসিকভাবে ভেঙে পড়া কোন পরিচিতজনকে সান্তনা দেয়ার জন্যও নাকি ললনারা সেক্স করে থাকে।
৮. প্রেমের সম্পর্ক থেকে অনেকে দৈহিক সম্পর্কে জড়ান তীব্র আবেগে। তখন ভুলে যান যে তার সঙ্গী আসলেই কতটুকু যোগ্য তার জন্য। কিন্তু কিছু দিন পর আবেগ কেটে গেলেই নিজের ভুল বুঝতে পারেন এবং তা শোধরানোর চেষ্টা করেন। আর এই সময়ই কিছু নারী প্রেমিকের ক্লান্তি থাকা সত্ত্বেও জোড়-জবরদস্তি করে সেক্স করার জন্য, যেন পার্টনার বিরক্ত হয়ে ব্রেক-আপ করে এবং পূরণ হয় তার আসল বাসনা।
৯. দৈহিক সম্পরকের সাথে আছে শারীরিক কিছু রোগের অদ্ভুত যোগসূত্র। যেমন-মাথা ব্যাথা সহ আরো অনেক শারিরীক সমস্যার চিকিৎসা হিসেবেও নাকি অনেকে সেক্স করে থাকে।
১০. অনেক সময় নারী এমন পুরুষের প্রতি আকৃষ্ট হয় যার সাথে অন্য নারীর সম্পর্ক আছে। প্রেম তো আর বাঁধা মানে না, যে কোন মুল্যেই অই পুরুষকে পেতে হবে এমন জিদ থেকেই অনেক সময় নারীরা সেক্স করে থাকে।এ ক্ষেত্রে আরেকটি উদ্দেশ্য থাকে যে, পুরুষটি তার ‘পারফরমেন্সে’ সন্তুষ্ট হয়ে বা অন্য কোন কারণে তার আগের প্রেমিকাকে ত্যাগ করে নতুন নারীকে স্বীকৃতি দিবে।
১১. অনেক সময় নারীরা কিছু লাভের আশায় সেক্সে লিপ্ত হয়। এ সময় তাদের মাথায় কোন ধরনের পাপ চিন্তা থাকে না। তারা সাধারন ভাবে চিন্তা করতে থাকে একটি কথাইঃ ‘কিছু পেতে হলে কিছু দিতে হয়’।- তা কি পাওয়ার জন্য তারা উন্মত্ত যৌনক্রিয়ায় লিপ্ত হয়? পদোন্নতির জন্য, টাকার জন্য, উপহার পাওয়ার লোভে,প্রেমিকের ওপর কোনকারণে ক্ষিপ্ত হয়ে গোপন প্রতিশোধ হিসেবে ইত্যাদি কারণে।

Pin It on Pinterest

Share This

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. more information

The cookie settings on this website are set to "allow cookies" to give you the best browsing experience possible. If you continue to use this website without changing your cookie settings or you click "Accept" below then you are consenting to this.

Close