বর্ষবরণের নামে অশ্লীলতা বেয়াপনা ও অনৈসলামিক কর্মকান্ড রোধে ইমাম খতীবদের অগ্রণী ভূমিকা পালন করতে হবে

সিলেট মহানগর ইমাম সমিতির মতবিনিময় সভা

Imam Somity 1 Boishak Photo-9-04-14বাংলা নববর্ষ ও পহেলা বৈশাখকে সামনে রেখে বর্ষ বরণের নামে বিজাতীয় ব্রাহ্মণ্যবাদী ও পশ্চিমাদের অনুকরণে অশ্লীলতা, বেহায়াপনা, বেলেল্লাপনা ও অনৈসলামিক কর্মকান্ড একটি সামাজিক ভাইরাসে রূপ লাভ করেছে। এসব নোংরা অপসংস্কৃতি আমাদের যুব সমাজকে অবাধে মেলামেশার সুযোগ করে দিয়ে তাদেরকে নৈতিক অবক্ষয়ের দ্বার প্রান্তে নিয়ে যাচ্ছে। নববর্ষ উদযাপনের নামে যুবক-যুবতীদের অর্ধ-উলঙ্গ করে রাস্তায় নামিয়ে দিয়ে তাদেরকে শুধু উন্মাদনার দিকে ঠেলে দেয়া হচ্ছে না, মুসলমানদের ঈমান ও আক্বিদা বিনষ্টের সুদুরপ্রসারী ষড়যন্ত্র বাস্তবায়িত হচ্ছে। এসব অপকর্ম শুধু সামাজিক অবক্ষয়ের সৃষ্টি করে না, এসব কুকর্ম ভয়াবহ আযাব ও গযবের কারণ হতে পারে। পৌত্তলিকতা ও চরিত্র হননের নোংরা অপসংস্কৃতির ভয়াল থাবা থেকে যুব সমাজকে রক্ষায় ইমাম, খতীব এবং সচেতন অভিভাবকদেরকে অগ্রণী ভূমিকা পালন করতে হবে।
গতকাল বুধবার বাংলাদেশ জাতীয় ইমাম সমিতি সিলেট মহানগর কর্তৃক আয়োজিত “বর্ষ বরণের নামে অনৈসলামিক কার্যকলাপ বন্ধে ইমাম, খতীব ও সুধীবৃন্দের সাথে” অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় বক্তারা উপরোক্ত কথা বলেন। সিলেট মহানগর ইমাম সমিতির সভাপতি মাওলানা হাবিব আহমদ শিহাবের সভাপতিত্বে ও সেক্রেটারী মাওলানা সিরাজুল ইসলাম, সহ-সেক্রেটারী মাওলানা সোহাইব আহমদ ও নূর আহমদ কাসিমীর যৌথ পরিচালনায় অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ ও সমাজসেবী লে: কর্ণেল (অব.) সৈয়দ আলী আহমদ। প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন ইমাম প্রশিক্ষণ একাডেমী সিলেটের উপ-পরিচালক শাহ মো: নজরুল ইসলাম। প্রধান আলোচক হিসেবে বক্তব্য রাখেন বিশিষ্ট আলেমে দ্বীন মাওলানা মুফতি আতাউল হক জালালাবাদী। নগরীর একটি অভিজাত রেষ্টুরেন্টের হল রুমে অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন ইসলামী ঐক্যজোট সিলেট মহানগর সভাপতি মুফতি ফয়জুল হক জালালাবাদী, হাজী কুদরত উল্লাহ হাফিজিয়া মাদ্রাসার প্রিন্সিপাল হাফিজ মিফতাহুদ্দিন, মহানগর ইমাম সমিতির সিনিয়র সহ-সভাপতি মাওলানা ওয়ারিছ উদ্দিন, ইসলামী ঐক্যজোট সিলেট জেলা সিনিয়র সহ-সভাপতি প্রিন্সিপাল মাওলানা জহুরুল হক, মহানগর ইমাম সমিতির সহ-সভাপতি মাওলানা আব্দুল মান্নান জালালাবাদী ও মাওলানা আহমদ হোসেন। স্বাগত বক্তব্য রাখেন জেলা ইমাম সমিতির সেক্রেটারী মাওলানা এহসান উদ্দিন। ক্বারী আব্দুল্লাহ আল মামুনের পবিত্র কোরআন তেলাওয়াতের মধ্য দিয়ে সূচিত মতবিনিময় সভায় হামদ পেশ করেন মাওলানা আবিদ হাসান। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন মাওলানা শহিদ আহমদ, মাওলানা আব্দুর রহমান, মাওলানা কাওছার আহমদ, মাওলানা জামাল উদ্দিন, মাওলানা মোহাম্মদ আলী, মাওলানা এখলাছুর রহমান প্রমুখ। সভায় সিলেটের বিভিন্ন মসজিদের ইমাম, খতীব, মোয়াজ্জিন ছাড়াও বিপুল সংখ্যক আলেম উলামা এবং বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন।
মতবিনিময় সভায় বর্ষ বরণের নামে অশ্লীলতা ও বেহায়াপনা রোধে যুব সমাজ এবং অভিভাবকদের সচেতন করতে আগামী শুক্রবার জুম্মার খুতবায় এ ব্যাপারে আলোচনা রাখার জন্য ইমাম ও খতীবদের প্রতি আহবান জানানো হয়। এছাড়া সরকারের প্রতি নিম্নলিখিত দাবী জানানো হয়।
(১) মঙ্গল শোভাযাত্রা, মঙ্গল প্রদীপ ও মোমবাতি প্রজ্জ্বলনের মতো শিরকী প্রথা বন্ধ (২) আধ্যাত্মিক রাজধানী খ্যাত সিলেট নগরীতে লটারীর নামে প্রকাশ্যে জুয়া বন্ধ এবং মেলার নামে জুয়া-হাউজি, অশ্লীল নৃত্য যাত্রাসহ অনৈসলামিক কার্যকলাপ বন্ধ (৩) বর্ষ বরণের নামে বেফাস উন্মাদনা ও বেলেল্লাপনা বন্ধ (৪) নারী-পুরুষের অবাধ মেলামেশা ও সম্মিলিত নাচ-গান বন্ধ এবং (৫) স্কুল-কলেজের ছাত্রছাত্রীদেরকে বর্ষ বরণের নামে নাচ-গান করতে বাধ্য করা থেকে বিরত রাখার জন্য সরকারের প্রতি আহবান জানানো হয়।

Pin It on Pinterest

Share This

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. more information

The cookie settings on this website are set to "allow cookies" to give you the best browsing experience possible. If you continue to use this website without changing your cookie settings or you click "Accept" below then you are consenting to this.

Close