ব্লগার-প্রকাশক হত্যা মানবতা ও রাষ্ট্রবিরোধী, বললেন খালেদা

khaleda Ziaডেস্ক রিপোর্টঃ বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া বলেছেন, যারা বিদেশি নাগরিক, ধর্মগুরু হত্যা, উপাসনালয়ে হামলা, ব্লগার ও প্রকাশক হত্যায় জড়িত, তারা মানবতা, সভ্যতা ও আধুনিক রাষ্ট্রবিরোধী। এ জন্য তিনি বর্তমান সরকারের ‘দুঃশাসনকে’ দায়ী করেছেন।

পঞ্চগড়ে সন্তগৌড়ীয় মঠের প্রধান পুরোহিত ও অধ্যক্ষ যজ্ঞেশ্বর রায়কে গলা কেটে হত্যার তীব্র ক্ষোভ ও নিন্দা জানিয়ে দেয়া বিবৃতিতে এমনটি বলেছেন বেগম খালেদা জিয়া। মঙ্গলবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) গণমাধ্যমে এই বিবৃতি প্রেরণ করা হয়।

দপ্তরের দায়িত্বপ্রাপ্ত দলটির যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভােকেট রুহুল কবির রিজভী স্বাক্ষরিত ওই বিবৃতিতে খালেদা জিয়া বলেন, ‘বাংলাদেশে ভাষা-সংস্কৃতি, ঐতিহ্য এবং সাহিত্য থেকে শুরু করে সঙ্গীত পর্যন্ত যুগ যুগ ধরে সৃজিত হয়ে আসছে বিভিন্ন ধর্ম সম্প্রদায়ের মধ্যে সৌহার্দ্য, সম্প্রীতি ও মানবপ্রেমের বাণী।’

পুরোহিত হত্যার ঘটনাকে ‘মানবতাবোধশূন্য, অন্ধ হিংস্রতা ও বিকৃত পশুপ্রবৃত্তি’ বলে অভিহিত করেছেন বেগম জিয়া। বলেন, ‘পঞ্চগড়ের দেবীগঞ্জে ধর্মগুরুকে ধারালো চাপাতি দিয়ে হত্যা ও অন্যান্য পুজারিদের গুরুতর জখমের আতঙ্কসঞ্চারী ঘটনা অশুভ আগামীর ইঙ্গিত বহন করে।’

খালেদা জিয়া বলেন, ‘সাম্প্রতিক সময়ে ইতালীয় নাগরিক তাভেল্লা হত্যাকাণ্ড থেকে এই নিষ্ঠুরতম বর্বর পরিকল্পনার যাত্রা শুরু হয়েছে, তা গত পরশু দিন পঞ্চগড় জেলাধীন দেবীগঞ্জে গিয়ে পৌঁছেছে। আর এসব বর্বর পরিকল্পনার শিকার হয়ে চিরনিদ্রায় শায়িত হয়েছেন অনেক মানবসন্তান। এদের মধ্যে যেমন বিদেশি নাগরিক আছেন তেমনি আছেন দেশের বিভিন্ন সম্প্রদায়ের মানুষ ও ধর্মাচার্য, ব্লগার, প্রকাশকসহ বেশ কিছু জন।’

‘অবস্থাদৃষ্টে মনে হচ্ছে, আমরা যেন জাতির গোরস্থানের ওপর দিয়ে হেঁটে যাচ্ছি। এই চূড়ান্ত দুঃসময়ে জনমনে একটা প্রশ্ন জেগে উঠছে, সরকার কী করছে,’ বলেন বেগম জিয়া।

তিনি ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, কয়েক মাস ধরে একের পর এক হত্যাকাণ্ডের বিষয়ে সরকার নির্বিকার। এগুলোর কোনো সুরাহাই করতে পারেনি তারা। প্রকৃত দুষ্কৃতকারীদের না ধরে উল্টো বিএনপিসহ বিরোধী দলের ওপর দোষ চাপিয়েছে সরকার।

তিনি বলেন, জঙ্গি তৎপরতা পর্যবেক্ষণকারী একটি সংস্থা দেশে সাম্প্রতিক নৃশংস ঘটনাগুলোতে একটি জঙ্গি সংগঠনের দায় স্বীকারের বার্তার বিষয়ে বারবার উল্লেখ করলেও সরকার সেটিকে পাত্তা দেয়নি। সরকার এখন দেশবাসী ও আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে বারবার বোঝানোর চেষ্টা করছে, বাংলাদেশে কোনো জঙ্গি নেই। এটি মিথ্যাবাদী রাখালের চিৎকারের চারিত্র্যলক্ষণ।

বিএনপি চেয়ারপারসন পুরোহিত যজ্ঞেশ্বর রায়ের আত্মার শান্তি কামনা করেন এবং অবিলম্বে হত্যাকারীদের চিহ্নিত করে গ্রেপ্তারের মাধ্যমে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির জোর দাবি জানান। তিনি মঠের আহত পুজারিদের সুস্থতাও কামনা করেন।

রোববার (২১ ফেব্রুয়ারি) সকালে পঞ্চগড় জেলার দেবীগঞ্জ উপজেলা সদরে সন্তগৌড়ীয় মঠের প্রধান পুরোহিত ও অধ্যক্ষ যজ্ঞেশ্বর রায়কে গলা কেটে হত্যা এবং মঠের অন্য পূজারিদের গুলি ও ককটেলের আঘাতে গুরুতর আহত করে দুর্বৃত্তরা।

Pin It on Pinterest

Share This

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. more information

The cookie settings on this website are set to "allow cookies" to give you the best browsing experience possible. If you continue to use this website without changing your cookie settings or you click "Accept" below then you are consenting to this.

Close