জাতীয় শ্রমিকলীগ সিলেট মহানগর শাখার ৩নং ও ১১নং ওয়ার্ড শ্রমিকলীগের দ্বিবার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত

জাতীয় শ্রমিকলীগ সিলেট মহানগর শাখার ৩নং ও ১১নং ওয়ার্ড সম্মেলন গত বৃহস্পতিবার রাত ৮টায় নগরীর পশ্চিম কাজলশাহ সোনার বাংলা আ/এ মাঠে অনুষ্ঠিত হয়। জাতীয় শ্রমিকলীগ সিলেট মহানগর শাখার দপ্তর সম্পাদক ও জাতীয় রিক্সাভ্যান শ্রমিকলীগ কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী সংসদের সহ সভাপতি খন্দকার ফায়েক উজ্জামান মাষ্টারের পরিচালনায় এবং ৩নং ওয়ার্ড আ’লীগের আহ্বায়ক মোঃ ওয়ারিছ মিয়ার সভাপতিত্বে উক্ত সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, সিলেট মহানগর আ’লীগের সহ সভাপতি গাজী মোহাম্মদ জাফর সাদেক, প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল খালিক, সম্মেলন উদ্ধোধন করেন জাতীয় শ্রমিকলীগ সিলেট মহানগর শাখার বিপবী সভাপতি জাফর উদ্দিন চৌধুরী। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত বক্তব্য রাখেন, সিলেট মহানগর আ’লীগের সহ সভাপতি এড. রাজ উদ্দিন আহমদ, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ফয়জুল আনোয়ার আলাওর, শ্রী বিজিত চৌধুরী, তথ্য ও গবেষনা সম্পাদক তপন মিত্র, বন ও পরিবেশ সম্পাদক জগদীশ চন্দ্র দাস, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক এড. সৈয়দ শামীম, শ্রম সম্পাদক জুবের খান, সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক প্রিন্স সদরুজ্জামান চৌধুরী, এড. প্রদীপ ভট্টাচার্য, কার্যকরী সদস্য জামাল আহমদ চৌধুরী, ইঞ্জিনিয়ার সিরাজুল ইসলাম, মহানগর আওয়ামীলীগের উপদেষ্টা মন্ডলীর সদস্য সালাউদ্দিন বক্স সালাই, সাবেক ছাত্রনেতা ও কাউন্সিলর আব্দুর রকিব বাবলু, মবশ্বির আলী, ১১নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের যুগ্ম আহবায়ক আব্দুল রকিব শিকদার, যুবলীগ নেতা মুরাদ আহমদ মুরল, পারভেজ খান, আওয়ামীলীগ নেতা এম এ লাহিন, ওয়াজিবুর রহমান সাহেল। অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সিলেট সুনামগঞ্জ বিদ্যুৎ শ্রমিকলীগের সভাপতি শুক্কুর আহমদ, সিলেট মহানগর সিএনজি অটোরিক্সা শ্রমিকলীগের সভাপতি আবু তাহের নানা ভাই, সিলেট মহানগর রিক্সাভ্যান শ্রমিকলীগের সভাপতি বোরহান উদ্দিন ভান্ডারী, মহানগর হকার্সলীগের সভাপতি শাহজাহান মিয়া, মহানগর সিএনজি অটোরিক্সা শ্রমিকলীগের সাধারন সম্পাদক ফরিদ আহমদ, শ্রমিক নেতা নিয়জ খান, অনুর চৌধুরী, মহানগর দোকান কর্মচারীলীগের সাধারন সম্পাদব সাহাবুদ্দিন আহমদ সাবু, ছাত্রনেতা আবির আহমদ রানা, শ্রমিক নেতা মুশারফ কাজী, নাজির মুল্লা, হাবিবুর রহমান হাবিব, কয়েছ আহমদ, মোতালেব মিয়া, ছুনু মিয়া, আব্দুর রহমান, মিশু মিয়া, জুমন মিয়া, ইসহাক আলী, লিটন সরকার, জুনেদ আহমদ, আব্দুল মন্নান, সাগর মিয়া, আব্দুল মতিন প্রমূখ।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে গাজী জাফর সাদেক (কয়েছ গাজী) বলেন, জামায়াতে ইসলামী যুদ্ধাপরাধী দল তারা স্বাধীনতার বিরোধীতা করেছে অথচ আগুন সন্ত্রাসী নেত্রী বেগম খালেদা তাদেরকে মন্ত্রী বানিয়ে তাদের গাড়িতে জাতীয় পতাকা লাগিয়ে জাতীয় পতাকার অবমাননা করেছেন। এতে ৩০লক্ষ শহীদ ও ২লক্ষ মা-বোনের মর্যাদা ক্ষুন্য করা হয়েছে। শেখ হাসিনার সরকার কোন অন্যায়কে প্রশ্রয় দেবে না। যুদ্ধাপরাধীদের বিচার চলছে। আদালতের দেয়া দন্ড কার্যকর হচ্ছে। আগামীতে বাংলাদেশ হবে রাজাকারমুক্ত। তিনি আরো বলেন, ৭১ এর রনাঙ্গনের শহীদদের সংখ্য নিয়ে বেগম খালেদা জিয়া যে কটাক্ষ করেছেন অনতিবিলম্বে তার বিরোদ্ধে দেশদ্রোহী মামলা করে তাকে বিচার কাঠগড়ায় দাড় করাতে হবে। অন্যথায় জনরোগে বেগম খালেদা জিয়া ভষ্মীভূত হয়ে যাবে। সম্মেলনে প্রধান অতিথি মোঃ ফখরুল ইসলাম নাসিমকে সভাপতি ও মোঃ সুমন আহমদকে সাধারন সম্পাদক এবং সোহেল আহমদকে সাংগঠনিক সম্পাদক করে ৩১ সদস্য বিশিষ্ট ৩নং ওয়ার্ড শ্রমিকলীগ এবং মোঃ আব্দুল খালিককে সভাপতি, মোঃ রুমেল আহমদকে সাধারন সম্পাদক ও শ্রী মুকুল দাসকে সাংগঠনিক সম্পাদক করে ৩১সদস্য বিশিষ্ট ১১নং ওয়ার্ড শ্রমিকলীগের কমিটি ঘোষনা করা হয়।

Pin It on Pinterest

Share This

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. more information

The cookie settings on this website are set to "allow cookies" to give you the best browsing experience possible. If you continue to use this website without changing your cookie settings or you click "Accept" below then you are consenting to this.

Close