বাংলাদেশ ছাত্র মৈত্রী সিলেট জেলার প্রশিক্ষণ কর্মশালা

মৌলবাদী সাম্প্রদায়িক শক্তি শিক্ষাঙ্গন থেকে হটাতে হবে
– কমরেড নুর আহমদ বকুল

02বাংলাদেশ ছাত্র মৈত্রী অসাম্প্রদায়িক গণতান্ত্রিক শিক্ষা ব্যবস্থা প্রতিষ্ঠার লড়াইয়ের আপোষহীন সংগঠন। এদেশে রাষ্ট্রধর্ম বিল বিরোধী সংগ্রামে জামিল আক্তার রতন জীবন দিয়েছেন। জীবন দিয়েছে রিমু, রূপম, নাসিম, ফারুক, পান্না সহ অসংখ্য ছাত্র মৈত্রী কর্মী রাজপথে জীবন দিয়ে বাংলাদেশের অসাম্প্রদায়িক গণতান্ত্রিক অভিযাত্রাকে এগিয়ে নিয়েছে। এ গৌরব ও আদর্শকে ছাত্র মৈত্রীর প্রতিটি কর্মীকে অনুসরণ করতে হবে। বর্তমানে প্রতিবাদী তরুণদের উপর পুজিবাদী সর্বোচ্চ আগ্রাসন চলছে, ব্যক্তিবাদ, ভোগবাদ, স্বার্থপরতা ও পুজিবাদী শিক্ষা ব্যবস্থা বিশ্বব্যাপী তরুণ সমাজকে প্রগতির বিরুদ্ধে দার করাচ্ছে। শুধু তাই নয় র্ধমান্ধতা ও ধর্মীয় উপাসনালয় তরুণ প্রজন্মকে সাম্রাজ্যবাদ নতুনভাবে উদীপ্ত করে বিশ্বব্যাপী সাম্রাজ্যবাদকে উস্কে দিচ্ছে। সাম্রাজ্যবাদীদের এ চক্রান্তকে ছাত্র মৈত্রীর কর্র্মীদের রোখতে হবে। ছাত্র মৈত্রী সিলেট জেলা কর্তৃক আয়োজিত দিনব্যাপী প্রশিক্ষণ কর্মশালার উদ্বোধনী পর্বের আলোচনা সভায় উদ্বোধক ও প্রধান অতিথি’র বক্তব্যে ৯০’র গণঅভ্যুত্থানের অন্যতম রুপকার, ছাত্র মৈত্রী কেন্দ্রীয় কমিটির প্রাক্তন সভাপতি ও বাংলাদেশের ওয়ার্কার্স পার্টির কেন্দ্রীয় পলিট ব্যুরোর সদস্য কমরেড নুর আহমদ বকুল উপরোক্ত কথাগুলো বলেন। গতকাল শুক্রবার স্থানীয় জেল রোডের একটি অভিজাত হোটেলের প্রশিক্ষণ কক্ষে বাংলাদেশ ছাত্র মৈত্রী সিলেট জেলার সভাপতি ও কেন্দ্রীয় সদস্য স্বপন দাসের সভাপতিত্বে এবং সাংগঠনের জেলা সহ সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহমান জনি ও সাংগঠনিক সম্পাদক মাসুদ রানা চৌধুরীর যৌথ পরিচালনায়, আয়োজিত প্রশিক্ষণ কর্মশালায় উদ্ভোধনী পূর্বে তিনি আরো বলেন, মুক্তিযোদ্ধের চেতনায় উদ্ধুদ্ভ হয়ে সাধারণ ছাত্রছাত্রীদের ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। মৌলবাদী সাম্প্রদায়িক শক্তিকে শিক্ষাঙ্গন থেকে হটাতে ছাত্র মৈত্রীর কর্মীদেরকেই উদ্যোগ নিতে হবে। প্রশিক্ষণ উদ্ভোধনী সভায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, ওয়ার্কার্স পার্টির সিলেট জেলা সভাপতি কমরেড আবুল হোসেন, বাংলাদেশ নারী মুক্তি সংসদ সিলেট জেলা সভাপতি ইন্দ্রানী সেন সম্পা, প্রশিক্ষক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, ওয়ার্কার্স পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির অন্যতম নেতা ও পার্টির সিলেট জেলা সাধারণ সম্পাদক কমরেড সিকন্দর আলী, ছাত্র মৈত্রীর প্রাক্তন কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক তানভীর রুসমত, ছাত্র মৈত্রীর বর্তমান কেন্দ্রীয় শিক্ষা ও প্রশিক্ষণ বিষয়ক সম্পাদক দিশারী আজিম। এছাড়াও অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, যুব মৈত্রীর মহানগরের সভাপতি ও ছাত্রমৈত্রীর প্রাক্তন সভাপতি শামীম মজুমদার, যুব মৈত্রীর মহানগরের সাধারণ সম্পাদক ইউসুফ আহমেদ, জাতীয় শ্রমিক ফেডারেশন সিলেট জেলার সাধারণ সম্পাদক কাজী আলফাজ হোসেন প্রমূখ। উল্লেখ্য যে, জাতীয় সংগীত ও ছাত্রমৈত্রীর দলীয় সংগীতের মধ্য দিয়ে প্রশিক্ষণ শুরু হয় এবং ছাত্র মৈত্রী সিলেট জেলার বিভিন্ন স্কুল, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের ৫০ জন কর্মী প্রশিক্ষনে অংশগ্রহণ করেন। উক্ত কর্মীসভায় আরো উপস্থিত ছিলেন, সিলেট জেলা ছাত্রমৈত্রীর সহ সভাপতি মনিরুল ইসলাম, বিপুল সাহা, দপ্তর সম্পাদক সারতি ওঁরাও, রাজনৈতিক বিষয়ক সম্পাদক মাহমুদুল হাসান সাকিল, প্রচার সম্পাদক লিপন সাহা, সদস্যবৃন্দ হলেন, মুজালেক, আমিনা বেগম পিউরী, শিপা ওঁরাও, অরুন মাল, নুরুল আহমেদ, রাহেল, সাকিব, সুভাশীষ, হিমেল আলম চৌধুরী, জয়ন্তী, গোলাম কিবরিয়া, দিলোয়ার হোসেন, আহসান হাবিব খান, হ্যাপী, প্রমূখ।

Pin It on Pinterest

Share This

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. more information

The cookie settings on this website are set to "allow cookies" to give you the best browsing experience possible. If you continue to use this website without changing your cookie settings or you click "Accept" below then you are consenting to this.

Close