বাংলাদেশের মানবাধিকার পরিস্থিতি নিয়ে মার্কিন কংগ্রেসে ব্রিফিং আজ

TLHRC_Logoডেস্ক রিপোর্টঃ বাংলাদেশের মানবাধিকার পরিস্থিতি নিয়ে মার্কিন কংগ্রেসের টম ল্যানটস হিউম্যান রাইট কমিশন একটি ব্রিফিং করতে যাচ্ছে আজ। স্থানীয় সময় ১লা ডিসেম্বর সকাল ১০টায় (বাংলাদেশ সময় আজ রাত ৯টা) ব্রিফিংটি অনুষ্ঠিত হবে ওয়াশিংটন ডিসির রেবার্ন হাউজ অফিস ভবনে। ‘শ্রিঙ্কিং স্পেস ফর সিভিল সোসাইটি’ শীর্ষক সিরিজ ব্রিফিংয়ের এবারের বিষয়বস্তু হলো ‘হিউম্যান রাইটস ইন বাংলাদেশ’। ব্রিফিং নোটিশে চলতি বছরে ব্লগার হত্যাকান্ডের কথা উল্লেখ করে বলা হয়, এসব হত্যাকান্ড বাংলাদেশের অবনতিক্রম মানবাধিকার পরিস্থিতির একটি অংশ। দেশটিতে নাগরিক ও রাজনৈতিক অধিকার ও ধর্মীয় স্বাধীনতা খর্ব হওয়ার বিষয়গুলো বিশেষ উদ্বেগের। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও তার দল আওয়ামী লীগের বিরদ্ধে প্রতিবাদ দমিয়ে ফেলা হয়েছে। সমালোচনামূলক দৃষ্টিভঙ্গি সেন্সর করা হয়েছে। আর এসব সমালোচনাকারীরা কখনও গ্রেপ্তার হয়েছেন। কখনও বা নিখোঁজ হয়ে গেছেন। সম্প্রতি বিতর্কিত যুদ্ধাপরাধ বিচার ট্রাইবুন্যাল মৃত্যুদ-ের রায় দেয়ার পর দুইজন রাজনৈতিক বিরোধী নেতার মৃত্যুদ- কার্যকর করা হয়েছে। যথাযথ প্রক্রিয়া অনুসরণের ঘাটতির জন্য সমালোচিত এই ট্রাইবুন্যাল। ধর্মীয় গোষ্ঠী, বিদেশী ও ধর্মনিরপেক্ষ কর্মীদের যেসব সহিংস উগ্রপন্থীরা টার্গেট করেছে তারা এখনও ধরাছোঁয়ার বাইরে রয়ে গেছে। বাংলাদেশে সন্ত্রাসী গোষ্ঠীদের দৃঢ় অবস্থান থাকতে পারে এমন রিপোর্টের প্রেক্ষিতে সংবেদনশীলতা আর উদ্বেগ বৃদ্ধি পেয়েছে। এ পরিস্থিতি নাগরিক সমাজের কার্যক্রম পরিচালনার পরিবেশ আরও ঝুকিপূর্ণ করে তুলেছে। ফলে সৃষ্টি হয়েছে সেলফ সেন্সরশিপ। নোটিশে বলা হয়, বাংলাদেশের মানবাধিকার পরিস্থিতি নিয়ে নিজেদের বিশেষজ্ঞ মূল্যায়ন ও ব্যক্তিগত অভিজ্ঞতার আলোকে বক্তব্য রাখবেন প্যানেলিস্টরা। আর মানবাধিকার রক্ষা ও তার প্রতি সম্মান প্রদর্শনের বাধ্যবাধ্যকতা মেনে চলে বাংলাদেশ কিভাবে এসব উদ্বেগজনক রীতি মোকাবেলা করতে পারে তা নিশ্চিতে মার্কিন কংগ্রেসের কি কি করণীয় থাকতে পারে সে বিষয়গুলো তুলে ধরবেন বক্তারা।
্িব্রফিংটি উন্মুক্ত থাকবে কংগ্রেসের সদস্য, কর্মকর্তা, গণমাধ্যম ও আগ্রহী জনসাধারণের জন্য। ব্রিফিংয়ে উদ্বোধনী বক্তব্য রাখবেন টম ল্যানটস হিউম্যান রাইটস কমিশনের দুই কো চেয়ার কংগ্রেসম্যান জেমস পি. ম্যাকগভার্ন ও কংগ্রেসম্যান জোসেফ আর. পিটস। ব্রিফিংয়ে আলোচক তালিকায় রয়েছেন, নিহত ব্লগার অভিজিত রায়ের স্ত্রী রাফিদা আহমেদ বন্যা, ইউএস কমিশন ফর ইন্টারন্যাশনাল রিলিজিয়াস ফ্রিডমের সিনিয়র পলিসি অ্যানালিস্ট সাহার চৌধুরি, পেন আমেরিকান সেন্টারের মুক্ত মত প্রকাশ কার্যক্রমের পরিচালক কারিন, ডিউশ কারলেকার ও আটলান্টিক কাউন্সিলের দক্ষিণ এশিয়া সেন্টারের পরিচালক ভারত গোপালাস্বামী।

Pin It on Pinterest

Share This

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. more information

The cookie settings on this website are set to "allow cookies" to give you the best browsing experience possible. If you continue to use this website without changing your cookie settings or you click "Accept" below then you are consenting to this.

Close