গ্রামীণফোনের নতুন ক্লাউড স্টোরেজ সেবা মাই কন্ট্যাক্টস

my_contactগ্রাহকদের জন্য অভিনব সেবা নিয়ে এলো গ্রামীণফোন। গ্রামীণফোন গ্রাহকরা এখন থেকে চাইলেই তাদের স্মার্টফোনের মাধ্যমে ফোনের সব কন্ট্যাক্ট ব্যাকআপ রাখতে পারবেন। গ্রাহকদের এ ব্যাকআপ সুবিধা দিতে গ্রামীণফোন চালু করলো মাই কন্ট্যাক্টস সেবা যার মাধ্যমে সহজেই স্মার্টফোন ব্যবহারকারীরা কন্ট্যাক্ট ব্যাকআপের ক্ষেত্রে আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করতে পারবেন।

মাই কন্ট্যাক্টস একটি ক্লাউড স্টোরেজ সার্ভিস যার মাধ্যমে সহজেই স্মার্টফোনে কন্ট্যাক্ট ব্যাকআপ রাখা যাবে ও নতুন ফোনে শেয়ার করা যাবে। গ্রাহকদের প্রয়োজনীয়তার কথা বিবেচনা করেই “মাই কন্ট্যাক্টস” সেবাটি চালু করা হয়েছে। গ্রামীণফোনের সকল গ্রাহক বিনামূল্য “মাই কন্ট্যাক্টস” অ্যাপটি গুগুল প্লে স্টোর ও অ্যাপল স্টোর থেকে ডাউনলোড করে নিতে পারবেন।

গ্রামীণফোন এশিয়ায় টেলিনরের প্রথম টেলিকম সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান, যারা টেলিনর ডিজিটালের সহায়তায় গ্রাহকদের জন্য এ সেবা চালু করলো। মাই কন্ট্যাক্টস সহজে ব্যবহারযোগ্য ক্লাউড সার্ভিস যার মাধ্যমে সব কন্ট্যাক্ট সুরক্ষিতভাবে ব্যাকআপ রাখা যাবে। গ্রাহকরা যদি তাদের ফোন পরিবর্তন করেন অথবা ফোনটি যদি হারিয়ে যায়, তবে তারা মাই কন্ট্যাক্টস র মাধ্যমে সহজেই তাদের নতুন ফোনে ব্যাকআপ করা কন্ট্যাক্টগুলো নিয়ে নিতে পারবেন।“মাই কন্ট্যাক্টস” অ্যাপের ওয়েব ইন্টারফেসও রয়েছে তাই গ্রাহকরা চাইলে কম্পিউটারের মাধ্যমেও তাদের “মাই কন্ট্যাক্টস” ব্যবহার করতে পারবেন ।

এই উপলক্ষ্যে গ্রামীণফোনের জেনারেল ম্যানেজার, ডিজিটাল এন্ড ডিভাইস মোহাম্মদ মুনতাসির হোসেন বলেন, গ্রামীণফোন এর গ্রাহকদের জন্য নতুন ও প্রয়োজনীয় সেবা আনার ব্যাপারে সবসময় সচেষ্ট। নিরাপদে ও সুরক্ষিতভাবে প্রয়োজনীয় কন্ট্যাক্টের সব তথ্য ব্যাকআপ রাখা ও দরকারের সময় আবার পুনরুদ্ধার করার জন্য “মাই কন্ট্যাক্টস” অ্যাপটি গ্রাহকদের জন্য খুবই সহায়ক হবে।

বাংলাদেশসহ সারাবিশ্বেই মোবাইল ফোন হারিয়ে যাওয়া বা চুরি হয়ে যাওয়া প্রতিদিনকার ঘটনায় পরিণত হয়েছে। অধিকাংশ গ্রাহকই তাদের ফোনের কন্ট্যাক্ট ব্যাকআপ নিয়ে সচেতন নন, বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই যেটা হতাশাজনক। এমন অনেক মানুষ রয়েছে যারা প্রায়ই তাদের ফোন পরিবর্তন করে নতুন প্রযুক্তি সম্বলিত ফোন কিনে নেন। এক্ষেত্রে বেশিরভাগ মানুষই তাদের প্রয়োজনীয় ফোন নাম্বারসহ কন্ট্যাক্টের অন্যান্য তথ্য কষ্ট করে হাতে লিখে রাখেন। নতুন ফোন কিনে আবার সেসব নাম্বার ও তথ্য আলাদা আলাদাভাবে ফোনে সেভ করেন। এমন পরিস্থিতিতে, মাই কন্ট্যাক্ট খুবই তাৎক্ষণিক সমাধান দিবে।

মোবাইলবান্ধব এ অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহার করে গ্রামীণফোন গ্রাহকরা ক্লাউড স্টোরেজে নিরাপদে ও সুরক্ষিতভাবে তাদের কন্ট্যাক্ট ব্যাকআপ রাখতে পারবেন। ফোন পরিবর্তন করলে অথবা অন্য যে কোনো প্রয়োজনে গ্রামীণফোন গ্রাহকরা ব্যাকআপ থেকে তাদের সুবিধামতো সব কন্ট্যাক্ট ডাউনলোড করে নিতে পারবেন। কন্ট্যাক্ট একবার ব্যাকআপ করা হয়ে যাওয়ার পর ফোন হারিয়ে গেলে, চুরি হয়ে গেলে, নষ্ট হয়ে গেলে অথবা গ্রাহক ফোন পরিবর্তন করলেও কোনো সমস্যা নেই, প্রয়োজনমতো তিনি তার কন্ট্যাক্ট নতুন ফোনে নিয়ে নিতে পারবেন “মাই কন্ট্যাক্টস”র মাধ্যমে।

বিস্তারিত অনুসন্ধানের জন্য যোগাযোগ করুন: তানভীর আহমেদ, পাবলিক রিলেশন্স, ০১৭১১০৮১০৬৪

গ্রামীণফোন লি:

টেলিনর গ্রুপের অঙ্গসংগঠন গ্রামীণফোন ৫৩ মিলিয়ন এরও অধিক গ্রাহক নিয়ে বাংলাদেশের অগ্রণী টেলিযোগাযোগ প্রতিষ্ঠান। ১৯৯৭ সালে যাত্রা শুরু করার পর দেশব্যাপী সর্ববৃহৎ নেটওয়ার্ক ব্যবস্থা গড়ে তুলেছে গ্রামীণফোন যার মাধ্যমে দেশের ৯৯ শতাংশ মানুষ সেবা গ্রহন করতে পারে। ব্র্যান্ড প্রতিজ্ঞা “চলো বহুদূর” এর আওতায় গ্রামীণফোন, গ্রাহকদের জন্য সর্বোত্তম মোবাইল ডাটা, ভয়েস সেবা এবং সবার জন্য ইন্টারনেট প্রদানে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ। গ্রামীণফোন ঢাকা ও স্টক এক্সচেঞ্জে তালিকাভুক্ত। www.grameenphone.com : www.facebook.com/grameenphone.

Pin It on Pinterest

Share This

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. more information

The cookie settings on this website are set to "allow cookies" to give you the best browsing experience possible. If you continue to use this website without changing your cookie settings or you click "Accept" below then you are consenting to this.

Close