সিলেট হরতাল ডেকে ছাত্রদল উধাও !

chhatrodol logoসুরমা টাইমস ডেস্কঃ সিলেট নগরীতে শুক্র ও শনিবার টানা ৩৬ ঘন্টার হরতাল ডেকে মাঠে নেই ছাত্রদল। তাই ছাত্রদল কর্মীদের মধ্যে চাপা ক্ষোভ বিরাজ করছে । বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়াকে হুকুমের আসামী করে মামলা দায়ের,বিএনপির সিনিয়র ভাইচ চেয়ারম্যান তারেক রহমানের বিরুদ্ধে ষঢ়যন্ত্র বন্ধের দাবি ও গণতন্ত্র পুনুরুদ্ধার আন্দোলনের শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতে গুলি,গুম, হত্যা সহ ২০ দলীয় জোটের নেতৃবৃন্দর মুক্তির দাবিতে হরতালের আহবান করেন সিলেট জেলা ও মহানগর ছাত্রদলের নেতৃবৃন্দ। নগরীর একটি সাইবার ক্যাফে থেকে ইমেলের মাধ্যমে জেলা ছাত্রদলের সভাপতি এডভোকেট সাঈদ আহমদ ও মহানগর ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক নুরুল আলম সিদ্দিকী খালেদের নাম উল্লেখ একটি প্রেস বিজ্ঞপ্তী গণমাধ্যমে পাঠানো হয়। হরতাল সম্পর্কে নিচ্ছিত হওয়ার জন্য প্রেস বিজ্ঞপ্তীতে একটি নাম্বার দেওয়া হয়। তবে এই নাম্বারে যোগাযোগ করা হলে নাম্বার বন্ধ পাওয়া যায়। এমনকি যারা হরতাল আহবান করেছেন তাদের ব্যাক্তিগত মোবাইল ফোন বন্ধ পাওয়া যায়।
এদিকে শুক্রবার থেকে এসএসসি পরীক্ষা শুরু হওয়া হরতালের সংবাদ পেয়ে শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের মধ্যে উদ্বেগ উৎকন্ঠ দেখা দেয়। তবে অবশেষে শুক্রবারের হরতালের মধ্যে শান্তি পূর্ণভাবে পরিক্ষা অনুষ্টিত হয়েছে বলে জানা গেছে। অপরদিকে হরতালের প্রথম দিনে নগরীর মেডিকেল এলাকায় মহানগর ছাত্রদলের সহ সাধারণ সম্পাদক এমদাদুল হক স্বপন ও মেন্দীবাগ এলাকায় জেলা ছাত্রদল নেতা বেলাত হোসেন মোহন এবং জেলা ছাত্রদল নেতা জি এম আজমের নেতৃতে মিছিল অনুষ্টিত হয়েছে। তবে তারা ছাড়া নগরীর আর কোথায় ছাত্রদলের মিছিল ও সমাবেশের সংবাদ পাওয়া যায়নি। ছাত্রদল কর্মীরা অভিযোগ করে বলেন, জেলা ও মহানগর ছাত্রদলের সভাপতি ও সাধারাণ সম্পাদক নেতাকর্মী কারো সাথে কোন পরামর্শ না করে তারা যখন যেটা তখন সেটা করেন।নাম প্রকাশে অনুচ্ছিক এক ছাত্রদল নেতা জানান, ছাত্রদলের নতুন কমিটির পদবী নেতারা মাঠে নেই। তাই তাদের নিজেদের অবস্থান কেন্দ্রকে দেখানোর জন্য এই হরতাল আহবান করেছেন।
এদিকে এক প্রেস বিজ্ঞপ্তীর মাধ্যমে এসএসসি পরীক্ষার কেন্দ্র পাহাড়া দিয়ে ছাত্রদলকে মাঠে প্রতিহিত করার ঘোষনা দেয় সিলেট জেলা ও মহানগর ছাত্রলীগ। তাই শুক্রবার এসএসসি পরীক্ষা চলানকালীন সময় ছাত্রলীগের বেশ কয়েক জন নেতাকর্মীকে বিভিন্ন পরীক্ষা কেন্দ্রে পাহাড়া দিতে দেখা যায়। তাছাড়া হরতালের আহবান শুনে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ফেইসবুকে ছাত্রদলের কোঠোর সমালোচনা করেন।
এমসি কলেজ ছাত্রলীগ কর্মী নাজমুল ইসলাম তার ফেইসবুক আইডিতে লিখেছেন, কই গেলিরে শালারা,রাজপথে তুদের বাবারা, সাহস থাকলে সামনে আয়,ছাত্রলীগ লড়তে চায়। আবার অনেকে লিখেছেন আদু ভাইদের হরতাল ছাত্রলীগ প্রতিহিত করতে প্রস্তুত,সাহস থাকলে মাঠে আসো। এভাবে ছাত্রদলকে ইঙ্গিত করে ফেইসবুকে ছাত্রলীগের নানা মন্তব্য দেখা যায়।
হরতালে মাঠে না থাকার কারণ সম্পর্কে ছাত্রদলের নেতাকর্মীদের সাথে আলাপ করে জানা যায়, ত্যাগি পরীক্ষিত নেতাদের বাদ দিয়ে পেশাজীবি,বয়স্ক, শিবির থেকে আগত ও নিষ্কয় নেতাকর্মী দ্বারা ছাত্রদলের নতুন কমিটি গঠন করায় তৃণমুল ছাত্রদলের সাথে কমিটির কারো সম্পর্ক নেই। তাই সম্পর্ক না থাকায় কর্মীরা বিচ্ছিন্ন ভাবে আন্দোলন করতে হচ্ছে ।
হরতালে মাঠে না থাকা সম্পর্কে জানার জন্য ছাত্রদলের দায়িত্বশীলদের সাথে ফোনে যোগাযোগ করতে চাইলে, তাদের কারো মোবাইল ফোন খোলা পাওয়া যায়নি। হরতালে বিএনপি সমর্থন রয়েছে কিনা সে ব্যাপারে জেলা বিএনপির যুগ্ন আহবায়ক দিলদার হোসেন সেলিমের সাথে ফোনে যোগাযোগ কারা হলে তিনি বলেন, ছাত্রদলের নেতারা হরতাল আহবান করে আমাদের সাথে পরামর্শ করতে আসে তবে আমরা এই হরতালকে সমর্থন জানাইনি।

Pin It on Pinterest

Share This

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. more information

The cookie settings on this website are set to "allow cookies" to give you the best browsing experience possible. If you continue to use this website without changing your cookie settings or you click "Accept" below then you are consenting to this.

Close