সিলেট জেলা প্রসাসকের কার্যালয় সহ নগরজুড়ে ককটেল বিস্ফোরণ, গাড়ি ভাঙচুর, মিছিল

হরতাল, অবরোধের সমর্থনে সুবিদবাজার, মদিনা মার্কেট, নয়াসড়কে ছাত্রদলের মিছিল, গাড়ি ভাঙচুর, ককটেল বিস্ফোরণ

hortal modina marketসুরমা টাইমস ডেস্কঃ সোমবার সিলেট নগরীতে টানা অবরধ, হরতালের ২য় দিনে হরতাল সমর্থনে দিনভর নাশকতার চেষ্টা চালিয়েছে বিরোধী জোটের সমর্থক কর্মীরা।
সোমবার বিকেল ৪টায় নগরীর নয়াসড়ক এলাকায় মিছিল করেছে ছাত্রদল। হরতাল অবরোধের সমর্থনে সিলেট জেলা ছাত্রদলের সাবেক সদস্য লিটন আহমদ ও মহানগর ছাত্রদল নেতা জাহেদ আহমদ তালুকদারের নেতৃত্বে এ মিছিল বের করা হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন, ছাত্রদল নেতা আব্দুল করিম জুনাক, আলী হাসান হাবিব, জাবেদুর রহমান জাবেদ, পারভেজ আহমদ প্রমূখ।
অবরোধ ও হরতালের সমর্থনে এবং মহানগর ছাত্রদল নেতা রেজাউল করিম নাচনের উপর মিথ্যা-ষড়যন্ত্রমূলক মামলা দায়েরের প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল-সমাবেশ করেছে সিলেট জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল। সোমবার নগরীর সুবিদবাজার এলাকায় এই মিছিল সমাবেশ অনুষ্টিত হয়।
সিলেট সদর উপজেলা ছাত্রদলের উদ্যোগে মিছিল থেকে গাড়ি ভাঙচুর ও ককটেলের বিস্ফোরণ ঘটিয়েছে। সোমবার বিকাল ৫টায় সদর উপজেলা ছাত্রদলের সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুর রউফ ও মদন মহন কলেজ ছাত্রদলের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি শিহাব খানের নেতৃত্বে মিছিল বের করা হয়। মিছিল শেষে ছাত্রদল কমীরা ৭-৮টি গাড়ি ভাঙচুর করে এবং ৫ ককটেল বিষ্ফোরণ ঘটায়।
সন্ধ্যা ৭টার দিকে আচমকা কয়েকজন দুর্বৃত্ত নগরীর বারুতখানায় ককটেল বিস্ফোরণ ঘটিয়েছে । একই সময় সিলেট নগরীর চৌহাট্টাস্থ শহীদ সামসুদ্দীন হাসপাতালের সামনে থেকে ‌’জামায়াত-শিবির’ নেতাকর্মীরা চলমান হরতাল-অবরোধের সমর্থনে একটি ঝটিকা মিছিল বের করে। মিছিল থেকে তারা কয়েকটি ককটেল বিস্ফোরণ ঘটায়। এসময় তাদের ছুঁড়া একটি ককটেল ফটো সাংবাদিক আব্দুল বাতিন ফয়সলের মাথায় লেগে নিচে পড়ে বিস্ফোরিত হয়। এতে তিনি আহত হন।
সন্ধ্যার পর মিছিল নগরীর বিভিন্ন স্থানে মিছিল করেছে হরতাল সমর্থকরা। হঠাৎ করা মিছিল থেকে ককটেল বিস্ফারণে প্রকম্পিত হয়ে সিলেট নগরী। হরতাল সমর্থকরা পৃথক পৃথক মিছিল থেকে ককটেল বিস্ফোরণ ঘটিয়েছে। সিলেট জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের প্রধান গেইট,সুবিদবাজার,লালদীঘির পাড় এবং বন্দর বাজার বারুত খানা এলাকায় পর পর বেশ কয়েকটি ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে। ভাংচুর করেছে ৬ থেকে ৭ টি সিএনজি অটোরিকশা। সন্ধ্যা ৭ টা ২০ মিনিটের দিকে এক সাথে এসব ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের ফটকে ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনায় নড়েচড়ে বসেছে পুলিশ। বাড়ানো হয়েছে পুলিশের টহল। প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, ককটেল বিস্ফোরণের ঘটনায় লোকজন দিগ্বিদিক ছোটা ছুটি করতে থাকেন।রাস্তায় কমে যায় যানবাহনের চলাচল।আতংক ছড়িয়ে পড়ে নগরজুড়ে।

Pin It on Pinterest

Share This

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. more information

The cookie settings on this website are set to "allow cookies" to give you the best browsing experience possible. If you continue to use this website without changing your cookie settings or you click "Accept" below then you are consenting to this.

Close