দানবীয় মন-প্রাণ পরিহার করা সকলের নৈতিক দায়িত্ব ও কর্তব্য

সৎসঙ্গের প্রথম প্রধান আচার্য্যদেব শ্রীশ্রী বড়দার ১০৪ তম শুভ আবির্ভাব দিবস উদযাপন

DSC00986 copyপাবলিক সার্ভিস কমিশনের সদস্য ও প্রাক্তন শিক্ষা সচিব ড: মোহাম্মদ সাদিক বলেছেন, দানবীয় মন-প্রাণ পরিহার করা সকলের নৈতিক দায়িত্ব ও কর্তব্য। দানবীয় মন-প্রাণ থাকলে সৃজনশীল ভাবে বাঁচা যায় না। সমাজ সংসার আশান্ত হয়। মানুষ এগিয়ে যাবার বদলে পিছনে যায় শতগুণ। তিনি গতকাল ২১ নভেম্বর শুক্রবার বিকেলে পরমপ্রেমময় শ্রীশ্রীঠাকুর অনুকুলচন্দ্্েরর জ্যেষ্ঠাতœজ পরম পূজ্যপাদ প্রথম প্রধান আচার্য্যদেব শ্রীশ্রী বড়দা (শ্রী অমরেন্দ্রনাথ চক্রবর্তী)-এর ১০৪ তম শুভ আবির্ভাব দিবস উপলক্ষে আয়োজিত ধর্ম সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, পরমপ্রেমময় শ্রীশ্রীঠাকুর অনুকুলচন্দ্্র মানুষকে আলোকিত পথে নিয়ে যাবার প্রেরনা যুগিয়েছেন। তার বাণী ও আদর্শ মানুষকে সুষ্ঠু ও সুন্দর ভাবে জীবনযাপনের সাহস যুগায়। ধর্ম সভায় সভাপতিত্ব করবেন মৌলভীবাজার সৎসঙ্গ প্রার্থনা কেন্দ্রের সভাপতি শ্রী সুনীল কুমার দাশ। বিকাল ৩:০১ মিনিটে শ্রী শ্রী ঠাকুরের দিব্য জীবন, ভাবাদর্শ ও মানব জীবনে আচার্য্য অনুসরণের প্রয়োজনীয়তার আলোকে শীর্ষক ধর্মসভার শুরুতেই স্বাগত বক্তব্য রাখেন শ্রীহট্ট সৎসঙ্গ বিহার করের পাড়া সিলেটের ইনচার্য সহ-প্রতি ঋত্ত্বিক অধ্যাপক শ্রী আশুতোষ দাস। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন কবি গবেষক চৌধুরী হাবিবুর রহমান সিদ্দিকী ও খুলনার সহ-প্রতি-ঋত্বিক শ্রী রঞ্জিত মল্লিক। সমস্ত অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন এডভোকেট পংকজ দাশ। পরে সন্ধ্যা ৫:০৭ মিনিটে সন্ধ্যকালীন সমবেত বিনতি প্রার্থনা, নামজপ ও সদ্গ্রন্থাদি পাঠ করা হয় এবং মনোজ্ঞ একক সঙ্গীত সন্ধ্যায় শ্রী কৃতি রঞ্জন রায় সংগীত পরিবেশন করেন। বিজ্ঞপ্তি।

Pin It on Pinterest

Share This

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. more information

The cookie settings on this website are set to "allow cookies" to give you the best browsing experience possible. If you continue to use this website without changing your cookie settings or you click "Accept" below then you are consenting to this.

Close