পদ্মা সেতুর নির্মাণ যন্ত্রপাতি আসছে রোববার

Padma Bridgeসুরমা টাইমস ডেস্কঃ পদ্মা সেতু নির্মাণের যন্ত্রপাতির প্রথম চালান আগামীকাল রোববার চট্টগ্রাম বন্দরে পৌঁছাচ্ছে। ৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার দীর্ঘ পদ্মা সেতু অত্যাধুনিক স্টিল দিয়ে নির্মাণ করার যন্ত্রপাতির নিরাপত্তায় ইতোমধ্যে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকেও নির্দেশ দেয়া হয়েছে।
গত ২৯ সেপ্টেম্বর চীনের সাংহাই বন্দর থেকে ড্রেজার, ভাসলন ক্রেন, টাগ বোটসহ প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতি বোঝাই জাহাজটি বাংলাদেশের উদ্দেশে রওনা দেয়। তবে চট্টগ্রাম বন্দর এলাকায় পানির অগভীরতার জন্য পোর্ট জেটি থেকে প্রায় ৪৫ নটিক্যাল মাইল দূরে কুতুবদিয়া মোহনায় নোঙর করা হবে।
নোঙর করা জাহাজের যন্ত্রপাতির নিরাপত্তার জন্য গত ৩০ সেপ্টেম্বর সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের সেতু বিভাগের সিনিয়র সহকারী সচিব মোহাম্মদ ইবনে কাসেম স্বাক্ষরিত একটি চিঠি সেতু বিভাগ থেকে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, কোস্টগার্ডের মহাপরিচালক, নৌ-বাহিনীর সদর দপ্তরের পরিচালক (ন্যাভাল অপারেশন), পদ্মা সেতু প্রকল্প পরিচালকসহ সংশ্লিষ্ট দপ্তরে পাঠানো হয়েছে।
চিঠিতে বলা হয়েছে, পদ্মা বহুমুখী সেতু প্রকল্পের মূল সেতু নির্মাণ কাজে নিয়োজিত ঠিকাদার চীনা মেজর ব্রিজ ইঞ্জিনিয়ারিং কোম্পানি লিমিটেড মূল সেতু নির্মাণ কাজে ব্যবহারের জন্য প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতি বাংলাদেশে শিপমেন্ট করেছে।
যন্ত্রপাতি বহনকারী জাহাজ গত ২৯ সেপ্টেম্বর চীনের সাংহাই বন্দর থেকে রওনা দিয়েছে, যা আগামীকাল ১২ অক্টোবর রোববার নাগাদ বাংলাদেশে পৌঁছবে।
সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, গত ২ জুন মূল সেতুর কার্যাদেশ দেয় সরকার। গত বছর ২৬ জুন চূড়ান্ত দরপত্র আহ্বানের পর চারটি প্রাকযোগ্য কোম্পানির তিনটি দরপত্র সংগ্রহ করে। কারিগরি প্রস্তাবও জমা দেয় তিন কোম্পানি। কিন্তু চূড়ান্ত আর্থিক প্রস্তাব জমা দেয়নি দক্ষিণ কোরিয়ার স্যামসাং সিএন্ডটি করপোরেশন ও ডেলিম-এলএন্ডটি জেভি। ফলে এককভাবে অংশ নিয়েই পদ্মা সেতুর কাজ পায় চায়না মেজর ব্রিজ।

Pin It on Pinterest

Share This

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. more information

The cookie settings on this website are set to "allow cookies" to give you the best browsing experience possible. If you continue to use this website without changing your cookie settings or you click "Accept" below then you are consenting to this.

Close