শেষ হলো সালমান শাহ স্মরণ উৎসব

Salman Shahসুরমা টাইমসঃ শেষ হলো ঢুলি কমিউনিকেশনস আয়োজিত প্রাণ-আপ নিবেদিত ‘সালমান শাহ স্মরণ উৎসব-২০১৪’। সফল আয়োজন আর দর্শকদের উপচে পড়া ভিড়ের মধ্য দিয়ে সপ্তাহব্যাপী আয়োজিত এ উৎসব অনুষ্ঠিত হয় রাজধানীর ঐতিহ্যবাহী প্রেক্ষাগৃহ বলাকা সিনেওয়ার্ল্ডে। গত ৬ই সেপ্টেম্বর ছিল অকালপ্রয়াত সালমান শাহ’র ১৮তম মৃত্যুবার্ষিকী। মূলত এ দিনটিকে উপলক্ষ করে ঢুলি কমিউনিকেশনস আয়োজন করে এ ব্যতিক্রমী এবং প্রশংসনীয় স্মরণ উৎসবের। প্রথমবারের মতো আয়োজিত এ উৎসবের জমকালো উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সালমান শাহ’র আবিষ্কারক পরিচালক সোহানুর রহমান সোহান, প্রথম নায়িকা মৌসুমী, সমসাময়িক Salman Shah Utshobসুপারহিট নায়ক ওমর সানী, এ সময়ের আলোচিত নায়ক অনন্ত, চলতি প্রজন্মের মডেল-নায়ক নিরব-ইমন-আলিফ, নায়িকা আইরিন, প্রযোজক-প্রদর্শক নাসিরুদ্দিন দিলু, নুরুল পারভেজ, নির্মাতা দেবাশীষ বিশ্বাস, অনিমেষ আইচ, মুহাম্মদ মোস্তফা কামাল রাজ, রেদওয়ান রনি, সিনিয়র সাংবাদিক দেওয়ান হাবিবুর রহমান, সৈকত সালাহউদ্দিন, প্রাণ-আপের ব্র্যান্ড ম্যানেজার মনিরুল ইসলাম, সিনিয়র মিডিয়া ম্যানেজার সুজন মাহমুদসহ সালমান শাহ’র অগুনতি ভক্ত-দর্শক ও চলচ্চিত্রপ্রেমী। উৎসবের উদ্বোধন ঘোষণা করেন যৌথভাবে সোহানুর রহমান সোহান ও মৌসুমী। জমকালো এ অনুষ্ঠানটি উপস্থাপনার দায়িত্ব পালন করেন আনজাম মাসুদ ও ফারহানা নিশো। উৎসব উপলক্ষে ওই দিন ঢুলি কমিউনিকেশসন প্রকাশ করে সালমান শাহ’র বায়োগ্রাফি ও ছবিসংবলিত একটি দুর্লভ সুভ্যিনির এবং একটি ভিজ্যুয়াল ডুকুমেন্টরি। এদিন উদ্বোধনী ছবি হিসেবে প্রদর্শিত হয় সালমান শাহ’র প্রথম ছবি ‘কেয়ামত থেকে কেয়ামত’। ঢুলি কমিউনিকেশনসের আয়োজনে প্রাণ-আপ নিবেদিত এ স্মরণ উৎসবে ৬ থেকে ১১ই সেপ্টেম্বর পর্যন্ত প্রতিদিন একটি করে ছয়টি উল্লেখযোগ্য চলচ্চিত্র প্রদর্শন করা হয়। প্রথম দিন ‘কেয়ামত থেকে কেয়ামত’, দ্বিতীয় দিন ‘স্বপ্নের ঠিকানা’, তৃতীয় দিন ‘সুজনসখি’, চতুর্থ দিন ‘অন্তরে অন্তরে’, পঞ্চম দিন ‘তুমি আমার’ এবং সমাপনী ছবি হিসেবে ১১ই সেপ্টেম্বর(গতকাল) দিনব্যাপি প্রদর্শিত হয় ‘সত্যের মৃত্যু নাই’। উৎসবের সফল সমাপ্তি প্রসঙ্গে আয়োজক প্রতিষ্ঠান ঢুলি কমিউনিকেশনসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আল মাহমুদ মানজুর বলেন, মৃত্যুকে শোক নয় বরং সালমানের সৃজন উৎকর্ষতাকে অনুপ্রেরণায় পরিণত করতেই তাদের এ আয়োজন। এ উৎসব আয়োজনের মধ্য দিয়ে ঢুলি চায় প্রজন্ম থেকে প্রজন্মে সালমান শাহ’র চিত্রশৈলী ছড়িয়ে দিতে। এ উৎসবকে সাফল্যম-িত করতে সংশ্লিষ্ট সবার প্রতি কৃতজ্ঞতাও প্রকাশ করেন তিনি।

Pin It on Pinterest

Share This

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. more information

The cookie settings on this website are set to "allow cookies" to give you the best browsing experience possible. If you continue to use this website without changing your cookie settings or you click "Accept" below then you are consenting to this.

Close