রোমে উপমন্ত্রী জ্যাকেব এমপি কে ইতালী আওয়ামী লীগের গণসংবর্ধনা

romeইতালি প্রতিনিধি: ইতালির রোমে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের বন ও পরিবেশ মন্ত্রনালয়ের মাননীয় উপমন্ত্রী আলহাজ্জ আব্দুল্লাহ আল ইসলাম জ্যাকেব এমপি ইতালী আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে গণসংবর্ধনা দেওয়া হয়েছে। ইতালী আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি হাবীব চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও সাধারন সম্পাদক হাসান ইকবালের পরিচালনায় সংবর্ধনা সভায় মাননীয় মন্ত্রী বলেন, যারা প্রবাস থেকে রাজনীতি করেন তারা কোন স্বার্থের কারনে দল করেন না, তারা দলকে ভালোবেসে দেশকে ভালোবেসে রানীতি করে। কারন তাদের কোন চাওয়া পাওয়া থাকে না, তারা নিজের পরিশ্রমে উপার্জিত অর্থ ব্যয় করে রাজনীতি করে। তিনি বলেন আপনাদের শতস্ফুর্ত অংশগ্রহন দেখে আমি খুবই আনন্দিত। প্রবাসের শত ব্যস্থতার মাঝেও আপনারা যে আমাকে সময় দিয়েছেন সম্মান করেছেন এজন্যে আমি সত্যিই গর্বিত আমি আপনাদের কাছে কৃতজ্ঞ। সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন রোমস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসের রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ শাহাদৎ হোসেন, জনাব রাষ্ট্রদূত তার বক্তৃতায় ইতালী প্রবাসীদের প্রয়োজনে কথা মনে রেখে রবিবারেও দূতাবাসের কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে। যাতে করে দুর দুরান্ত থেকে রোমে এসে কেউ যেন ফেরত না যায়। তিনি বলেন আমি যতক্ষণ আছি ততক্ষণ পর্যন্ত আমি আপনাদের জন্য চেষ্টা করে যাব।
সাধারন সম্পাদক হাসান ইকবাল বলেন মাননীয় মন্ত্রী মহদয়ের কাছে আমাদের আবেদন তিনি যেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে আমাদের একটি দাবি পৌছে দেন যে, বর্তমান রাষ্ট্রদুত মোহাম্মদ শাহাদৎ হোসেন এর মেয়াদকাল যেন বাড়ানো হয়, কারন তিনি রোমে বাংলাদেশ দূতাবাসের জন্য নিজস্ব কার্যালয় ক্রয়ের পদক্ষেপ নিয়েছেন এবং আমরা আশা করি তিনি সফল হবেন। সহ সভাপতি মোঃ জাহাঙ্গীর ফরাজী বলেন ইতালী আওয়ামী লীগ জননেত্রী শেখ হাসিনার ভিশন ২০২১ এবং রূপকল্প বাস্তবায়নে সব সময় প্রবাস থেকেও সর্বাত্মক সহযোগীতা করে যাবে। তিনি আরো বলেন তারেক রহমান লন্ডনে বসে বাংলার স্বর্ণজ্জল ইতিহাস বিকৃত করে বিভিন্ন প্রকার কল্পকাহীনি তৈরী করছেন, তার এই ঘৃণ্য কর্মকান্ড কখনই সফল হবে না। জনাব ফরাজী বাংলাদেশ সরকারের কাছে দাবি করেন ইন্টারপোলের মাধ্যমে তারেক রহমানকে দেশে নিয়ে বিচারের কাঠ গড়ায় যেন দাড় করানো হয়।
সভায় আরো বক্তব্য রাখেন সর্বইউরোপ আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি কেএম লোকমান হোসেন, যুগ্ম সাধারন সম্পাদক আবু তাহের, সাংগঠনিক সম্পাদক মোজাফ্ফর হোসেন বাবুল, সরদার মোঃ লুৎফর রহমান, জামান মোক্তার, দপ্তর সম্পাদক হাবীব মকদম। সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন যোবায়ের আহাম্মদ রিপন, শ্রমীক লীগের সহ সাভাপতি মঞ্জু, স্বেচ্ছা সেবক লীগের সভাপতি হুমায়ুর কবীর, সাবেক ছাত্র নেতা গিয়াপস উদ্দিন, দিপু, ফারুক ফরাজী, মহিলা আওয়ামী লীগের সুমনা সুমী, নায়না আহাম্মেদ, মলি জামানসহ আওয়ামী লীগের অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা।

Pin It on Pinterest

Share This

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. more information

The cookie settings on this website are set to "allow cookies" to give you the best browsing experience possible. If you continue to use this website without changing your cookie settings or you click "Accept" below then you are consenting to this.

Close