বৃটিশ হাইকমিশনে নালিশ : চারদিনেও মুজিব ও তার গাড়ি চালক উদ্ধার হয়নি

Mujibur Rahman Mujibসুরমা টাইমস ডেস্কঃ চারদিনেও সন্ধ্যান মিলেনি ব্রিটিশ নাগকিক বিএনপি নেতা মুজিবুর রহমান মুজিব ও তার গাড়ী চালকের। আইন-শৃংখলা বাহিনীর সদস্যরা গতকাল বুধবার রাত পর্যন্ত কোন ক্লু বের করতে পারেননি। মুজিবুর রহমান মুজিব নিখোঁজ হওয়ায় মঙ্গলবার তার পরিবারের পক্ষ থেকে বৃটিশ হাইকমিশনে লিখিত অভিযোগ করা হয়েছে। এদিকে এ ঘটনায় বিএনপির পক্ষ থেকে আন্দোলনের প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে। সরকারকে ওই আন্দোলন বেকায়দায় ফেলবে বলে ধারনা করছেন বিএনপি নেতারা। এছাড়া মুজিবুর রহমান বৃটিশ নাগরিক হওয়ায় যুক্তরাজ্যের পক্ষ থেকে চাপ আসতে পারে সরকারের উপর। তবে মুজিব ও তার চালক সুহেলকে গাড়িসহ উদ্ধার করতে প্রশাসনের পক্ষ থেকে সম্ভাব্য সকল স্থানে অভিযান চালানো হচ্ছে। এদিকে সিলেট সুনামগঞ্জে তার সন্ধ্যান দাবিতে মাঠে নেমেছে বিএনপি ও এর অঙ্গ সংগঠন। পাশাপাশি চালক সুহেল উদ্ধারে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন স্ত্রী। গতকাল দুপুরে সুনামগঞ্জ শহরের উকিল পাড়ার অনাবিল ৫৯ নং বাসায় গাড়ি চালক রেজাউল হক সোহেলের স্ত্রী মালা সাংবাদিকদের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর সাহায্য চান। ওই সময় ৬ মাসের দুধের শিশু খদিজা খানম জিনুক তার কোলে ছিল।
র‌্যাব-৯ এর কমান্ডার মুফতি মাহমুদ জানান, এখন পর্যন্ত কোন ক্লু পাওয়া যায়নি। তবে র‌্যাবের পক্ষ থেকে ক্লু উদঘাটনের চেষ্টা চলছে। তিনি বলেন, দেশে মুজিবুর রহমানের স্বজনরা না থাকায় তার নিকট আত্বীয় সুনামগঞ্জ অফিসে একটি লিখিত অভিযোগ করেছেন। র‌্যাব-৯ ক্লু উদঘাটনের চষ্টা অব্যাহত রেখেছে।
নির্ভরযোগ্য সূত্রে জানাগেছে, মুজিবুর রহমান নিখোঁজের বিষয়টি জানতে পেরে তাৎক্ষনিক মাঠে নামে আইন-শৃংখলা বাহিনীর বিভিন্ন সংস্থা। তারা তাদের অবস্থান থেকে তথ্য সংগ্রহে সকল প্রযুক্তি ব্যবহারের করছেন। প্রাথমিকভাবে পুলিশ মোবাইল ট্রাকিংয়ের মাধ্যমে মুজিবুর রহমানের অবস্থান বের করার চেষ্টা চালাচ্ছে। সোমবার মুজিবুর রহমানের মোবাইল ফোন ময়মনসিংহের মুক্তাগাছা এলাকার নেটওয়ার্কের আওতায় ছিল। এর আগের দিন রোববার বিকেলে ছাতকের গোবিন্দগঞ্জে ওই মোবাইল ফোনের অবস্থান ছিল বলে জানতে পারে পুলিশ। তবে নিখোঁজ হওয়ার পর মুজিবের পূর্ব শত্রুতা, সম্পদ নিয়ে বিরোধ ও টাকা পয়সা লেনদেন সংক্রান্ত ৩টি বিষয়কে গুরুত্ব দিয়ে তদন্ত শুরু করেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।
মুজিবুর রহমানের পারিবারিক সূত্র জানায়, মুজিবুর রহমান নিখোঁজ হওয়ার পর থেকে যুক্তরাজ্যে তার পরিবারের সদস্যরা নির্ঘুম রয়েছেন। আতঙ্ক তাদের ঘিরে রাখছে সারাক্ষন । একটি ভালো খবরের জন্য দেশে সার্বক্ষনিক যোগাযোগ রাখছেন। মুজিবের স্ত্রী স্বামীর কথা চিন্তা করে বারবার মুর্চা যাচ্ছেন। ছেলে রিপন মুজিব, মেয়ে নাছিমা রহমান, সেলিমা রহমান, মুন্নি রহমান, পলি রহমানেরও একই অবস্থা।
এদিকে মুজিবুর রহমান মুজিব ও গাড়ি চালককে অক্ষত ও জীবিত অবস্থায় ফিরিয়ে দিতে ২৪ ঘন্টার সময় বেধে দিয়েছে সুনামগঞ্জ জেলা বিএনপি। মঙ্গলবার দুপুর ১টায় শহরের লন্ডল প্লাজায় বিএনপির অস্থায়ী কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে এ সময় দেন বিএনপির আহবায়ক নাসির উদ্দিন চৌধুরী। তিনি গতকাল রাতে জানান, আইন-শৃংখলা বাহিনী মুজিবুর রহমানকে উদ্ধারের চেষ্টা চালাচ্ছে। গতকাল সুনামগঞ্জ জেলা বিএনপির পক্ষ থেকে মানবন্ধন করা হয়েছে। আজ সকাল ১১ টায় বিক্ষোভ মিছিল ও সকল থানায় পথসভা, আগামীকাল শুক্রবার মসজিদে ও মন্দিরে দোয়া প্রার্থনা করা হবে। পরবর্তীতে আরো কঠোর কর্মসূচি আসবে বলে জানান নাসির উদ্দিন চৌধুরী।
সিলেট জেলা বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক অ্যাডভোকেট আব্দুল গফফার জানান, আজ এ বিষয়ে আলোচনায় বসবে জেলা বিএনপি। আলোচনা থেকে পরবর্তী করনীয় কি তা সিদ্ধান্ত হবে।
মুজিবের ভাগ্নিজামাই মো. রবিউল ইসলাম বলেন, মুজিবুর রহমানের ছেলে-মেয়েরা বাবার জন্য কান্নাকাটি করছেন। তার স্ত্রী বারবার জ্ঞান হারিয়ে ফেলছেন। তিনি জানান, নিখোঁজের বিষয়টি বৃটিশ হাইকমিশনকে জানানো হয়েছে। প্রশাসনের পদক্ষেপ অব্যাহত থাকলে মুজিবুর রহমানকে তার পরিবার ফিরে পাবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।
সুনামগঞ্জের পুলিশ সুপার হারুন অর রশীদ জানান, এখন পর্যন্ত ভাল ফলাফল দেওয়ার মতো কোন তথ্য তাদের কাছে আসেনি। তার বিভিন্ন বিষয় নিয়ে তদন্ত চলছে তিনি কিডনাপ হয়েছেন না নিজে থেকে আত্মগোপনে রয়েছেন এ ব্যাপারেও সন্দেহ রয়েছে জানিয়ে হারুনুর রশীদ বলেন সব কিছু মিলিয়ে তাকে উদ্ধারের জন্য অভিযান অব্যাহত রয়েছে।
মুজিব যুক্তরাজ্য যুবদলের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ও সুনামগঞ্জ জেলা বিএনপির আহবায়ক কমিটির সদস্য। রোববার তিনি সুনামগঞ্জ শহরে বিএনপি আয়োজিত গুম-হত্যা ও নিখোঁজের প্রতিবাদে অনশন কর্মসূচিতে যোগ দেন। বিকেল ৩টার দিকে তিনি বাসায় ফিরেন। দুপুরের খাবার খেয়ে বেলা চারটার দিকে চালক সোহেলকে নিয়ে প্রাইভেট কারে সিলেটের উদ্দেশ্যে যাত্রা করেন। এরপর থেকে বৃটিশ নাগরিক, বিএনপি নেতা মুজিব, তার গাড়ি চালক সুহেল ও প্রাইভেট গাড়ির কোন খোঁজ পাওয়া যায়নি।

Pin It on Pinterest

Share This

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. more information

The cookie settings on this website are set to "allow cookies" to give you the best browsing experience possible. If you continue to use this website without changing your cookie settings or you click "Accept" below then you are consenting to this.

Close