ব্রিটেনে ইসলামি আইনের স্বীকৃতি

Islami Lawসুরমা টাইমস ডেস্কঃ ব্রিটেনে ইসলামি উত্তারাধিকার আইন কার্যকর করা হচ্ছে। দেশটির ইতিহাসে এই প্রথমবারের মতো আইনবিদেরা শরিয়াহ-সামঞ্জস্যপূর্ণ উইলের রূপরেখা তৈরি করেছেন।
এই রূপরেখা ব্রিটেনের আদালতগুলো স্বীকৃতি দেবে। আইনজীবীরা সাধারণভাবে এই উদ্যোগকে ‘দারুণ’ হিসেবে অভিহিত করেছেন।
চলতি মাসের প্রথম দিকে রূপরেখাটি প্রকাশ করা হয়। ব্রিটিশ আইনের অধীনেই ইসলামি বিধানমতে কিভাবে উইল তৈরি করা যাবে- তার একটা ধারণা দেয়া হয় এই রূপরেখায়। কোনো কোনো ক্ষেত্রে ব্রিটিশ আইনের বদলে ইসলামি আইন বহাল রাখার ব্যবস্থাও হয়েছে এতে।
অবশ্য অনেকে এই আইন গ্রহণ করার তীব্র সমালোচনাও করছে। তাদের মতে, এই ব্যবস্থার ফলে অবৈধ সন্তানরা কোনো উত্তরাধিকারীর অধিকারী হবে না বা নারীরা সমান অংশ পাবে না উল্লেখ করে তারা এই আইনের বিরোধিতা করছে।
বর্তমানে ব্রিটিশ আইনে শরিয়াহ নীতিমালা আনুষ্ঠানিকভাবে স্বীকৃত নয়। তবে ব্রিটেনের মুসলিম সম্প্রদায়গুলোর মধ্যে মুসলিম পরিবারগুলোর মধ্যকার বিরোধ নিরসনে শরিয়াহ আদালতের একটি নেটওয়ার্ক সক্রিয় রয়েছে। আরবিট্রেশন অ্যাক্টের আওতায় এসব আদালতের কোনো কোনোটির স্বীকৃতিও রয়েছে। তারা বিশেষ করে বাণিজ্যিক বিরোধ মীমাংসার ক্ষেত্রে পক্ষগুলের মধ্যে চুক্তি সম্পন্ন করার ব্যবস্থা করতে পারে। এসব আদালত পারিবারিক সহিংসতা, পারিবারিক বিরোধ, উত্তরাধিকার বিবাদ নিরসনেও কাজ করতে পারে। মসজিদভিত্তিক কোনো কোনো গ্রুপ তালাক, অভিভাবকত্ব ইত্যাদি ব্যাপারে মধ্যস্ততা করে থাকে।
এক সমীক্ষায় দেখা গেছে, ব্রিটেনে বর্তমানে ৮৫টি শরিয়াহ সংস্থা রয়েছে।

Pin It on Pinterest

Share This

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. more information

The cookie settings on this website are set to "allow cookies" to give you the best browsing experience possible. If you continue to use this website without changing your cookie settings or you click "Accept" below then you are consenting to this.

Close