শহীদ মিনারে সিলেট জেলা বিএনপির প্রতীকি অনশন

রাজনৈতিক প্রতিপক্ষকে আদর্শিকভাবে মোকাবেলা করুন জননেতা ইলিয়াস আলীকে ফিরিয়ে দিন
—–আবুল কাহের চৌধুরী শামীম

BNP Sylhet District Onson Programme Photo -23-04-16বিএনপির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ও সিলেট জেলা বিএনপির সভাপতি আবুল কাহের চৌধুরী শামীম বলেছেন- বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি প্রতিহিংসার নয় প্রতিযোগিতার গনতান্ত্রিক রাজনীতিতে বিশ্বাস করে। রাজনৈতি প্রতিপক্ষকে নির্মুলের প্রতিহিংসার ধ্বংসাত্মক রাজনীতি আওয়ামীলীগকে জনবিচ্ছিন্ন দলে পরিনত করেছে। জনপ্রিয়তায় ঈর্ষান্বিত হয়ে বিএনপিকে নেতৃত্বশুন্য করতে সিলেটের কোটি জনতার হৃদয়ের স্পন্দন জননেতা এম. ইলিয়াস আলীকে গুম নামক কারাগারে আটকে রাখা হয়েছে। নিখোঁজ বিএনপি নেতার পরিবার ও তাঁর দল বিএনপি বারবার সরকারের কাছে জোর দাবী জানানো সত্ত্বেও ৪ বছর পেরিয়ে গেলেও জননেতা ইলিয়াস আলীকে ফিরিয়ে দিতে ব্যার্থ হয়েছে সরকার। রাজনৈতিক প্রতিপক্ষকে আদর্শিকভাবে মোকাবেলা করুন অবিলম্বে জননেতা এম. ইলিয়াস আলীকে জনতার মাঝে অক্ষত অবস্থায় ফিরিয়ে দিন।
তিনি শনিবার জননেতা এম. ইলিয়াস আলী গুমের ৪ বছরে পদার্পন উপলক্ষে সিলেট জেলা বিএনপি ঘোষিত মাসব্যাপী কর্মসুচীর অংশ হিসেবে নগরীর চৌহাট্রাস্থ কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার প্রাঙ্গনে অনুষ্ঠিত প্রতীকি অনশনে সভাপতির বক্তব্যে উপরোক্ত কথা বলেন। নিখোঁজ বিএনপির সাবেক কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক, সাবেক সিলেট জেলা সভাপতি ও সাবেক সফল সংসদ সদস্য জননেতা এম. ইলিয়াস আলী সহ নিখোঁজ নেতাকর্মীদের অবিলম্বে ফিরিয়ে দেয়ার দাবীতে সিলেট জেলা বিএনপি আয়োজিত প্রতীকি অনশন বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মীদের উপস্থিতির মধ্য দিয়ে বেলা ১১টা থেকে শুরু হয় ১টায় সমাপ্ত হয়। উপস্থিত নেতাকর্মীদের তরল পানীয় জুস পান করিয়ে অনশন ভাঙ্গান সম্মিলিত পেশাজীবি পরিষদ সিলেট-এর আহ্বায়ক ডা. শামীমুর রহমান শামীম। অনশন ভাঙ্গানোর প্রাক্কালে ডা. শামীমুর রহমান শামীম বলেন- কোন নাগরিক গুম হলে এর দায় সরকার কোনভাবেই এড়াতে পারেনা। বাংলাদেশে গুম, খুন ও হত্যার রাজনীতি চরম বিপর্যয় ডেকে আনছে। গনতান্ত্রিক অধিকার আজ নেই বললেই চলে। তবুও ক্ষমতাসীন সরকারই এদেশের অভিভাবক। যে কোন ঘটনার জন্য আমাদেরকে সরকারের দ্বারস্থ হতে হবে। আমরা আশা করছি সরকার কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহনের মাধ্যমে জননেতা এম. ইলিয়াস আলী সহ নিখোঁজ নেতাকর্মীদেরকে অক্ষত অবস্থায় তাদের পরিবারের কাছে দ্রুত ফিরিয়ে দিবেন। দেশের শীর্ষ স্থানীয় একজন রাজনীতিবিদ এভাবে গুম হয়ে যাবে আর ৪ বছরে তাঁর খোঁজ মিলবেনা তা কোন নাগরিকই মেনে নিতে পারেনা। অবিলম্বে জননেতা এম. ইলিয়াস আলী সহ গুমকৃত নেতাকর্মীদেরকে তাদের পরিবারের কাছে ফিরিয়ে দিন।
সিলেট জেলা বিএনপির সাধারন সম্পাদক আলী আহমদ-এর পরিচালনায় অনুষ্ঠিত প্রতীকি অনশনে বক্তব্য রাখেন- সিলেট জেলা বিএনপির সাবেক আহ্বায়ক এডভোকেট নুরুল হক, সিলেট মহানগর বিএনপির সাধারন সম্পাদক বদরুজ্জামান সেলিম, সাবেক সংসদ সদস্য আবুল কাহির চৌধুরী, জেলা বিএনপির সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক ও জেলা যুবদল সভাপতি আব্দুল মান্নান, বিএনপি নেতা এডভোকেট আশিক উদ্দীন আশুক, জেলা বিএনপির সাবেক যুগ্ম সাধারন সম্পাদক মাহবুবুর রব চৌধুরী ফয়সল, জেলা বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক এডভোকেট হাসান আহমদ পাটোয়ারী রিপন, গোলাপগঞ্জ উপজেলা বিএনপির সাবেক আহ্বায়ক নজরুল ইসলাম ময়ুর, সিলেট মহানগর মুক্তিযোদ্ধা দলের আহ্বায়ক সালেহ আহমদ খসরু, বিএনপি নেতা শহীদ আহমদ চেয়ারম্যান, এমদাদ হোসেন চৌধুরী, অধ্যাপিকা সামিয়া বেগম চৌধুরী, এডভোকেট আনোয়ার হোসেন, নজিবুর রহমান নজিব, এডভোকেট আতিকুর রহমান সাবু, কাউন্সিলার সালেহা কবির শেপী, সদর উপজেলা বিএনপির সাধারন সম্পাদক সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান আবুল কাশেম, দক্ষিণ সুরমা উপজেলা বিএনপির সাধারন সম্পাদক শামীম আহমদ, জেলা ছাত্রদলের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক নাজিম উদ্দীন পান্না প্রমুখ।
প্রতীকি অনশনে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- সিলেট জেলা বিএনপির সাবেক সহ-সভাপতি ময়নুল হক চৌধুরী, বিএনপি নেতা একেএম তারেক কালাম, ওসমান গনী, হাজী শাহাব উদ্দীন, হাজী আব্দুল মতলিব, জাহানার ইয়াসমিন, অধ্যক্ষ জিল্লুর রহমান শোয়েব, মাহবুব কাদির শাহী, তোফাজ্জল হোসেন, আজির উদ্দীন চেয়ারম্যান, হাজী ছমির উদ্দীন, আব্দুল হান্নান, সুরমান আলী, নছির মিয়া, আব্দুল লতিফ খান, মাহমুদ আলী, হাবীবুর রহমান হাবীব, নাহিদুল ইসলাম নাহিদ, শেখ ইলিয়াস আলী, আল মাহমুদ খান, সিরাজুল ইসলাম খান, এডভোকেট ফজলুল হক সেলিম, এডভোকেট তাজরিনা জামান, এডভোকেট আল আসলাম মুমিন, রায়হান আহমদ, বদরুল ইসলাম আজাদ, মুরাদ আহমদ, আব্দুল ওয়াহিদ, রফিকুল ইসলাম, মালেক মেম্বার, যুবদল ও ছাত্রদল নেতাদের মধ্য থেকে মিজানুর রহমান নেছার, গিয়াস আহমদ মেম্বার, কল্লোলজ্যোতি বিশ্বাস জয়, আব্দুল মুকতাদির খান, মকসুদুল করিম নোহেল, ফখরুল ইসলাম, এম. এ মালেক ও মোশতাক আহমদ প্রমুখ।

Pin It on Pinterest

Share This

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. more information

The cookie settings on this website are set to "allow cookies" to give you the best browsing experience possible. If you continue to use this website without changing your cookie settings or you click "Accept" below then you are consenting to this.

Close