ঢাকায় লাখো মানুষের অংশগ্রহণে আন্জুমানে রহমানিয়া মইনীয়া মাইজভা-ারীয়ার জশ্নে জুলুস

প্রিয় নবী (দ.)’র দুনিয়ায় শুভাগমন মানবজাতির জন্য আল্লাহর বিশেষ করুণা ও অনুগ্রহ
–শাহ্সূফী সৈয়দ সাইফুদ্দীন আহমদ আল্-হাসানী (ম.জি.আ.)

ইসলামের আদর্শচ্যুত উগ্রবাদী জঙ্গিরা ধর্মের নামে ত্রাস সৃষ্টি করছে : মুহাম্মদ নাসিম

Julus_2আন্জুমানে রহমানিয়া মইনীয়া মাইজভা-ারীয়ার উদ্যোগে লাখো লাখো নবীপ্রেমী জনতার অংশগ্রহণে রাজধানী ঢাকায় বিশ্বের বৃহত্তম জশ্নে জুলুসে ঈদে মিলাদুন্নবী (দ.) অনুষ্ঠিত হয়েছে। ২৫ ডিসেম্বর শুক্রবার রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যান থেকে সকাল সাড়ে ৯টায় জুলুস (ধর্মীয় শুভাযাত্রা) শুরু হয়ে প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে এসে বিশাল মহাসমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। জশ্নে জুলুসে নেতৃত্ব দেন এবং মাহফিলে সভাপতিত্ব করেন মাইজভা-ার দরবার শরিফের বর্তমান ইমাম ও আন্জুমান কেন্দ্রীয় সভাপতি রাহ্বারে শরিয়ত ও তরিকত হযরত শাহ্সূফী মাওলানা সৈয়দ সাইফুদ্দীন আহমদ আল্-হাসানী (ম.জি.আ.)। কলেমা তৈয়্যবা খচিত পতাকা, জাতীয় পতাকা, আন্জুমানের পতাকা এবং নানা ধরনের বাণী ও সেøাগান লিখিত ব্যানার-ফেস্টুন হাতে নিয়ে সারা দেশ থেকে আগত লাখো-লাখো নবী-ওলীপ্রেমী জনতা জশ্নে জুলুসে অংশ নেন। নারায়ে তকবির, নারায়ে রেসালত ও গাউসিয়তের ধ্বনিতে প্রকম্পিত হয়ে ওঠে রাজধানীর রাজপথ। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রী মুহাম্মদ নাসিম এমপি। বিশেষ অতিথি ছিলেনÑ মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মাননীয় মন্ত্রী জনাব আ.ক.ম. মোজাম্মেল হক এমপি, দক্ষিণ আফ্রিকার ঘানা থেকে আগত ইন্টারন্যাশনাল সূফীজমের চেয়ারম্যান ড. শায়খ আহমেদ তিজানী বিন ওমর, বিশিষ্ট রাজনীতিবীদ আলহাজ্ব ফখরুল আনোয়ার, শাহজাদা সৈয়দ ফরহাদ আহমেদ, শাহজাদা সৈয়দ ফারুখ আহমেদ, শাহজাদা সৈয়দ মাশুক-এ-মইনুদ্দীন, শাহজাদা সৈয়দ হাসনাইন-এ-মইনুদ্দীন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. আক্তারুজ্জামান, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. আনিসুজ্জামান। মহাসমাবেশে সভাপতির বক্তব্যে হযরত শাহ্সূফী মাওলানা সৈয়দ সাইফুদ্দীন আহমদ আল্-হাসানী (ম.জি.আ.) বলেনÑ প্রিয় নবীর (দ.) দুনিয়ায় শুভাগমন মানবজাতির জন্য আল্লাহর বিশেষ করুণা ও অনুগ্রহ। আল্লাহর অনুগ্রহ প্রাপ্তির জন্যে শুকরিয়া তথা কৃতজ্ঞতা জানানো উম্মতের ওপর নৈতিক ও ঈমানি দায়িত্ব। তিনি আরও বলেনÑ অশান্ত বিশ্বকে শান্তির জনপদে রূপ দিতে প্রিয়নবী (দ.)’র প্রদর্শিত পথ অনুসৃতির বিকল্প নেই। প্রধান অতিথি স্বাস্থ্যমন্ত্রী মুহাম্মদ নাসিম বলেনÑ সারা বিশ্বে আজ অশান্তি-হিংস্রতা-বৈরিতার আগুন ছড়িয়ে পড়ছে। মানুষে-মানুষে দ্বন্দ্ব, দেশে-দেশে সংঘাতে বিশ্ব জনপদ আজ ক্রমেই সহিংস হয়ে উঠছে। অন্যদিকে ইসলামের আদর্শচ্যুত উগ্রবাদী জঙ্গিরা ধর্মের নামে বিশ্বব্যাপী ত্রাস সৃষ্টি করছে। তিনি বলেনÑ বর্তমান সরকারের অপ্রত্যাশিত সাফল্য ও অগ্রগতিতে ঈর্ষান্বিত হয়ে প্রিয় মাতৃভূমি বাংলাদেশের বিরুদ্ধে অনেকেই বিভিন্নভাবে ষড়যন্ত্র করছে। তিনি সকল ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে পীর, আলেম-ওলামা ও জনগণকে সজাগ থাকার আহ্বান জানান। সমাবেশে বিশেষ অতিথি মাননীয় মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক বলেনÑ মানবমুক্তির শাশ্বতবার্তা নিয়ে এ পৃথিবীতে আগমন করেন প্রিয়নবী হযরত মুহাম্মদ মুস্তফা (দ.)। তাঁর প্রচারিত মানবিক ধর্ম ইসলাম বিশ্বে শান্তি-সম্প্রীতি প্রতিষ্ঠা ও গণমানুষের কল্যাণে শ্রেষ্ঠ ও উদারবাদী। অথচ, একশ্রেণীর লোক জঙ্গী ও সন্ত্রাসী কর্মকা-ের মাধ্যমে শান্তির ধর্ম ইসলামকে কলুষিত করছে। তিনি বলেনÑ বৈশ্বিক আতঙ্কÑ জঙ্গীবাদের বিরুদ্ধে সর্বত্র প্রতিরোধ গড়ে তোলার আহ্বান জানান। অনুষ্ঠানে আলোচনায় অংশগ্রহণ করেনÑ মাওলানা নূরুল ইসলাম জামালপুরী, আন্জুমান কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক খলিফা আলমগীর খান মাইজভা-ারী, মাওলানা রুহুল আমীন ভূঁইয়া চাঁদপুরী প্রমুখ। পরে হুজুর কেবলা হযরত সৈয়দ সাইফুদ্দীন আহমদ আল্-হাসানী (ম.জি.আ.)’র ইমামতিতে লাখো লাখো মুসল্লির অংশগ্রহণে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে পবিত্র জুমার নামাজ ও সালাত-ছালাম শেষে বিশ্ব মানবতার শান্তি এবং দেশবাসীর ওপর আল্লাহর রহমত কামনায় বিশেষ মুনাজাত পরিচালনা করেন হুজুর কেবলা (ম.জি.আ.)। অনুষ্ঠান সঞ্চলনায় ছিলেণÑ মুফতী আল্লামা বাকী বিল্লাহ আল্-আযহারী।

Pin It on Pinterest

Share This

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. more information

The cookie settings on this website are set to "allow cookies" to give you the best browsing experience possible. If you continue to use this website without changing your cookie settings or you click "Accept" below then you are consenting to this.

Close