আফগানিস্তান-পাকিস্তানে ভূমিকম্পে নিহত ১০৮

asia-quake-1026-exlarge-169সুরমা টাইমস ডেস্কঃ উত্তর আফগানিস্তানে ৭ দশমিক ৫ মাত্রার ভূমিকম্প হয়েছে। এতে পাকিস্তান ও ‍আফগানিস্তানে ১০৮ জন নিহত হয়েছে। স্থানীয় সময় বিকেল ৩টা ৯ মিনিটে আফগানিস্তানের উত্তরাঞ্চলের ফয়জাবাদ শহর থেকে ৭৩ কিলোমিটার উত্তরে হিন্দু কুশ পর্বত এলাকায় ভূমিকম্পটি অনুভূত হয়।
পাকিস্তানি সংবাদমাধ্যম জানায়, ভূমিকম্পে দেশটিজুড়ে ৮৯ জন নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে পাঁচ শতাধিক লোক। এরমধ্যে পেশোয়ার শহরে নিহত হয়েছে ১৮ জন। সোয়াতে মৃত্যু হয়েছে ৮ জনের। ১৩ জন নিহত হয়েছে চিত্রালে। হতাহতের ঘটনা ঘটেছে ছাদ ও ভবন ধসের কারণে। এছাড়া, ভূমিকম্প অনুভূত হওয়ার পর ছাদ থেকে লাফ দিতে গিয়েও অনেকের জখম হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। বেশি ক্ষয়ক্ষতির ঘটনা ঘটেছে পেশোয়ার ও সোয়াত অঞ্চলে।
‍আফগান সংবাদমাধ্যম জানায়, ভূমিকম্পে দেশটিতে ১৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। এরমধ্যে তাখার প্রদেশের একটি গার্লস স্কুলে হুড়োহুড়ি করতে গিয়ে পদদলিত হয়ে ১২ শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া, আহত হয়েছে আরও কিছু লোক। দেশটির বিভিন্ন অঞ্চল থেকে আরও ক্ষয়ক্ষতির খবর আসতে শুরু করেছে।
ভারতীয় সংবাদমাধ্যম জানায়, ভূমিকম্পে কিছু লোক আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেলেও এখনও কারও প্রাণহানির খবর পাওয়া যায়নি।
তবে, ‍ভূমিকম্পে সড়কের আইল্যান্ডে ফাটল, বিদ্যুতের খুঁটি ও গাছ উপড়ে যাওয়া এবং দেয়াল ধসের ঘটনা ঘটেছে তিনটি দেশেই।
আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম জানায়, ভূমিকম্পের পর ভারতের কাশ্মীর, পাকিস্তানের লাহোর ও আফগানিস্তানের কাবুল এবং তৎসংলগ্ন এলাকায় মোবাইল-ফোন ও বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায়। তৎক্ষণাৎ বন্ধ হয়ে যায় দিল্লির মেট্রোরেল সার্ভিস। আতঙ্কে কর্মস্থল ছেড়ে রাস্তায় বেরিয়ে আসে ভারতের দিল্লিসহ উত্তরাঞ্চলীয় বিভিন্ন শহর, লাহোর, কাবুলসহ বিভিন্ন এলাকার লোকজন। এছাড়া, ভূমিকম্পে ভারতের এনডিটিভির নিউজরুমও কেঁপে ওঠে বলে সে মুহূর্তের একটি ভিডিও প্রকাশ করে সংবাদমাধ্যমটি।
ভূমিকম্পের পর জরুরি উদ্ধার তৎপরতা শুরু করতে সংশ্লিষ্ট ব্যবস্থাপনা বিভাগকে নির্দেশ দিয়েছে পাকিস্তান সরকার। ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিও দুর্গতদের সহায়তায় সর্বোচ্চ তৎপরতার নির্দেশ দিয়েছেন। তিনি পাকিস্তান ও আফগানিস্তানকেও প্রয়োজনে সহায়তা দেওয়ার কথা বলেছেন।
পাকিস্তানের স্থানীয় টেলিভিশন চ্যানেলের খবরে দেখানো হয়, অনেক উঁচু ভবন থেকে বাসিন্দারা বেরিয়ে এসে রাস্তায় অবস্থান নিয়েছে। এ ছাড়া ভারতেও ভূমিকম্পের আতঙ্কে সাধারণ মানুষকে ছোটাছুটি করতে দেখা গেছে।
যুক্তরাষ্ট্রের ভূতাত্ত্বিক জরিপ সংস্থা ইউএসজিএস জানিয়েছে, বাংলাদেশ স্থানীয় সময় বিকেল ৩টা ৯ মিনিট ৩২ সেকেন্ডে ভূমিকম্প হয়। ভূমিকম্পের কেন্দ্রস্থল ছিল আফগানিস্তানের জারমের ৪৫ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমের হিন্দুকুশ পাহাড়ি অঞ্চল। স্থানটি রাজধানী কাবুল থেকে ২৫৪ কিলোমিটার উত্তর-পূর্বে। ভূ-পৃষ্ঠের ২১২ কিলোমিটার গভীরতায় আলোড়নের কারণে ভূমিকম্পটি হয়। পাকিস্তান ও ভারতের কয়েকটি এলাকায়ও ভূমিকম্প অনুভূত হয়েছে।
বাংলাদেশের আবহাওয়া অধিদপ্তরের কর্তব্যরত পূর্বাভাস কর্মকর্তা জানিয়েছেন, দেশের কোথাও ভূমিকম্প অনুভূত হয়নি।
এর আগেও কয়েকবার উপমহাদেশের এই অঞ্চলে কয়েকটি বড় ভূমিকম্প হয়েছে। ২০০৫ সালে পাকিস্তানের নিয়ন্ত্রণাধীন কাশ্মীরে ৭ দশমিক ৬ মাত্রার ভূমিকম্প হয়। আর চলতি বছর এপ্রিলে নেপালে ৭ দশমিক ৮ মাত্রার ভূমিকম্প হয়। দুটি ঘটনাতেই কয়েক হাজার মানুষের মৃত্যু হয়।

Pin It on Pinterest

Share This

By continuing to use the site, you agree to the use of cookies. more information

The cookie settings on this website are set to "allow cookies" to give you the best browsing experience possible. If you continue to use this website without changing your cookie settings or you click "Accept" below then you are consenting to this.

Close